এখন খবরকরোনা আপডেটজাতীয়

করোনার ওষুধ আবিষ্কারক বাবা রামদেবের বিরুদ্ধে জালিয়াতির অভিযোগ, ওষুধ ও বিজ্ঞাপন বন্ধ করতে বলল আয়ুষ মন্ত্রক

নিজস্ব সংবাদদাতা: সাতদিনের মধ্যে করোনা মুক্ত করে দেওয়ার ওষুধ আবিষ্কার করে ফেলেছেন বলে দাবি করে ছিলেন বাবা রামদেব। তাঁর সেই দাবির ১২ঘন্টার মধ্যেই ওই ওষুধ আর ওষুধ সম্পর্কিত বিজ্ঞাপন বাজার থেকে গুটিয়ে নিতে বলল কেন্দ্রের আয়ুষ মন্ত্রক। রামদেবের পতঞ্জলি আয়ুর্বেদিক লিমিটেড-এর সদ্য তৈরি ওষুধ সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য তলব করার পাশাপাশি তার বিজ্ঞাপন প্রচার বন্ধ করার নির্দেশ দিয়ে সংস্থাকে চিঠি পাঠাল প্রশাসন।

মঙ্গলবার সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত করোনাভাইরাস সংক্রমণ সারানোর ওষুধ তৈরি নিয়ে পতঞ্জলি আয়ুর্বেদ লিমিটেড-এর দাবি সম্পর্কে জানতে পেরেছে বলে জানিয়েছে কেন্দ্রীয় আয়ুষ মন্ত্রক। তবে এই ওষুধ সম্পর্কে মন্ত্রকের কাছে বিস্তারিত তথ্য নেই বলেও জানানো হয়েছে । এ দিন পতঞ্জলিকে চিঠি পাঠিয়ে অবিলম্বে তার করোনা ওষুধের প্রচার বন্ধ করার নির্দেশ দিয়েছে মন্ত্রক। এদিন মন্ত্রক প্রকাশিত প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, ‘কোভিড চিকিৎসার যে ওষুধ তৈরির দাবি করা হয়েছে, সে সম্পর্কে পতঞ্জলি আয়ুর্বেদ লিমিটেডকে যত তাড়াতাড়ি সম্ভব ওষুধের সমস্ত উপাদানের নাম ও অনুপান সম্পর্কে জানাতে হবে। সেই সঙ্গে জানাতে হবে, কোন গবেষণাগার, পরীক্ষাকেন্দ্র বা হাসপাতালে রোগীদের উপরে ওই ওষুধ প্রয়োগ করে ফলাফল নিরীক্ষণ করা হয়েছে। এ ছাড়া গবেষণায় সরকারি নিয়মাবলী, নমুনার পরিমাণ ইত্যাদিও জানাতে বলা হয়েছে। শুধু তাই নয়, এ ক্ষেত্রে আবশ্যিক ইনস্টিটিউশনাল এথিক্স কমিটির ছাড়পত্র, সিটিআরআই রেজিস্ট্রেশন এবং গবেষণার নথিপত্র চেয়ে পাঠানো হয়েছে। পাশাপাশি, সরকারি অনুমোদন না পাওয়া পর্যন্ত এই ওষুধ প্রচারের জন্য কোনও রকম বিজ্ঞাপন প্রচারের উপরেও নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে।’

কোবল রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ানো নয়, সবাইকে টেক্কা দিয়ে করোনা সংক্রমণ সারানোর অব্যর্থ দাওয়াই বানানোর ঘোষণা করলেন যোগগুরু রামদেব। সোমবার আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন হয়ে গেছিল তাঁর সেই আয়ুর্বেদিক মহৌষধের।

বিশ্বজুড়ে কোভিড ১৯ নিয়ে হিমশিম তাবড় শক্তিধর রাষ্ট্র। তারই মাঝে অতিমারীকে জব্দ করে তার প্রতিষেধক আবিষ্কার করে ফেলেছেন বলে দাবি রামদেবের। এবার জনহিতে সেই মোক্ষম করোনা কিট মানুষের হাতে পৌঁছে দেওয়ার ব্যবস্থায় নেমেছে তাঁর সংস্থা হরিদ্বারের পতঞ্জলি রিসার্চ ইনস্টিটিউট। হরিদ্বারের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে রামদেব দাবি করেছেন, করোনাকে জব্দ করতে বিশ্বের প্রথম আয়ুর্বেদিক টিকা বাড়ি বাড়ি পৌঁছে দিতে বিশেষ অ্যাপ লঞ্চ করা হবে কিছু দিনের মধ্যেই।

রামদেব বলেছিলেন, কোভিড ১৯ চিকিৎসায় আমরা ক্লিনিক্যাল নিয়ন্ত্রণ, গবেষণা ও প্রমাণের ভিত্তিতে প্রথম আয়ুর্বেদিক ওষুধ তৈরি করে ফেলেছি। ওষুধের প্রতিক্রিয়া পরীক্ষা করে দেখতে আমরা একটি সমীক্ষা তথা ক্লিনিক্যাল কেস স্টাডি ও ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালের আয়োজন করেছি। তাতে দেখা গিয়েছে, মাত্র তিন দিনে ৬৯% রোগী সুস্থ হয়ে উঠেছে এবং সাত দিনে ১০০% করোনা রোগীই সেরে উঠেছেন।’
রামদেবের দাবি, গবেষণায় তাঁর ওষুধ প্রয়োগের ফলে মৃত্যুর হার শূন্য এবং ১০০% সুস্থ হয়ে ওঠার হার দেখা গিয়েছে। পতঞ্জলির তরফে দাবি করা হয়েছে, টিকার পরীক্ষামূলক প্রয়োগের আয়োজন করে পতঞ্জলি রিসার্চ ইনস্টিটিউট ও জয়পুরের ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অফ মেডিক্যাল সায়েন্সেস। অবিলম্বে এ সম্পর্কিত যাবতীয় তথ্য কেন্দ্রকে পাঠানোর নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।
উল্লেখ্য এই প্রথম নয়, এর আগেও রামদেবের বিরুদ্ধে এই ধরনের জালিয়াতির অভিযোগ উঠেছে। তাঁকে ইতিপূর্বে সতর্কও করেছে সরকার।। আয়ুর্বেদিকের সাথে জাতীয়তাবাদ পাঞ্চ করে নিজের পণ্যকে বাজার জাত করার সেই পুরানো কায়দা ধাক্কা খেল কেন্দ্রের এই নির্দেশে।

বিজ্ঞাপন
Live Corona Update
error: Content is protected !!
Close
Close