হাইকোর্টের সার্কিট বেঞ্চের নির্দেশে জলপাইগুড়িতে তিস্তার বেডে অবৈধ নির্মান ভাঙছে প্রশাসন,কান্নায় ভেঙে পড়লেন গৃহহীনরা

26
হাইকোর্টের সার্কিট বেঞ্চের নির্দেশে জলপাইগুড়িতে তিস্তার বেডে অবৈধ নির্মান ভাঙছে প্রশাসন,কান্নায় ভেঙে পড়লেন গৃহহীনরা 1

নিউজ ডেস্ক: কোলকাতা হাইকোর্টের জলপাইগুড়ি সার্কিট বেঞ্চের নির্দেশে অবৈধ নির্মান ভাঙল জেলা প্রশাসন। মঙ্গলবারই জলপাইগুড়ির তিস্তা নদীর বেডে অবৈধ নির্মান ভাঙার নির্দেশ দিয়েছিল। আজ সকাল থেকেই জেলা প্রশাসনের কর্তারা তিস্তার বেডে অবৈধ নির্মান ভেঙে দিল।

হাইকোর্টের সার্কিট বেঞ্চের নির্দেশে জলপাইগুড়িতে তিস্তার বেডে অবৈধ নির্মান ভাঙছে প্রশাসন,কান্নায় ভেঙে পড়লেন গৃহহীনরা 2

আজ সকালে জলপাইগুড়ি সদর মহকুমা শাসক সুদীপ পাল ও ডিএসপি হেডকোয়ার্টার সমির কুমার পালের নেতৃত্বে বিরাট পুলিশ বাহিনী গিয়ে আর্থ মুভার দিয়ে সমস্ত অবৈধ নির্মান, বসতি সব ভেঙে দেয়। এদিন সেচ দপ্তর সহ স্বাস্থ্য দপ্তর ও এসজেডিএ-র আধিকারিকরাও ঘটনাস্থলে উপস্থিত ছিলেন। তিস্তার চরে অবৈধভাবে রেস্টুরেন্ট,ক্যাফেটেরিয়া সহ বসতি সব ভেঙে দেওয়া হয়। সার্কিট বেঞ্চের বিচারপতির নির্দেশ দিয়েছিল অবৈধ নির্মান ভেঙে আজ দুপুর দুটোর মধ্যেই সার্কিট বেঞ্চে জেলাশাসক রিপোর্ট দিতে হবে। তাই সকাল থেকেই হাইকোর্টের নির্দেশে অবৈধ নির্মান ভাঙে জেলা প্রশাসন।

হাইকোর্টের সার্কিট বেঞ্চের নির্দেশে জলপাইগুড়িতে তিস্তার বেডে অবৈধ নির্মান ভাঙছে প্রশাসন,কান্নায় ভেঙে পড়লেন গৃহহীনরা 3

কোলকাতা সার্কিট বেঞ্চের জলপাইগুড়ি হাইকোর্টের বিচারক রাজর্ষি ভরদ্বাজ। নির্দেশ দিয়েছিলেন জেলাশাসকের দপ্তর সংলগ্ন জুবলি পার্কে বিচারপতির আবাসন রয়েছে। বিচারপতির আবাসনের জুবলিপার্ক সংলগ্ন তিস্তার বাঁধে ও তিস্তার রিভার বেডে অবৈধ ক্যাফেটেরিয়া, রেস্টুরেন্টে প্রচুর ভিড় হচ্ছে। বিচারপতিদের আবাসনের চারপাশে প্রচুর মানুষজন বসেন। আবাসনের পার্শ্ববর্তী এলাকায় প্রতিদিন সন্ধ্যায় ভিড় হয়।এর ফলে কোরোনার সংক্রমন হতে পারে তাই বিচারক সুয়োমোটো মামলা রুজু করেন।গতকাল সেই মামলায় রায় দেন।বলা হয় ২৪ ঘন্টার মধ্যে অবৈধ নির্মান ভেঙে ফেলে হাইকোর্টের সার্কিট বেঞ্চে রিপোর্ট জমা দিতে হবে জেলা প্রশাসনকে।

ঘটনাস্থলে বিশাল পুলিশ বাহিনী মোতায়েন করা হয়। এদিকে দীর্ঘ কয়েক বছর ধরে তিস্তা পারে বসবাস করে আসা মানুষ‌দের বাড়িঘর ভেঙে দেওয়ায় একেবারেই অসহায় হয়ে পড়েন তারা। গৃহহীন হয়ে কান্নায় ভেঙে পড়ে‌ন বাড়ির মহিলারা।

Previous article২দিন পরেই ভোট গণনা, পোস্টাল ব্যালট পাননি বহু ভোট কর্মী, গাফলতি কার পোষ্টঅফিস না কমিশনের
Next articleকরোনায় চলে গেলেন বাংলা সাহিত্যের থ্রিলার শ্রেষ্ঠ অনীশ দেব! শোকস্তব্ধ সাহিত্য জগৎ