পরিণীতা’-র পর ‘হাবজি গাবজি’তে ফের একবার নতুন রূপে শুভশ্রী, ছবি মুক্তির আশায় দিন গুনছেন সিনেমাপ্রেমীরা

170
পরিণীতা'-র পর 'হাবজি গাবজি'তে ফের একবার নতুন রূপে শুভশ্রী, ছবি মুক্তির আশায় দিন গুনছেন সিনেমাপ্রেমীরা 1
পরিণীতা'-র পর 'হাবজি গাবজি'তে ফের একবার নতুন রূপে শুভশ্রী, ছবি মুক্তির আশায় দিন গুনছেন সিনেমাপ্রেমীরা 2

ওয়েব ডেস্ক : আজকালকার ব্যস্ত জীবনে বহু ক্ষেত্রেই দেখা যায় বাবা-মা দুজনেই ইঁদুর দৌড়ের খেলায় ব্যস্ত। ছেলেমেয়েদের সাথে সময় কাটানোর সময় নেই। বহুক্ষেত্রেই তাদের সারাদিন কাটে বাড়ির পরিচারিকার কাছে কিংবা একা। এর জেরে স্বাভাবিকভাবেই ছোটো শিশুদের মধ্যে গ্রাস করে একাকিত্ব। অনেক বাবা-মা-ই আবার যোগাযোগের সুবিধার জন্য ছোটো বয়সেই ছেলেমেয়েদের হাতে তুলে দেয় মোবাইল ফোন। এর এতে বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই ক্রমশ মোবাইল অ্যাডিক্টেড হয়ে ওঠে ছেলেমেয়ে। এমনই এক গল্প নিয়ে আসছে’হাবজি গাবজি’। সম্প্রতি রাজ চক্রবর্তী পরিচালিত ‘হাবজি গাবজি’ ট্রেলারও মুক্তি পেয়েছে।

এই ছবির পটভূমি অনুসারে, মিস্টার অ্যান্ড মিসেস বসু দুজনেই ব্যস্ত। সেকারণে সন্তান যখন বেড়ে উঠছে সে সময় মায়ের ভূমিকা বেশি থাকলেও এক্ষেত্রে দেখা গিয়েছে সন্তানকে দেওয়ার মত সময় তাঁদের কাছে নেই। তাই সন্তানকে সময় কাটানোর জন্য মোবাইল ফোন উপহারভদেন বাবা। ফলে অগত্যা, বাড়িতে থাকা ছোট্ট তিপুর ভরসা মোবাইল আর গেম। বাবা-মা কাউকেই কাছে না পেয়ে একাকীত্ব ক্রমাগত শিশু মনকে গ্রাস করে। মিস্টার অ্যান্ড মিসেস বসু দুজনেই চাকরি করায় তারা অর্থনৈতিকভাবে একেবারেই স্বচ্ছল। বাড়ি-গাড়ি সবই আছে। শুধু সন্তানকে দেওয়ার সময় নেই। সেকারণে ছোট্ট সন্তানকে খুশি রাখতে নতুন মোবাইল, নতুন ভিডিয়ো গেম সবই এনে দেয় তাঁরা। কিন্তু ধীরে ধীরে নিজেদের অজান্তেই যে বাড়িতে বিষ ঢোকাচ্ছেন, তা তাঁদের জানা ছিল না। অত্যাধিক মোবাইল ফোনের ব্যবহার শিশুমনে কতটা ভয়ঙ্কর প্রভাব ফেলতে পারে, রাজ চক্রবর্তী পরিচালিত ‘হাবজি গাবজি’র ট্রেলারে সে প্রশ্নই তুলে ধরা হয়েছে।

পরিণীতা'-র পর 'হাবজি গাবজি'তে ফের একবার নতুন রূপে শুভশ্রী, ছবি মুক্তির আশায় দিন গুনছেন সিনেমাপ্রেমীরা 3

শনিবার ১৪ নভেম্বর দীপাবলি পাশাপাশি ছিল চিলড্রেন্স ডে-ও। ফলে এদিনু মুক্তি পেয়েছে ‘হাবজি গাবজি’র ফার্স্ট ট্রেলার। আর প্রথমদিনেই তা দর্শকদের মন কেড়েছে। এই ছবিতে স্বামী-স্ত্রী, অর্থাৎ মিস্টার অ্যান্ড মিসেস বসুর ভূমিকায় দেখা গিয়েছে শুভশ্রী গঙ্গোপাধ্যায় ও পরমব্রত চট্টোপাধ্যায়কে। পরিণীতা’র পর এই ছবিতে ফের একবার অন্যরকম চরিত্রে যে শুভশ্রীকে দেখা যেতে চলেছে, তা ট্রেলারেই বেশ স্পষ্ট। ছবির গল্পে একটা সময় দেখা যাবে তাঁদের ছেলে তিপু এতটাই মোবাইল ফোন ও গেম অ্যাডিক্টেড হয়ে গিয়েছে যে তাকে আয়ত্তের বাইরে চলে যেতে দেখা যায়। তবে শেষ পর্যন্ত কি তিপুকে ফিরয়ে আনতে পারবেন মিস্টার অ্যান্ড মিসেস বসু? সে উত্তর অবশ্য ছবি মুক্তির পরই মিলবে।তবে এখনও পর্যন্ত ছবিটি মুক্তির দিন ঘোষণা করা না হলেও খুব শীঘ্রই মুক্তি পেতে চলেছে ‘হাবজি গাবজ’।