১০১ দিন পর খুলল বাঙালির ‘কফি হাউসের আড্ডা’ তবে আড্ডা চলবে দূরত্ব মেনেই

96

ওয়েব ডেস্ক : বাঙালির প্রিয় সেই ‘কফি হাউসের আড্ডা’ ইন্ডিয়ান কফি হাউস অবশেষে খুলেই গেল। শিল্পী সাহিত্যিক চলচ্চিত্র জগতের সঙ্গে সাধারন মানুষেরও আড্ডা দেওয়ার এই কমন জায়গা যাকে কিংবদন্তি শিল্পী মান্না দে অমর করে গেছেন নস্টালজিক সেই বিখ্যাত গান ‘কফি হাউসের সেই আড্ডাটা আজ আর নেই’ বলে, সেই কফি হাউস খুলে গেল বৃহস্পতিবার। আনলক ১ থেকেই ধীরে ধীরে খুলতে শুরু করেছে বিভিন্ন শপিং মল, রেস্তোরাঁ। গত ২০ শে মার্চ শেষবারের মতো খুলে ছিল বাঙালীর প্রিয় ইন্ডিয়ান কফি হাউজ৷ এরপর ২২ শে মার্চ জনতা কার্ফুর পর থেকে ধীরে ধীরে দেশ লকডাউনে চলে যায়। এরপর জুন থেকে শুরু হয় আনলক ১ পর্ব৷ সে সময় অন্যান্য রেস্তোরাঁ গুলি খুলে গেলেও খোলেনি ইন্ডিয়ান কফি হাউস। অতঃপর ফাঁড়া কাটল, ১০১ দিনের লকডাউন পরিস্থিতি কাটিয়ে এবার সমহিমায় খুলে গেল বই পাড়ার কফি হাউজের দরজা।

আরও পড়ুন -  করোনা সংক্রমণ ও নিউমোনিয়া, সঙ্কটজনক অবস্থায় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন নাইসেডের অধিকর্তা শান্তা দত্ত

তবে করোনা পরিস্থিতিতে যেহেতু বিধিনিষেধ মেনে চলতে হবে সেক্ষেত্রে নির্দিষ্ট স্বাস্থ্যবিধি মানতে গিয়ে চেনা, পরিচিত কফি হাউজের চারিত্রিক কিছু পরিবর্তন হতে চলেছে। ইন্ডিয়ান কফি ওয়ার্কার্স অ্যাসোসিয়েশন সূত্রে খবর, আপাতত তিনতলার ব্যালকনি বন্ধ থাকবে। সামাজিক দূরত্ব মেনে একতলা ও দু’তলার ৫০% টেবিল নিয়েই আপাতত চলবে কফি হাউস। সেই সাথে কফি হাউস খোলার সময়সূচিও বদল হচ্ছে। আগে সপ্তাহে ৭ দিন খোলা থাকলেও এবার থেকে ৭ দিনের বদলে ৬ দিন বেলা ১১ টা থেকে সন্ধে ৬টা পর্যন্ত খোলা থাকবে।

বুধবার ইন্ডিয়ান কফি ওয়ার্কার্স অ্যাসোসিয়েশন কো-অপারেটিভ লিমিটেডের সদস্যরা কফি হাউজ খোলা নিয়ে একটি বৈঠক করেন। সেখানে সকলের সম্মতিতে স্থির হয়, বেশকিছু বিধিনিষেধ মেনে বৃহস্পতিবার থেকেই খোলা হবে কফি হাউস। সে অনুযায়ী বুধবার নতুন সময় মেনে খুলে গেল কফি হাউজের তালা। এ বিষয়ে কফি হাউজের অ্যাসোসিয়েশনের সেক্রেটারি তপন কুমার পাহাড়ি জানান, বুধবার বৈঠকে পুনরায় কফি হাউস খুলে দেওয়ার সিদ্ধান্তের পরই গোটা বিল্ডিংটি স্যানিটাইজ করা হয়।

আরও পড়ুন -  গভীর মনরোগে ঢুকে যাচ্ছে মহানগর,একই দিনে ৭ জনের আত্মহত্যা কলকাতায়! দুশ্চিন্তায় সমাজ বিজ্ঞানীরা

তবে এত আনন্দ যেমন রয়েছে এর মধ্যেও সামান্য মন খারাপের খবরও কিন্তু রয়েছে। আগে সপ্তাহে সাতদিন সকাল ৯ টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত খোলা রাখা হত কফি হাউজ কিন্তু এখন সকাল ৯টার বদলে বেলা ১১টায় খুলবে কফি হাউসের দরজা আবার সন্ধে ৬টার পরই বন্ধ করে দেওয়া হবে। রবিবার সম্পূর্ণ বন্ধ থাকবে। পাশাপাশি ভিতরে প্রবেশের আগে প্রত্যেকের মাস্ক পরা ও হাত স্যানিটাইজার করা বাধ্যতামূলক।

আরও পড়ুন -  বস্তি নয়, কলকাতার অভিজাত বহুতলগুলিই করোনার আঁতুরঘর

পাশাপাশি বদল যাচ্ছে খাবারের মেনু এবং পরিবেশনেও। আগের মতো এখন আর সাদা চিনেমাটির কাপে কফি দিতে দেখা যাবে না বরং এবার থেকে ব্ল্যাক কফি হোক বা কোল্ড কফি সবই দেওয়া হবে বিভিন্ন সাইজের কাগজের কাপে। এছাড়া কমে যাচ্ছে বেশ কিছু মেনুও। জানা গিয়েছে কফি হাউসের সেই স্পেশাল কবিরাজি কাটলেট এখন আর মিলবে না। আপাতত নাও মিলতে পারে আপনার বেশ কিছু পছন্দের মেনু। তবে সে যাই হোক দীর্ঘ ১০১ দিন পর যে অবশেষে বাঙালীর বইপাড়ার প্রিয় আড্ডাখানা ‘ইন্ডিয়ান কফি হাউস’ খুলেছে এতেই খুশী আড্ডাবাজ বাঙালীরা।

১০১ দিন পর খুলল বাঙালির 'কফি হাউসের আড্ডা' তবে আড্ডা চলবে দূরত্ব মেনেই 1