লেপার্ডের সাথে দীর্ঘক্ষণ লড়াই; অবশেষে প্রাণে বাঁচলেন এক মহিলা শ্রমিক, বীচ চা বাগানের ঘটনায় চাঞ্চল্য

54
Advertisement

নিউজ ডেস্ক: লেপার্ডের আক্রমণ প্রতিহত করতে দীর্ঘক্ষণ লড়াই।অবশেষে প্রাণে রক্ষা পেলেন এক মহিলা চা শ্রমিক। ঘটনাটি ঘটেছে শনিবার সকাল সাড়ে এগারোটা নাগাদ আলিপুরদুয়ার জেলার বীচ চা বাগানে । এদিন বীচ চা বাগানের মহিলা চা শ্রমিক মীরা থাপা বাগানে কাজ করছিলেন। আচমকা এক লেপার্ড এসে পিছন দিক থেকে মীরা থাপাকে আক্রমণ করে।

Advertisement

লেপার্ডের থাবায় চা শ্রমিক মীরা থাপা জখম হন। কিছুক্ষণ লেপার্ডের সাথে চা শ্রমিক মীরা থাপার লড়াই চলে পরবর্তীতে লেপার্ডটি পলায়ন করে। চা শ্রমিকরা মীরা থাপাকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে প্রথমে চা বাগানের হাসপাতালে নিয়ে যায় এবং সেখান থেকে তাকে লতাবাড়ি গ্ৰামীণ হাসপাতালে রেফার করা হয়। লতাবাড়ি হাসপাতালে চিকিৎসার জন‍্য তাকে আনা হলে সেখান থেকে আলিপুরদুয়ার জেলা হাসপাতালে রেফার করা হয় ।

Advertisement
Advertisement

মহিলা চা শ্রমিকের পরিবারের লোকেরা জানান, তারা বারোটা নাগাদ খবর পান। তারপর তারা দৌঁড়ে আসেন। বীচ চা বাগানের অন‍্য শ্রমিকরা জানান, “এদিন সকালে আমরা চা বাগানে কাজ করছিলাম আচমকা আমরা আর্তনাদ শুনি তারপর দেখি লেপার্ড মীরা থাপকে আক্রমণ চালিয়েছে আমরা প্রাণের ভয়ে দৌড়ে ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যাই। পরবর্তীতে আম‍রা লক্ষ‍্য করি মীরা লেপার্ডের সাথে লড়াই করছে তখন দূরে পুরুষ শ্রমিকরা ছিল তারা দৌড়ে আসে এবং লেপার্ডটি পালিয়ে যায় । লেপার্ডটি মীরার পিঠে, মাথায়, মুখে জখম করেছে।“

ডুয়ার্‌সে ঘন জঙ্গল থাকায় প্রায় দিনই লেপার্ড সহ অন্যান্য জন্তুরা বেরিয়ে আসে। তাঁদের আক্রমণের মুখেও পড়তে হয় অনেকসময় শ্রমিক ও অন্যান্য সাধারণ মানুষদের। তবে সম্প্রতি শহর এলাকাতেও দেখা যাচ্ছে লেপার্ডের তাণ্ডব। কয়েকদিন আগেই শিলিগুড়ি চম্পাসারির সমরনগর এলাকায় একটি লেপার্ড ঢুকে পড়ে। সেখানে একটি মাঠের সামনে সেটিকে দেখতে পান স্থানীয় বাসিন্দারা।এরপরই লেপার্ডটি সেখানে এক ব্যক্তির ওপর হামলা করে পাড়ায় ঢুকে যায়। সেখানে আরও দুজনের ওপর হামলা করে।সেখান থেকে একলাফ দিয়ে লেপার্ডটি একটি তিনতলা বাড়িতে ঢুকে পড়ে। তা দেখতেই ঐ বাড়ির বাইরের গেট আটকে দেওয়া হয়।

এরপরই খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যায় প্রধাননগর থানার পুলিশ। খবর দেওয়া হয় সুকনা ওয়াইল্ড লাইফ স্কোয়াডকে। ১২টা নাগাদ ওয়াইল্ড লাইফ স্কোয়াড ঘটনাস্থলে পৌঁছায়। কয়েকঘণ্টার চেষ্টায় ঐ বাড়ির সিঁড়ির জানালা দিয়ে ঘুমপাড়ানি গুলি ছোঁড়া হয়। লেপার্ডটিকে কাবু করে শেষমেষ জাল দিয়ে ধরে গাড়িতে করে তুলে নিয়ে যাওয়া হয়। লেপার্ডের হামলায় ৩ জন জখম হন। আশেপাশের কোনও জঙ্গল থেকে এলাকায় লেপার্ডটি ঢুকেছিল বলে অনুমান।