ফের করোনায় বলি রাজ্য প্রশাসনে, প্রয়াত রাজ্যের আইন দফতরের সচিব সন্দীপ কুমার রায়চৌধুরী

426
ফের করোনায় বলি রাজ্য প্রশাসনে, প্রয়াত রাজ্যের আইন দফতরের সচিব সন্দীপ কুমার রায়চৌধুরী 1

ওয়েব ডেস্ক : করোনায় সংক্রমিত হয়েছেন রাজ্যের একাধিক প্রশাসনিক আধিকারিকরা। তাদের মধ্যে অনেকে ইতিমধ্যেই সুস্থ হয়ে কাজে ফিরেছেন। তবে এবার করোনার বলি হলেন রাজ্য সরকারের আইন দফতরের সচিব সন্দীপ কুমার রায়চৌধুরী। এবিষয়ে স্বাস্থ্য দফতরের তরফে জানানো হয়েছে, গত মাসে ৩ অগস্ট করোনায় আক্রান্ত হয়েছিলেন সন্দীপ কুমার রায় চৌধুরী। এরপ্র গত একমাস যাবৎ করোনার বিরুদ্ধে প্রাণপণ লড়াইয়ের পর গত মঙ্গলবারই তিনি করোনামুক্ত হন। এমনকি তাঁর করোনা পরীক্ষার রিপোর্ট নেগেটিভ আসে। কিন্তু করোনা রিপোর্ট নেগেটিভ আসার পরও শনিবার আচমকা কলকাতার এক বেসরকারি হাসপাতালে মৃত্যু হয় রাজ্যের আইন সচিব সন্দীপ কুমার রায় চৌধুরীর।

জানা গিয়েছে, সেপ্টেম্বরের শেষের দিক থেকেই একাধিক করোনা উপসর্গে ভুগছিলেন সন্দীপবাবু। এরপর সপরিবারে করোনা পরীক্ষা করা হলে জানা যায় সন্দীপবাবু, তাঁর স্ত্রী ও কন্যা তিনজনেই করোনা আক্রান্ত৷ রিপোর্ট হাতে পাওয়ার পর ৩ অক্টোবর স্ত্রী ও কন্যার সঙ্গে ওই বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি হন ৫৬ বছর বয়সী সন্দীপ কুমার রায়চৌধুরী। এরপর বেশকিছুদিন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন থাকার পর তাঁর স্ত্রী ও কন্যার করোনা রিপোর্ট নেগেটিভ এলে তাদের হাসপাতাল থেকে ছুটি দিয়ে দেওয়া হয়। কিন্তু যেহেতু পরপর ৩ বার সন্দীপবাবুর করোনা রিপোর্ট পজিটিভ আসে। সেকারণে তাকে টানা ২৪ দিন তিনি আইসিইউ–তে ভর্তি রাখা হয়েছিল।

ফের করোনায় বলি রাজ্য প্রশাসনে, প্রয়াত রাজ্যের আইন দফতরের সচিব সন্দীপ কুমার রায়চৌধুরী 2

এবিষয়ে ওই বেসরকারি হাসপাতালের এক চিকিৎসক জানিয়েছেন, টানা তিনবার পজিটিভ রিপোর্ট আসার পর শেষমেশ মঙ্গলবার সন্দীপবাবুর করোনা পরীক্ষার রিপোর্ট নেগেটিভ আসে। এরপর তাঁকে নন–কোভিড আইসিইউ–তে স্থানান্তরিত করা হয়। তবে তখনও তাঁর শ্বাসকষ্ট ছিল এবং শরীরে অক্সিজেনের পরিমাণ ওঠানামা করছিল। এরপর শুক্রবার রাতে আচমকা তাঁর অবস্থার অবনতি হতে শুরু করে। তারপর এদিন সকালে কার্ডিয়াক অ্যারেস্টের জেরে মৃত্যু হয় সরকারি আমলার। এদিকে রাজ্যের আইন সচিবের মৃত্যুর খবর জানতে পেরেই প্রয়াত আমলার শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।