এখন খবরজাতীয়

ভারতে চিনা অ্যাপ নিষিদ্ধ করতেই সুর নরম বেজিংয়ের, বড় ক্ষতির আশঙ্কা একাধিক চিনা সংস্থার

ওয়েব ডেস্ক : ১৫ জুন লাদাখে ভারত-চিন সংঘর্ষের পরই দেশবাসীর তরফে চিনা পণ্য বয়কটের ডাক দেওয়ার হয়েছে৷ পাশাপাশি চিনা অ্যাপগুলি ফোন থেকে মুছে ফেলার দাবিও করা হয়েছিল। এবার ডিজিটাল মাধ্যমে চিনকে যোগ্য জবাব দিতে চিনা অ্যাপগুলি বন্ধ করার সিদ্ধান্ত নিল কেন্দ্র। এতে ভারত-চিন বাণিজ্যিক সম্পর্ক খারাপ হবে। মঙ্গলবার ভারত সরকারের চিনা অ্যাপ বন্ধ করার বিষয়ে এমনই প্রতিক্রিয়া দিল ভারতে চিনের দূতাবাস। এ বিষয়ে ভারতীয় চিনের দূতাবাসের কাউন্সিলার জি রং-এর দাবি, “ভিত্তিহীন কারণ দেখিয়ে আলাদা করে কিছু কিছু চিনা অ্যাপ বন্ধ করা হয়েছে। এতে ওয়ার্ল্ড ট্রেড অর্গানাইজেশনের নিয়ম বিঘ্নিত করেছে ভারত সরকার।”

এদিকে ভারতের তরফে চিনা অ্যাপ নিষিদ্ধ করার সাথে সাথেই কার্যত নড়েচড়ে বসেন বেজিং প্রশাসন। এবিষয়ে চিনা দূতাবাসের তরফে জানানো হয়, “ভারতে নিষিদ্ধ করা ৫৯টি অ্যাপের বহু ব্যবহারকারী রয়েছে। এই সংস্থাগুলিতে ভারতে অনেকে কাজও করেন। আচমকা এভাবে অ্যাপগুলি বন্ধ করার সিদ্ধান্তে দেশ ক্ষতির সম্মুখীন হবেন।” এবিষয়ে চিনা দূতাবাসের কাউন্সিলার জি রং বলেন, “ভারত-চিনের মধ্যে বাণিজ্যিক সম্পর্ক রক্ষার খাতিরে অ্যাপ বন্ধ হওয়ার ফলাফলের বিষয়ে ভারত সরকার পূনর্বিবেচনা করবে বলে আমরা আশাবাদী। সুষ্ঠ বাণিজ্যিক পরিবেশ তৈরির উদ্দেশ্যে সব দেশের সংস্থাকেই সমানভাবে বিবেচনা করা হোক।”

প্রসঙ্গত, গত কয়েকদিন ধরে ভারতের ওপর ক্রমশ চাপ সৃষ্টি করার চেষ্টা করছিল চিন। সোমবার কেন্দ্রের তরফে ৫৯টি চিনা অ্যাপ বাতিলের সিদ্ধান্তে সুর নরম করে চিন। চিনা বিদেশমন্ত্রকের মুখপাত্র ঝাও লিঝিয়ান জানান, “ভারতে চিনা অ্যাপ বন্ধ করার পরিস্থিতি নিয়ে বেজিং চিন্তিত।’

বিজ্ঞাপন
Live Corona Update
error: Content is protected !!
Close
Close