আসানসোলের জামুরিয়াতে কোয়ারেন্টাইন সেন্টারকে ঘিরে ধুন্দুমার, রক্তাক্ত পুলিশ আধিকারিক, আগুন, গুলি

550
Advertisement

নিজস্ব সংবাদদাতা: আসানসোলের জামুরিয়া এলাকায় একটি কোয়ারেন্টাইন সেন্টার বানানোকে কেন্দ্র করে পুলিশ জনতার সংঘর্ষে রক্তাক্ত হল এক পুলিশ অধিকারিক সহ একাধিক পুলিশ কর্মী। পুলিশকে ঘিরে চলল গুলি ও বোমা। ভাঙচুর করে আগুন লাগিয়ে দেওয়া হল পুলিশের বাইকে। গোটা ঘটনায় কার্যত বারুদের স্তুপের ওপর দাঁড়িয়ে জামুরিয়ার চুরুলিয়া এলাকায়। ঘটনার পরই এলাকায় ছুটে গিয়েছে আসানসোল দুর্গাপুর পুলিশ কমিশনারেটের বিশাল বাহিনী। ব্যাপক তল্লাশি চালিয়ে কয়েকজন আটক করেছে পুলিশ। আহত পুলিশ অধিকারিক ও কর্মীদের গাড়িতে করে সরিয়ে আনা হয়েছে। জনতার ভিড়ে মিশে থেকে কুখ্যাত দুষ্কৃতিরাই এই তাণ্ডব চালিয়েছে বলেই পুলিশের অনুমান। এলাকায় টহল দিচ্ছেন দাঙ্গা দমন বাহিনী।

Advertisement

জানা গেছে চুরুলিয়া এলাকায় একটি কোয়ারেন্টাইন সেন্টার করার পরিকল্পনা নিয়েছিল পশ্চিম বর্ধমান জেলা প্রশাসন। সেই মত স্থানীয় একটি ভবনকে প্রস্তুত করার উদ্যোগ নেওয়া হয়। কিন্তু জনবসতির মধ্যে কোয়ারেন্টাইন সেন্টার করা যাবেনা বলে স্থানীয় জনতা বেঁকে বসে। মঙ্গলবার সকালে কয়েকজনকে সেই কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে নিয়ে গেলে স্থানীয় জনতা এলাকায় মহামারী বাড়ার আশঙ্কায় উত্তেজিত হয়ে ওঠে। তারা প্রশাসনিক লোকেদের ঘিরে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করে। বিষয়টিতে হস্তক্ষেপ করেন জামুরিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত আধিকারিক। কিন্তু জনতা হঠাৎই ক্ষেপে ওঠে এবং পুলিশকে ঘিরে শুরু হয় ব্যাপক ইটবৃষ্টি। ইট বৃষ্টির মুখে হতচকিত পুলিশ কর্মীরা নিজেদের আড়াল করার চেষ্টা করলে কয়েকজন পুলিশের কয়েকটি বাইক ভাঙচুর করে উল্টে দেয় এবং আগুন লাগিয়ে দেয়।

Advertisement
Advertisement

খবর পেয়ে পুলিশের একটি বাহিনী ঘটনাস্থলে এলে তাঁদেরকে ঘিরে শুরু হয় বোমাবাজি। কয়েক রাউণ্ড গুলিও জনতার দিক থেকে পুলিশকে লক্ষ্য করে ছুটে আসে। এরপরই পুলিশের দাঙ্গা দমন বাহিনী এলাকায় ছুটে যায়। জনতাকে নিয়ন্ত্রন ও ছত্রভঙ্গ করতে ছোঁড়া হয় কাঁদানে গ্যাস। সকাল হতেই বাঁধত পুলিশ-জনতা খণ্ডযুদ্ধ। জনতার ছোঁড়া ইটের আঘাতে গুরুতর জখম হল জামুরিয়ার ভারপ্রাপ্ত পুলিশ আধিকারিক। তাঁর পায়ের হাড় ভেঙে রক্তে ভরে যায় এলাকা। হাতে ও শরীরের বিভিন্ন জায়গায় চোট নিয়ে আহত হয়েছেন আরও বেশ কয়েকজন পুলিশ কর্মী। রণক্ষেত্রে খবর সংগ্রহ করতে গিয়ে আহত হয়েছেন বেশ কিছু সাংবাদিক।

আসানসোল পুরনিগমের মেয়র পরিষদ সদস্য পুর্নশশী রায় ঘটনাস্থল থেকে কয়েকজন আহত পুলিশ কর্মীকে সরিয়ে আনতে সমর্থ হন। ঘটনা প্রসঙ্গে তিনি বলেন , ”জামুরিয়ার চুরুলিয়াতে কোয়ারেন্টাইন সেন্টারকে ঘিরে একটা গন্ডগোল হয়।পরে গ্রামবাসী দের সাথে বড়ো গন্ডগোল হয়েছে ।বড়বাবু সহ বেস কয়েকজন পুলিশ কর্মী আহত হয়েছেন ।তাদের আখলপুর স্বাস্থ্য কেন্দ্র , রানিগঞ্জ ও আসানসোল জেলা হাসপাতালে চিকিৎসা করা হচ্ছে ।” ঘটনার পেছনে এলাকার বেশ কিছু দুস্কৃতিকারীর ইন্ধন রয়েছে বলেই পুলিশের অনুমান। বেশ কয়েকজনকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করছে পুলিশ।