করোনা আবহে অ্যাম্বুলেন্সের দৌরাত্ম্য কমাতে ভাড়া বাঁধলো রাজ্য সরকার

127
করোনা আবহে অ্যাম্বুলেন্সের দৌরাত্ম্য কমাতে ভাড়া বাঁধলো রাজ্য সরকার 1

ওয়েব ডেস্ক : করোনা আবহের পর থেকেই কলকাতা সহ রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তে অ্যাম্বুলেন্সের দৌরাত্ম্য ক্রমশ বেড়েই চলেছে। লাগাম ছাড়া দাম নেওয়া হচ্ছে রোগী পরিবারের কাছ থেকে। এর জেরে মাসখানেক আগেই অ্যাম্বুলেন্সের ভাড়া বেঁধে দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছিল সুপ্রিম কোর্ট। তবে শীর্ষ আদালতের নির্দেশ মেনে সেসময় পদক্ষেপ না নেওয়া হলেও, সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশের প্রায় মাস খানেক পর শেষমেশ পশ্চিমবঙ্গে অ্যাম্বুল্যান্সের ভাড়া বেঁধে দিল রাজ্য সরকার। সে অনুযায়ী কিছুদিন আগেই বিষয়টি নিয়ে স্বাস্থ্য দফতরের তরফে স্বাস্থ্য কমিশনকে আবেদন জানানো হয়েছিল।

আরও পড়ুন -  খড়গপুরের দক্ষিনে দাপট করোনার, শহর জুড়েও সংক্রমনের অবাধ গতি

এদিকে সম্প্রতি এবিষয়ে স্বাস্থ্য কমিশনের সঙ্গে বেসরকারি হাসপাতালগুলির বৈঠক হয়। দীর্ঘ বৈঠকের পর অবশেষে করোনা রোগীর অ্যাম্বুল্যান্সের সর্বোচ্চ ভাড়া নির্ধারন হয়েছে। জানানো হয়েছে, এবার থেকে কলকাতা ও শহরতলিতে করোনা রোগীর ক্ষেত্রে সর্বোচ্চ ভাড়া হবে ৩,০০০ টাকা। পাশাপাশি প্রতি কিলোমিটার পিছু ২০ টাকা করে নিতে পারবে সাধারণ অ্যাম্বুল্যান্স। তবে শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত অ্যাম্বুল্যান্সের ভাড়া সামান্য বেশী। সেক্ষেত্রে অ্যাম্বুল্যান্সের সর্বোচ্চ ভাড়া প্রতি কিলোমিটারে ৫ টাকা বেড়ে সর্বোচ্চ ভাড়া ২৫ টাকা করা হয়েছে।

করোনা কালে রাজ্যে অ্যাম্বুল্যান্স চালকদের ব্যাপক বাড়বাড়ন্ত শুরু হয়েছে। ইচ্ছামতো ভাড়া হাকাচ্ছে রোগী পরিবারের কাছ থেকে। সম্প্রতি এক করোনা রোগীর পরিবার অভিযোগ করেছিলেন, কলকাতার BM বিড়লা হাসপাতাল থেকে CMRI হাসপাতালের দূরত্ব মাত্র ৩০০ মিটার। কিন্তু ওইটুকু পথ নিয়ে যেতে ৬,০০০ টাকা দাবি করে অ্যাম্বুল্যান্স চালক। তবে ভাড়া বেঁধে দেওয়ায় এবিষয়ে অ্যাম্বুল্যান্স পরিষেবা প্রদানকারী সংস্থার দাবি, করোনা কালে মাস্ক, গ্লাভস, পিপিই, স্যানিটাইজার ব্যবহার করে সমস্ত বিধি মেনে অ্যাম্বুল্যান্স চালাতে যা খরচ পড়বে তাতে গাড়ি ১কিমি যাক কিংবা ১০০ কিমি, তাতে কোনও প্রভাব পড়বে না বলেই মনে করা হচ্ছে।
তবে এই সিদ্ধান্ত আদতে বাস্তবে কার্যকর হয় কি না সেটাই এখন দেখার বিষয়।

করোনা আবহে অ্যাম্বুলেন্সের দৌরাত্ম্য কমাতে ভাড়া বাঁধলো রাজ্য সরকার 2