এখন খবরওড়িশাকরোনা আপডেটদেশ

প্রধানমন্ত্রীর সাথে বৈঠকে জিইই, নিট ও ক্ল্যাট পরীক্ষা পেছোনোর আর্জি ওড়িশার মুখ্যমন্ত্রীর

ওয়েব ডেস্ক: সংক্রমণ এড়াতে গত ২৪ শে মার্চ গোটা দেশে লকডাউনের সিদ্ধান্ত নেন কেন্দ্র সরকার৷ অবশ্য লকডাউনের আগে ১৬ ই মার্চেই সিবিএসসি,আইসিএসসি ও আইএসসি পরীক্ষা বন্ধের সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন বোর্ড কর্তৃপক্ষ। রাজ্যের তরফেও একই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়৷ বন্ধ করে দেওয়া হয়েছিল উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষাও। বন্ধ হয়ে গিয়েছিল জেইই, নিট, ক্ল্যাট পরীক্ষা৷ এরপর আগামী ২রা জুলাই থেকে শুরু হবে উচ্চমাধ্যমিকের বকেয়া পরীক্ষা। এর মধ্যেই ওড়িশার মুখ্যমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে অনুরোধ করেন যাতে দ্বাদশ শ্রেণির বোর্ড পরীক্ষার পর জেইই, নিট, ক্ল্যাট পরীক্ষার আয়োজন করা হয়।

এদিকে, কেন্দ্রীয় মানব সম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রী রমেশ পোখরিয়াল ইতিমধ্যেই জেইই ও নিট পরীক্ষার নতুন সময়সূচি ঘোষণা করেছেন। জেইই মেইন ১৮ থেকে ২৩ জুলাইয়ের মধ্যে এবং ২৬ জুলাই নিট অনুষ্ঠিত হবে। সাধারণত ইঞ্জিনিয়ারিং, ডাক্তারি ও আইন এই তিনটি বিষয়ে পড়ার ক্ষেত্রে জাতীয় স্তরে জেইই, নিট, ক্ল্যাট এই তিনটি প্রবেশিকা পরীক্ষা হয়। শনিবার ওড়িশার মুখ্যমন্ত্রী নবীন পট্টনায়েক টুইট করে জানান, প্রধানমন্ত্রীর সাথে বৈঠকের মাধ্যমে তিনি দ্বাদশ শ্রেণীর পরীক্ষা শেষ হওয়ার পর জেইই, নিট, ক্ল্যাট এর মতো জাতীয় স্তরে প্রবেশিকাগুলি নেওয়ার পরামর্শ দেন।

এদিকে, আইসিএসসি ও আইএসসি বোর্ডের তরফে জানানো হয়েছে, স্কুলগুলিকে আগামী ২ – ১২ জুলাইয়ের মধ্যে আইসিএসসি-র এবং ১ – ১৪ জুলাইয়ের মধ্যে আইএসসি-র বকেয়া পরীক্ষাগুলি নিয়ে নিতে হবে। তবে এক্ষেত্রে পরীক্ষার্থীদের পরীক্ষা দেওয়ার জন্য জোর করা যাবে না৷ যদি কোনো পরীক্ষার্থী এই পরিস্থিতিতে স্কুলে গিয়ে পরীক্ষা দিতে না চায় সেক্ষেত্রে, ইন্টার্নাল অ্যাসাইনমেন্ট কিংবা টেস্টের নম্বরের ভিত্তিতে তার মার্কশিট তৈরি হবে। অন্যদিকে, আগামী ২, ৬ ও ৮ জুলাই উচ্চমাধ্যমিকের বকেয়া পরীক্ষা। রাজ্য শিক্ষা দফতরের নির্দেশ অনুসারে পরীক্ষার্থীর এলাকার ২-৪ কিমির মধ্যেই থাকতে হবে পরীক্ষাকেন্দ্র।

বিজ্ঞাপন
Live Corona Update
error: Content is protected !!
Close
Close