দীর্ঘ ১২ দিন যুদ্ধের পর অবশেষে করোনা মুক্ত হয়ে বাড়ি ফিরলেন ডাঃ ফুয়াদ হালিম

478

ওয়েব ডেস্ক : অবশেষে করোনামুক্ত হয়ে বাড়ি ফিরলেন সিপিএম নেতা তথা জনপ্রিয় চিকিৎসক ফুয়াদ হালিম। করোনার একাধিক উপসর্গ নিয়ে গত ২১ শে জুলাই মধ্য কলকাতার একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন ডাঃ ফুয়াদ হালিম। দীর্ঘ ১২ দিন মারণ ভাইরাসের সাথে যুদ্ধের পর অবশেষে রবিবার করোনাকে পরাজিত করে বাড়ি ফিরলেন দুস্থদের ভগবান ফুয়াদ হালিম। প্রিয় ডাক্তারবাবু করোনায় আক্রান্ত হওয়ার পর থেকেই তার শারীরিক অবস্থা নিয়ে পরিবারের পাশাপাশি উদ্বিগ্ন ছিলেন তাঁর রোগী ও অনুরাগীরা। এদিন ফুয়াদবাবু সুস্থ হয়ে বাড়ি ফেরার খবর পেয়েই স্বস্তিতে তাঁর অনুরাগীরা।

আরও পড়ুন -  মেডিক্যাল কলেজ থেকে গায়েব করোনা রোগী, সপ্তাহভর খোঁজাখুঁজির পর মৃত ঘোষণা কর্তৃপক্ষের

করোনা আবহে দীর্ঘ লকডাউনে গোটা রাজ্যের বিভিন্ন হাসপাতাল যখন শুধুমাত্র করোনা রোগীদের নিয়ে ব্যস্ত, সে সময় এক মুহূর্ত ছুটি না নিয়ে সংকটকালে মানুষের চিকিৎসায় আরও বেশি করে নিজেকে নিয়োজিত করেছিলেন সিপিএম নেতা ডাক্তার ফুয়াদ হালিম। লকডাউনের জেরে আর্থিক টানাটানির সময়েও তিনি তাঁর সংস্থায় মাত্র ৫০ টাকায় ডায়ালিসিসের সুবিধা দিয়েছেন বহু দুস্থ মানুষকে। ফলে দুঃসময়ে তিনিই হয়ে উঠেছিলেন সব শ্রেণির মানুষের ভগবান। চিকিৎসা করতে করতেই গত ২১ জুলাই থেকে নিজেই অসুস্থ হয়ে পড়েন ফুয়াদবাবু। শরীরে করোনার নানা উপসর্গ লক্ষ করায় প্রথম দু’দিন হোম আইসোলেশনে ছিলেন ওই চিকিৎসক। এরপর শ্বাসকষ্ট বাড়তে থাকায় মধ্য কলকাতার বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি হন।

হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার পর পর দু’বার তাঁর করোনা পরীক্ষার রিপোর্ট নেগেটিভ হলেও তৃতীয়বার রিপোর্ট পজিটিভ আসে। এদিকে শ্বাসকষ্টও ক্রমশ বাড়তে থাকে, ফুসফুসে সংক্রমণ দেখা দেয়। তাই তাঁকে আইসিইউ-তে স্থানান্তরিত করা হয়। সেসময় তাঁর শারীরিক পরিস্থিতি বেশ উদ্বেগের ছিল। চিন্তিত হয়ে পড়ে পরিবার। স্ত্রী সাইমা হালিম নিজের সোশ্যাল মিডিয়ায় এই খবর জানান। তবে ধীরে ধীরে চিকিৎসায় সাড়া দিয়ে সুস্থ হয়ে ওঠেন ফুয়াদ হালিম। এরপর শনিবার হাসপাতাল থেকেই ডাক্তারবাবু রোগীদের উদ্দেশ্যে জানান, আগের মতো এখনও তাঁর সংস্থায় ডায়ালিসিস চলবে ৫০ টাকাতেই। এর কোনও ব্যতিক্রম হবে না। এতদিন অসুস্থ থাকার পর এদিন ডাক্তারবাবুর এই পোস্টই বুঝিয়ে দিয়েছিল, ফের কাজে ফিরছেন জনপ্রিয় চিকিৎসক।

আরও পড়ুন -  তৃণমূল নেতার হাতে কলেজ ছাত্রীর শ্লীলতাহানি রুখতে গিয়ে মৃত্যু মায়ের, 'অবৈধ সম্পর্ক' বলে কুৎসিত মন্তব্য মন্ত্রীর

এরপর রবিবার সকালে ফুয়াদ হালিমের যাবতীয় শারীরিক পরীক্ষা হয়। জানা যায় ফুসফুসের সংক্রমণ কমেছে। এখন তিনি সম্পূর্ণ সুস্থ৷ তাই চিকিৎসকরা তাঁকে ছুটি দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেন। এরপর এদিন বিকেলে হাসপাতাল থেকে নিজের বাড়ি ফেরেন ডাঃ হালিম। চিকিৎসকদের পরামর্শ মেনে আপাতত কয়েকদিন বিশ্রামে থাকতে হবে তাকে। এদিকে ডাক্তারবাবুর সুস্থতার খবর পেয়ে স্বস্তিতে তার রোগী ও অনুরাগীরা।

দীর্ঘ ১২ দিন যুদ্ধের পর অবশেষে করোনা মুক্ত হয়ে বাড়ি ফিরলেন ডাঃ ফুয়াদ হালিম 1