ফের ভাঙন মিমে! ভোটের আগে মিম ছেড়ে তৃণমুলে প্রবেশ এক শীর্ষ নেতার

ফের ভাঙন মিমে! ভোটের আগে মিম ছেড়ে তৃণমুলে প্রবেশ এক শীর্ষ নেতার 1

নিউজ ডেস্ক : একুশের নির্বাচনকে পাখির চোখ করে নিজেদের ঘর গোছাতে লেগে পড়েছে অল ইন্ডিয়া মজলিস-এ-ইত্তেহাদুল মুসলিমিনের নেতারা। কিছু দিন আগেই রাজ্য সফরে এসেছিলেন দলের শীর্ষ নেতা আসাদ উদ্দিন ওয়েইসি। উদ্দেশ্যে নির্বাচনের আগে রাজ্যের হাল হকিকত ও নিজেদের সংঠনকে বুঝে নেওয়া। পরবর্তী কাজ প্রার্থী নির্বাচন করা কিন্তু তার আগেই রামধাক্কা খেল মিম। শনিবার সাঙ্গপাঙ্গ নিয়ে আরও এক মিম নেতা যোগ দিলেন শাসক শিবিরে।

সম্প্রতি তৃণমূল শিবিরে যোগ দেন এআইএমআইএমের যুব দলের রাজ্য সভাপতি সফিউল্লাহ খান। ফলে নতুন করে ভাবতে হচ্ছিল ওয়েই সিকে। কারন এবারে রাজ্যের শাসকদলে যোগ দিলেন পশ্চিমবঙ্গ মিমের কার্যকরী সভাপতি তথা রাজ্যের সাংগঠনিক প্রধান শেখ আবদুল কালাম। পাশাপাশি এদিনই তৃণমূলে যোগ দিয়েছেন মিমের বহু কর্মী।

ফের ভাঙন মিমে! ভোটের আগে মিম ছেড়ে তৃণমুলে প্রবেশ এক শীর্ষ নেতার 2

তৃণমূল ভবনে সাংবাদিক বৈঠকের পর এদিন স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী তথা রাজ্য মহিলা তৃণমূল কংগ্রেসের সভানেত্রী চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য এবং তৃণমূল সাংসদ ডাঃ শান্তনু সেনের হাত থেকে দলীয় পতাকা তুলে নেন শেখ আবদুল কালাম।

দল পরিবর্তনের পর গেরুয়া দলকে ‘‌বিষাক্ত হাওয়া’‌ বলে আক্রমণ শানিয়েছেন শেখ আবদুল কালাম। তিনি বলেন, দীর্ঘদিন ধরে পশ্চিমবঙ্গে একটা শান্তির বাতাবরণের আবহাওয়া দেখতে পাওয়া যেত। হঠাৎ করে একটা বিষাক্ত হাওয়া রাজ্যবাসীর ঘাড়ের কাছে নিঃশ্বাস ফেলছে। যা সকলের পক্ষে অতি ভয়াবহ। তাই সব কিছু ভুলে এক হওয়ার চেষ্টা চালালেন তিনি।এই বিষাক্ত হাওয়াকে পশ্চিমবঙ্গ থেকে নির্মূল করতেই হবে।
অন্যদিকে একুশের নির্বাচন উপলক্ষে 21 শে জানুয়ারি নতুন দল ঘোষণা করবেন আব্বাস সিদ্দিকি।তিনি জানান, দলিত মুসলিম ও পিছিয়ে পড়াদের নিয়ে কমবেশি ১০টি দলকে একত্রিত করে ফ্রন্ট তৈরি করবেন তিনি।