বারুইপুরের সভা থেকে ফিরেই করোনায় আক্রান্ত গেরুয়া শিবিরের সদ্য নিযুক্ত সর্বভারতীয় সম্পাদক অনুপম হাজরা

129
বারুইপুরের সভা থেকে ফিরেই করোনায় আক্রান্ত গেরুয়া শিবিরের সদ্য নিযুক্ত সর্বভারতীয় সম্পাদক অনুপম হাজরা 1

ওয়েব ডেস্ক : দিন কয়েক আগেই বারুইপুরে কর্মী সভায় গিয়েছিলেন বিজেপির নবনিযুক্ত সর্বভারতীয় সম্পাদক অনুপম হাজরা। কর্মীসভা থেকে ফিরে আসারপর পরই করোনায় আক্রান্ত হলেন অনুপম হাজরা। শুক্রবার সকালে নিজের ফেসবুক পেজ থেকে ‘‌কোভিড পজিটিভ’ লিখে পোস্ট করেন তিনি। এই খবর প্রকাশ্যে আসতেই অনুগামীদের মধ্যে উদ্বেগের সৃষ্টি হয়েছে। জানা গিয়েছে, বারুইপুরের সভা থেকে ফিরে আসার পর থেকেই কয়েকদিন ধরে তিনি জ্বরে আক্রান্ত ছিলেন। শুধু তাই নয় একই সাথে তাঁর শরীরে জ্বর সহ করোনার অন্য কিছু উপসর্গও দেখা দেয়। এরপর দেরি না করে চিকিৎসকের পরামর্শে বৃহস্পতিবার তাঁর করোনা পরীক্ষা করা হলে শুক্রবার সকালেই সেই রিপোর্ট পান অনুপম। রিপোর্টে জানা গিয়েছে, তিনি করোনায় আক্রান্ত।

আরও পড়ুন -  রাত পোহালেই ভোট , এগিয়ে খড়গপুর ললনারাই, মহিলা ভোটারের সংখ্যাই বেশি

সূত্রের খবর, করোনায় সংক্রমিত হলেও আপাতত চিকিৎসকের পরামর্শ মতো কলকাতায় নিজের ফ্ল্যাটেই রয়েছেন তিনি। আপাতত চিকিৎসকের পরামর্শ মেনেই তাকে চলতে হবে। এদিকে দিন কয়েক আগেই তিনি বিজেপির কর্মীসভায় উপস্থিত ছিলেন। সেকারণে শুক্রবার সকালে পোস্টের মাধ্যমে দিন কয়েকের মধ্যে তাঁর সংস্পর্শে আসা সকলকেই প্রয়োজনীয় চিকিৎসা ব্যবস্থা গ্রহণ করার অনুরোধ করেছেন অনুপম। একই সাথে ১৪দিন কোয়ারেন্টাইন থাকার পরামর্শও দেওয়া হয়েছে।

বারুইপুরের সভা থেকে ফিরেই করোনায় আক্রান্ত গেরুয়া শিবিরের সদ্য নিযুক্ত সর্বভারতীয় সম্পাদক অনুপম হাজরা 2

এদিকে সর্বভারতীয় সম্পাদক হওয়ার পর কিছুদিন আগেই দক্ষিণ ২৪ পরগনার বারুইপুরের এক কর্মিসভায় যোগ দিয়েছিলেন অনুপম হাজরা। করোনা পরিস্থিতির মধ্যেই সেদিনের কর্মী সভায় কয়েকশো বিজেপি কর্মীকে যোগ দিতে দেখা গিয়েছিল। এমনকি কারো মুখেই ছিল না মাস্ক। শিকেয় সামাজিক দূরত্ব! এই পরিস্থিতিতে সভায় উপস্থিত লোকজনকে মাস্ক পড়তে না দেখে, মাস্ক না পড়ার কারণ জিজ্ঞেস করতেই অনুপম হাজরা বলেছিলেন, “আমাদের কর্মীরা করোনার থেকেও বড় শত্রুর সঙ্গে লড়াই করছেন। তাঁরা লড়াই করছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে। তাঁরা (তৃণমূল)‌ যেহেতু করোনা আক্রান্ত হয়নি তাই আমাদের কর্মীরাও আর কোনও ভয় পায় না। আমার যদি করোনা হয় তবে আমি মমতা বন্দোপাধ্যায়কে জড়িয়ে ধরব।” গেরুয়া শিবিরের একজন সক্রিয় সদস্য তথা সর্বভারতীয় সম্পাদকের রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীকে নিয়ে এমন বেফাঁস মন্তব্যের জেরে অনুপমের নামে রাজ্যের একাধিক থানায় এফআইআর দায়ের করে শাসকদল।

আরও পড়ুন -  মেদিনীপুর শহরে বাথরুম থেকে উদ্ধার বৃদ্ধার অগ্নিদগ্ধ দেহ, ঘটনায় চাঞ্চল্য এলাকায়

এদিকে, এই ঘটনার সপ্তাহ খানেক কাটতে না কাটতেই অনুপম হাজরার করোনা আক্রান্ত হওয়ার খবর প্রকাশ্যে আসতেই শাসকদলের মুখপাত্র দেবাংশু ভট্টাচার্য শুক্রবার অনুপমকে কটাক্ষ করে নিজের ফেসবুকে লিখেছেন, “‌যিনি বলেছিলেন করোনা হলে তিনি দিদিকে জড়িয়ে ধরবেন, তাঁর সত্যি সত্যিই করোনা হল!‌ ওঁর (‌মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়)‌ মধ্যে স্বয়ং দুর্গা বাস করেন, মহামায়ার ক্ষতি কামনা করে নিজে ভাল থাকা যায় না।”