২৪ ঘন্টা পরে তাজপুরের সৈকতে ফিরে এল দেহ, সমুদ্র স্নানে পর্যটকের মৃত্যু বেড়ে ২

197
২৪ ঘন্টা পরে তাজপুরের সৈকতে ফিরে এল দেহ, সমুদ্র স্নানে পর্যটকের মৃত্যু বেড়ে ২ 1

বিশেষ সংবাদদাতা; তাজপুর: আশঙ্কা সত্যি হল পুলিশের, রবিবার দুপুর বেলায় উদ্ধার হল নিখোঁজ হাওড়ার যুবকের দেহ। শনিবার দুপুর থেকেই শুরু হয়েছিল উদ্ধার কাজ, তাজপুর সমুদ্র সৈকত সংলগ্ন জলসীমা তোলপাড় করে খোঁজ চালায় কোস্টাল পুলিশের দল কিন্তু দেহ মেলেনি। অবশেষে রবিবার, পূর্ণিমার ভরা জোয়ারের উত্তাল সমুদ্র নিজেই ফিরিয়ে দিল প্রায় ২৪ ঘন্টা নিখোঁজ থাকা মহম্মদ জুনেইদের মৃতদেহ।

তাজপুরের যে অংশে মূলত পর্যটকরা স্নান করেন সমুদ্র সৈকতের সেই অংশ থেকে কিছুটা দূরে স্থানীয় বাসিন্দারা দেহটি দেখতে পেয়ে খবর দেয় পুলিশে। পুলিশ এসে দেহটি উদ্ধার করার পর জুনেইদের বন্ধুদের দেখায়। শনিবার এক বন্ধুর মৃতদেহ উদ্ধার ও আরেক বন্ধু নিখোঁজের পর থেকেই বন্ধুরা থেকে গিয়েছিল দিঘাতেই। তাঁরাই শনাক্ত করে দেহটি।                         উল্লেখ্য দীর্ঘ লকডাউনের পর আনলক পর্বে নিয়ম কিছুটা শিথিল হওয়ার পরই হাওড়া ও হুগলির ১০ জনের একটি দল শুক্রবারই এসে পৌঁছেছিল দিঘায়। তার মধ্যে ৩ জন শনিবার দিঘা থেকে প্রায় ১৪ কিলোমিটার দূরে তাজপুরের সমুদ্র সৈকত চলে যায় স্নান করতে।

২৪ ঘন্টা পরে তাজপুরের সৈকতে ফিরে এল দেহ, সমুদ্র স্নানে পর্যটকের মৃত্যু বেড়ে ২ 2

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছিল প্রায় আড়াই ঘন্টা সমুদ্রে দাপানোর পর হঠাৎই এক বড় শক্তিশালী ঢেউ ভাসিয়ে নিয়ে যায় তিনজনকেই। স্থানীয়রা সমুদ্রে ঝাঁপিয়ে হুগলির বৈদ্যবাটির উজির আহমেদকে জীবিত অবস্থায় উদ্ধার করতে পারলেও নিখোঁজ ছিলেন হাওড়ার শিবপুর ৫ নম্বর পি এম বস্তির বাসিন্দা গোলাম মহম্মদ(২৫) আর হাওড়ার টিকিয়াপাড়ার বাসিন্দা মহম্মদ জুনেইদ (২৭)। খবর পেয়ে স্পিডবোট নিয়ে তল্লাশিতে নামে মন্দারমণি উপকূল থানার পুলিশ।

শনিবার বিকালে উদ্ধার হয় গোলামের দেহ কিন্তু নিখোঁজ থেকে যান জুনেইদ। পুলিশের আশঙ্কাই ছিল মৃত্যু হয়েছে তাঁর আর ভাটার টানে সমুদ্র তাঁকে টেনে নিয়ে গেছে কয়েক মাইল ভেতরে। রবিবার সেই আশঙ্কাই সত্যি হল, পূর্নিমা আর গ্রহনের ভরা সমুদ্র নিজে থেকেই ফিরিয়ে দিল জুনেইদের দেহ।