পশ্চিম মেদিনীপুরখড়গপুরমেদিনীপুর

যদি আকাশে মেঘ না থাকে খড়গপুর, মেদিনীপুর চলে যান ৬নম্বর জাতীয় সড়ক অথবা কাঁসাইয়ের সূর্যাস্তের মাঠে, জেনে নিন কী করবেন আর কী নয়

নিজস্ব সংবাদদাতা: রিং অফ ফায়ার দেখবেনা খড়গপুর, মেদিনীপুর এমন কি কলকাতাও। কারন এবার এই অঞ্চলে পূর্নগ্রাস সূর্যগ্রহণ হবেনা। বলয়গ্রাস সূর্যগ্রহণে একটু একটু করে সূর্যকে ঢেকে দেবে চাঁদ। তবে পুরো অন্ধকার না হয়ে তৈরি হবে আগুনের আংটি বা রিং অফ ফায়ার। ২১জুন, রবিবার আংশিক গ্রহণ শুরু হবে সকাল ৯টা ১৫ নাগাদ। শেষ হবে বেলা ৩.০৪ মিনিটে। ৯টা ৫৮ মিনিটে দেশে প্রথম গ্রহণ দেখা যাবে ভুজ থেকে।

গুজরাটের পাশাপাশি রাজস্থান, হরিয়ানা, উত্তরাখণ্ডের কিছু অংশ থেকে তা দৃশ্যমান হবে। এটি স্পষ্ট দেখা যাবে আফ্রিকার কিছু অংশেও। তবে বাংলা থেকে পুরোপুরি সূর্যগ্রহণ কোনওভাবেই দেখা যাবে না। আবার আকাশে মেঘ থাকলে সূর্যগ্রহণ দেখার সম্ভাবনা আরও কমবে। কলকাতায় সকাল ১০.৪৬ নাগাদ দেখা যেতে পারে গ্রহণ। খড়গপুর, মেদিনীপুর প্রথম গ্রহনের শুরু দেখতে পাবে সকাল ১০.৪২। সেই হিসাবে সাড়ে তিনঘণ্টার কাছাকাছি ধরে নিন গ্রহন স্থায়ী হবে। তবে সর্বাধিক গ্রহন দেখা যাবে সাড়ে ১২টায়।

খড়গপুর মেদিনীপুরবাসী ঘরের ছাদ থেকে গ্রহন দেখতে পারেন তবে গাছপালা, বাড়ি ঘর ইত্যাদির ফাঁক থেকে একই অভিমুখে ঘাড় উঁচু করে তাকালে ঘাড়ে ব্যথা হয়ে যাবে। তাই রিলাক্স মুডে গ্রহন দেখতে ফাঁকা প্রশস্ত জায়গায় চলে যান। আকাশ পরিষ্কার থাকার সম্ভাবনা খুবই কম। তবুও যদি পরিষ্কার আকাশ মেলে খড়গপুরবাসী চলে যেতে পারেন ৬ অথবা ৬০ নম্বর জাতীয় সড়কে, মেদিনীপুরবাসী কাঁসাইয়ের পাড়ে, সূর্যাস্তের মাঠে।

কী করবেন?                                                                ১.সঙ্গে ছাতা নিন, রোদ এবং বৃষ্টি থেকে বাঁচবেন। আর জলের বোতল।
২.সূর্যগ্রহণের সময় আশপাশের ঝোপে কিংবা গাছের ছায়ার দিকে নজর রাখুন। গ্রহণের নানা আকার মাটির উপর পড়া সেই ছায়ায় খুঁজে পাবেন। মনে হবে মাটিতে নানা আকারে চাঁদের টুকরো ছড়িয়ে আছে। এ দৃশ্যও বড় বিরল।
৩.সূর্যকে নিরীক্ষণ করার বিশেষ গগলস বা সানগ্লাস পাওয়া যায় বা সান ফিল্টার।সূর্যগ্রহণ দেখার সময় সেটি অবশ্যই যেন চোখে থাকে। যদি না পান তবেখালি চোখে গ্রহণ দেখার ক্ষেত্রে চোখের সামনে ধরুন ১৩ অথবা ১৪ এম.এমের ওয়েল্ডার গ্লাস।
৪. ছোটদের জন্য পিন হোল ক্যামেরা যা কিনা পিচবোর্ডের মধ্যে ছিদ্র করে অথবা আয়নায় একটি কাগজ লাগিয়ে দিন মাঝখানে ফুটো করে। এবার দেওয়ালে ফেলুন প্রচ্ছায়া। এই ফাঁকে ওদের গ্রহন রহস্য বুঝিয়ে দিন।

কী করবেন না?
১.ভুল করেও খালি চোখে সূর্যের দিকে তাকাবেন না। এতে চোখের মারাত্মক ক্ষতি হতে পারে। এমনকী দৃষ্টিশক্তিও হারাতে পারেন।
২.সাধারণ সানগ্লাস কিংবা গগলস পরে গ্রহণ দেখার চেষ্টাও করবেন না।
৩.এক্স-রে প্লেট অথবা হ্যারিকেনের কালিমাখা কাচের মধ্যে দিয়ে সূর্যগ্রহণ না দেখারই পরামর্শ দিচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা।
৪.জলের মধ্যেও সূর্যগ্রহণের প্রতিবিম্ব দেখবেন না।

বিজ্ঞাপন
Live Corona Update
error: Content is protected !!
Close
Close