মোদির রাজ্যে ভয়াবহ সড়ক দুর্ঘটনা,১৫ জন ঘুমন্ত পরিযায়ী শ্রমিকদের পিষে দিয়ে গেল ট্রাক

241
মোদির রাজ্যে ভয়াবহ সড়ক দুর্ঘটনা,১৫ জন ঘুমন্ত পরিযায়ী শ্রমিকদের পিষে দিয়ে গেল ট্রাক 1
মোদির রাজ্যে ভয়াবহ সড়ক দুর্ঘটনা,১৫ জন ঘুমন্ত পরিযায়ী শ্রমিকদের পিষে দিয়ে গেল ট্রাক 2

নিউজ ডেস্ক: এবারে প্রধানমন্ত্রীর রাজ্যেই ভয়াবহ পথ দুর্ঘটনার শিকার পরিযায়ী শ্রমিকেরা। ঘুমন্ত শ্রমিকদের পিষে দিয়ে চলে গেল বেপরোয়া গতির একটি ট্রাক। ঘটনাস্থলেই প্রাণ হারান ১৫ জন শ্রমিক। আশঙ্কাজনক আরও ৩ জন। মর্মান্তিক পথ দুর্ঘটনাটি ঘটেছে মঙ্গলবার ভোর রাতে গুজরাটের সুরাটের কোসাম্বা গ্রামের কাছে।

পুলিশ সূত্রে খবর, শ্রমিকরা রাজস্থানের কুশলগটের বাসিন্দা। জানা গিয়েছে, সোমবার রাতে রাস্তার পাশে শুয়ে ছিলেন প্রায় ১৮ জন শ্রমিক। সেই সময় দ্রুতগতিতে আসা একটি আখ বোঝাই ট্রাক্টর নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে অপর একটি ট্রাককে সজোরে ধাক্কা মারে। সেই সময় নিয়ন্ত্রণ রাখতে না পেরে ওই ঘাতক ট্রাকটি রাস্তার ধারে শুয়ে থাকা পরিযায়ী শ্রমিকদের পিষে দিয়ে বেরিয়ে যায়। ঘটনাস্থলেই মৃত্যু ১৫ জন শ্রমিকের। আহতদের অবস্থা আশঙ্কাজনক, বর্তমানে তারা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। ঘটনায় মৃতদের ময়নাতদন্তের নির্দেশ দিয়েছে পুলিশ।

মোদির রাজ্যে ভয়াবহ সড়ক দুর্ঘটনা,১৫ জন ঘুমন্ত পরিযায়ী শ্রমিকদের পিষে দিয়ে গেল ট্রাক 3

জানা গেছে মান্ডবীর দিকে যাচ্ছিল ট্রাকটি। ঘটনায় দুঃখপ্রকাশ করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। মৃতদের পরিবারকে প্রধানমন্ত্রী জাতীয় সাহায্য কোষ থেকে দুই লাখ টাকা করে দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। আহতদের ৫০ হাজার টাকা করে দেওয়া হবে। কিভাবে এই ঘটনা ঘটল তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ। ঘাতক ট্রাকটির চালককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

পরিযায়ী শ্রমিকদের দুঃখ দুর্দশা তো ছিলই, কিন্তু করোনার তাণ্ডবে জারি করা লকডাউনে আরও প্রকোট ভাবে ধরা হয়। সেই সময় কাজ হারা হন বহু পরিযায়ী শ্রমিক। এমনকি নিজের বাড়ী ফেরার জন্য সামান্য অর্থ পর্যন্ত তাদের কাছে ছিল না। মাইলের পর মাইল পথ পাড়ি দিয়ে তারা নিজেদের গন্তব্যে পৌঁছানোর চেষ্টা করেন। কিন্তু কেউ কাউ ঘরে পৌঁছাতে পারলেও অনেক জন নিজেদের প্রাণ হারান। কখনও ক্লান্ত হয়ে রেললাইনের ওপরেই ঘুমিয়ে পড়া পরিযায়ী শ্রমিকদের পিষে দিয়ে যায় মালবাহী ট্রেন, আবার কখনও বেপরোয়া গতির বলি হতে হয় তাদের। আর আজ লকডাউনে পরিস্থিতি স্বাভাবিক ছন্দে ফিরতে শুরু করলেও পরিযায়ী শ্রমিকেরা যে আজও কতটা অসহায় তার প্রমাণ এই ভয়াবহ পথ দুর্ঘটনা।