রাস্তায় সাহায্য মেলেনি অ্যাম্বুলেন্সের, দুর্ঘটনায় জখম ছেলেকে নিয়ে হন্যে হয়ে ঘুরলেন বাবা

188

ওয়েব ডেস্ক : শনিবার রাজ্যজুড়ে লকডাউন, আর লকডাউনের আগের দিন রাতেই শহর কলকাতায় ঘটে গেল এক অমানবিক ঘটনা৷ দুর্ঘটনায় গুরুতর জখম সন্তানকে নিয়ে হাসপাতালে ভর্তির আশায় ভ্যানে করে হন্যে হয়ে ঘুরলেন অসহায় বাবা, কিন্তু গোটা শহরে মিলল না একটিও অ্যাম্বুল্যান্স। লকডাউনের আগের রাত থেকেই শহরের একাধিক মোড়ে পুলিশ মোতায়েন ছিল। প্রত্যেকের কাছে একটি অ্যাম্বুল্যান্সের ব্যবস্থা করার জন্য অনুরোধ করলেও মেলেনি অ্যাম্বুলেন্স। এমনকি সামনে পুলিশের অ্যাম্বুল্যান্স দাঁড়িয়ে থাকলেও তা ব্যবহারের অনুমতি দেওয়া হয়নি বলেই জানা গিয়েছে। রক্ত ও স্যালাইন চলা অবস্থাতে ভ্যানের মধ্যেই দীর্ঘক্ষণ পড়ে রইল আহত শিশু।

আরও পড়ুন -  আন্তর্জাতিক বাজারে বাড়ছে সোনার দর কলকাতায় ঊর্ধমুখী সোনা, পাল্লা দিয়ে বাড়ছে রুপোর দর

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, শুক্রবার রাতে কলকাতার রাম মন্দির সংলগ্ন এলাকায় দুর্ঘটনায় একটি বাচ্চা ছেলে গুরুতর জখম হয়। এরপর দেরি না করে এদিন রাতেই তাকে এনআরএস হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। তারপর থেকেই শুরু হয় ভোগান্তি। শিশুটির অবস্থা এতটাই আশঙ্কাজনক ছিল যে এনআরএস থেকে দ্রুত তাকে আরজি কর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়। কিন্তু দীর্ঘক্ষণ চেষ্টার পরও অ্যাম্বুল্যান্স না মেলায় শেষ পর্যন্ত নিজে ভ্যান চালিয়েই এনআরএস থেকে তাকে নিয়ে আরজি কর হাসপাতালে যায় শিশুর বাবা। কিন্তু সেখানে গিয়ে আরেক বিপত্তি। যেহেতু দুর্ঘটনার মামলা সেহেতু নথিতে পুলিশের সই না পাওয়া পর্যন্ত বাচ্চাটির চিকিৎসা করা সম্ভব নয় বলেই স্পষ্ট জানিয়ে দেয় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। একথা শুনে আশঙ্কাজনক অবস্থায় শিশুটিকে ফের ভ্যানে করেই জোড়াসাঁকো থানায় নিয়ে আসে বাবা।

এরপর থানায় পুলিশের যাবতীয় কাজ মিটিয়ে শিশুকে নিয়ে ফের আরজি কর হাসপাতালে ফিরে যায় ওই ব্যক্তি। এরপর তাকে সেখানে ভর্তি নেওয়া হয়। ঘটনায় শিশুটির বাবা জানান, গোটা ঘটনায় একবারও অ্যাম্বুল্যান্সের সাহায্য পাননি ওই ব্যক্তি। এরপর একটা সময় বাধ্য হয়ে জখম সন্তানকে নিয়ে ভ্যান করেই ঘুরলেন শহরের এ প্রান্ত থেকে ও প্রান্ত। শুক্রবার রাতের এই ঘটনায় স্বাভাবিকভাবেই ফের একবার অমানবিকতার নজির গড়লো কলকাতা।

রাস্তায় সাহায্য মেলেনি অ্যাম্বুলেন্সের, দুর্ঘটনায় জখম ছেলেকে নিয়ে হন্যে হয়ে ঘুরলেন বাবা 1