বাতিল PUBG মোবাইল গেম, খুশিতে ফেটে পড়ল লাখ লাখ পরিবার

লাখো পরিবারের রাতের ঘুম কেড়ে নেওয়া PUBG গেম বাতিল করার খবরে খুশিতে ফেটে পড়ল বহু পরিবার।

660

টেক ব্যুরো: নজির বিহীন সিদ্ধান্ত নিল ভারত সরকারের তথ্য ও প্রযুক্তি মন্ত্রক। আজ, বুধবার থেকেই নিষিদ্ধ ঘোষণা করে দেওয়া হল PUBG সহ ১১৮ টি মোবাইল অ্যাপকে । সরকারের পক্ষে বলা হয়েছে দেশের সার্বভৌমত্ব ও অখণ্ডতার স্বার্থে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হল। লাদাখ সীমান্তে ভারত ও চীনের মধ্যে নতুন করে উত্তেজনা শুরু হওয়ার পরই আজ এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হল। সরকারের তরফে জানানো হয়েছে, এই ১১৮ টি মোবাইল অ্যাপ হল ‘ভারতের সার্বভৌমত্ব ও অখণ্ডতা, ভারতের প্রতিরক্ষা, রাষ্ট্রীয় সুরক্ষা এবং গণ-শৃঙ্খলা রক্ষার জন্য হানিকর’। একটি তথ্য অনুযায়ী ভারতে প্রায় ৩৩ মিলিয়ন PUBG -র সক্রিয় খেলোয়াড় আছে।

আরও পড়ুন -  শুধুই প্রশ্ন, প্রশ্ন আর প্রশ্ন! উত্তর মেলেনি কেন আত্মহননে বলিউডের ' মাহি'

 

 

এবং প্রতিদিন ১৩ মিলিয়ন মানুষ এই খেলায় ব্যস্ত থাকেন। কিশোর ও যুব প্রজন্মের একাংশ এই খেলায় এতটাই মশগুল ও নেশাগ্রস্ত হয়ে থাকত যে সামাজিক সমস্যা ও বিশৃঙ্খলার মুখে পড়েছে বহু পরিবার। বহু কিশোর আত্মহত্যা করেছে, অবসাদের কবলে চলে গিয়েছিল চলতি প্রজন্মের একটি বড় অংশ। তাই দেশ জুড়ে স্বস্তির হওয়া বয়ে গেছে এই ঘোষনায়। অভিভাবকরা সাধুবাদ জানিয়েছেন এই সিদ্ধান্তকে।

আরও পড়ুন -  এবার ট্রেনে করেই করোনা আসছে গ্রামে গ্রামে, পশ্চিম মেদিনীপুরেই একদিনে সনাক্ত ৬ আক্রান্ত

বুধবার এক ঘোষনায় তথ্য ও প্রযুক্তি মন্ত্রকের তরফে বলা হয়েছে, পাবজি মোবাইল গেমটিকে তথ্য প্রযুক্তি আইনের ৬৯এ ধারায় নিষিদ্ধ করা হয়েছে। এই সিদ্ধান্তটি ভারতীয় সাইবারস্পেসের সুরক্ষা, এবং সার্বভৌমত্ব নিশ্চিত করার লক্ষ্যে একটি পদক্ষেপ। বলা হয়েছে, এই পদক্ষেপটি কোটি কোটি ভারতীয় মোবাইল এবং ইন্টারনেট ব্যবহারকারীদের স্বার্থ রক্ষা করবে।

আরও পড়ুন – ৫৯ আ্যপস বাতিল শুনে চিন্তায় পড়েছেন ! আমরা নিয়ে এলাম সব সমস্যার মুশকিল আশান ! রইল সব প্রয়োজনীয় আ্যপ্লিকেশন এর বিকল্প

আরও পড়ুন -  রাস্তায় আটকানো হল ঝাড়গ্রাম সাংসদকে, নিজেকে ক্রিমিনাল মনে হচ্ছিল বললেন হেমব্রম

মন্ত্রক আরও জানিয়েছে, তারা দীর্ঘদিন ধরেই অ্যান্ড্রয়েড ও আইওএস প্ল্যাটফর্মে উপলব্ধ কিছু অ্যাপের বিরুদ্ধে অভিযোগ পাচ্ছিল, যে তারা অবৈধভাবে ভারতের বাইরে অবস্থিত সার্ভারে ভারতীয়দের ডেটা জমা করছে। যা ভারতের জাতীয় সুরক্ষা এবং প্রতিরক্ষা, সর্বোপরি ভারতের সার্বভৌমত্ব এবং অখণ্ডতাকে নষ্ট করে। এটি অত্যন্ত গভীর এবং তাৎক্ষণিক উদ্বেগের বিষয় যার জন্য জরুরি ব্যবস্থা গ্রহণের প্রয়োজন ছিল।
প্রসঙ্গত গত জুন মাসে ৫৯টি চীনা অ্যাপকে কেন্দ্র সরকার ভারতে ব্যান করেছিল। যার মধ্যে TikTok, UC Browser, Weibo, Baidu প্রভৃতি ছিল। এই অ্যাপগুলি ব্যান করার পিছনেও একই কারণ দেখিয়েছিল সরকার।

বাতিল PUBG মোবাইল গেম, খুশিতে ফেটে পড়ল লাখ লাখ পরিবার 1