এখন খবর

করোনার টাকা কারচুপির অভিযোগে ভার্চুয়াল সভায় মমতাকে তুলোধুনো অর্থমন্ত্রী নির্মলা সিতারমণ

ওয়েব ডেস্ক : রবিবার বিজেপির ভার্চুয়াল সভার শুরু থেকেই করোনা মোকাবিলায় পশ্চিমবঙ্গ সরকারের ব্যার্থতায় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে রীতিমতো তুলোধুনো করলেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমণ৷ তাঁর অভিযোগ, করোনা মোকাবিলায় পশ্চিমবঙ্গ সরকারকে ১০,১০৬ কোটি টাকা দিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার। করোনার ওষুধ কিনতে ও হাসপাতালের পরিকাঠামো তৈরিতে এই টাকা দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু তার পরেও পশ্চিমবঙ্গে হাসপাতাল ও কোয়ারেন্টাইন সেন্টার তৈরি হয়নি।

এদিন অর্থমন্ত্রী বলেন, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বারংবার দাবি করেন, রাজ্যে ৪৩টি সুপার স্পেশ্যালিটি হাসপাতাল রয়েছে। কিন্তু আদতে পশ্চিমবঙ্গে ভয়াবহ করোনা পরিস্থিতির মধ্যেও তা করোনা মোকাবিলায় মাত্র ২টির বেশি হাসপাতালকে কাজে লাগানো যায়নি। এই বিপুল পরিমাণ কেন্দ্রীয় সাহায্য পাওয়ার পরেও রাজ্য সরকার করোনা প্রতিরোধে কোনও ব্যবস্থাই করেনি। তার দাবি, বর্তমানে পশ্চিমবঙ্গের করোনা পরিস্থিতি এতটাই ভয়াবহ যে এই মূহুর্তে পাশের রাজ্যগুলি পশ্চিমবঙ্গের সঙ্গে কোনোরকম যোগাযোগই রাখতে চাইছে না। ফলে রাজ্যগুলি তাদের সীমানা সিল করে দিয়েছে।

অর্থমন্ত্রী বলেন, করোনা মোকাবিলায় সম্পূর্ণ ব্যর্থ পশ্চিমবঙ্গ সরকার। শুধু তাই নয়, রাজ্য সরকারকে সাহায্য করতে যখন কেন্দ্র থেকে প্রতিনিধিদল পাঠানো হয়েছে তখন তাদের সঙ্গেও অসহযোগিতা করেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। করোনা পরীক্ষাতেও কারচুপি হয়েছে। প্রথমে রাজ্যে করোনা পরীক্ষাই হচ্ছিল না। পরে পরীক্ষার সংখ্যা বাড়লেও তথ্যে প্রচুর গরমিল ধরা পড়েছে। পাশাপাশি তিনি আরও বলেন, চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীদের জন্য প্রতি রাজ্যে ৫০ লক্ষ টাকার বিমা করেছে মোদী সরকার। কিন্তু পশ্চিমবঙ্গের চিকিৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীরা বলছেন, ওষুধ নেই, পিপিই নেই। রবিবারের ভার্চুয়াল সভায় এভাবেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে রীতিমতো তুলোধুনো করলেন অর্থমন্ত্রী নির্মলাদেবী।

বিজ্ঞাপন
Live Corona Update
error: Content is protected !!
Close
Close