শিলিগুড়ি সহ সারা রাজ্যে বেহাল চিকিৎসা পরিকাঠামো! ধর্ণায় বসে গ্রেপ্তার ৩ বিজেপি বিধায়ক

73
Advertisement

নিউজ ডেস্ক: লকডাউনের মধ্যেই চিকিৎসা ব্যবস্থার বেহাল পরিকাঠামোর অভিযোগ তুলে রাস্তায় ধরণা দিয়ে শিলিগুড়িতে গ্রেপ্তার ৩ বিজেপি বিধায়ক। জানা যায় রবিবার শিলিগুড়ির ভেনাস মোড় এলাকায় অবস্থান বিক্ষোভে শামিল হন তারা। রবিবার সকালে শিলিগুড়ির হাসমিচকে বিজেপির জেলা কার্যালয়ের সামনে ধর্ণায় বসেন শিলিগুড়ির বিধায়ক শংকর ঘোষ, ডাবগ্রাম- ফুলবাড়ির বিধায়ক শিখা চ্যাটার্জি ও মাটিগাড়া-নকশালবাড়ির বিধায়ক আনন্দময় বর্মন। বিভিন্ন জায়গায় কোভিড রোগীদের চিকিৎসার নামে হয়রানি করা হচ্ছে, প্রচুর বিল করা হচ্ছে এবং অবহেলার কারনে রোগী মৃত্যু হচ্ছে বলে অভিযোগ নিয়ে তারা এদিন ধর্ণায় বসেন। প্রায় আধ ঘণ্টারও বেশি সময় ধরে তারা অবস্থান বিক্ষোভ প্রদর্শন করেন। যদিও পুলিশ সকাল ১০টা নাগাদ ঘটনাস্থলে পৌঁছে তাঁদের গ্রেপ্তার করে শিলিগুড়ি থানায় নিয়ে যায়।

Advertisement

এবিষয়ে বিধায়ক ড.শঙ্কর ঘোষ বলেন, ‘খুবই উদ্বেগজনক ঘটনা। শিলিগুড়ি শহরে ও মহকুমার চিকিৎসা পরিস্থিতি দেখে আমরা ৩ বিধায়ক এই বিক্ষোভে বসতে বাধ্য হয়েছি। কারণ বিগত রাজ্য সরকার বর্তমান রাজ্য সরকারের পরিচালনার মধ্যে অনেক পার্থক্য রয়েছে। নির্বাচিত জন প্রতিনিধিদের বাদ দিয়ে পরাজিতদের দিয়ে শহর চালানোর তাঁদের যে পরম্পরা আছে সেই অনুযায়ী শহর চলছে, প্রশাসনিক সভা হচ্ছে, বেসরকারি স্বাস্থ্য পরিষেবায় লাগাম টানার কথা বলা হচ্ছে, স্বাস্থ্য পরিষেবার ঘাটতি দূর করার জন্য বড় বড় বিবৃতি দেওয়া হচ্ছে। কিন্তু বাস্তবে বিবৃতির সঙ্গে কোনও ধরণের মিল নেই। অমানবিক ঘটনা পর পর ঘটেই চলেছে। তিনি আরও বলেন, ‘করোনা নিয়ে এতদিন রাজনীতি হয়েছে এখন মানুষের প্রাণ নিয়েও রাজনীতি চলছে।’

Advertisement
Advertisement

শিলিগুড়ি থানার পুলিশের তরফে জানানো হয় গতকাল রাজ্য সরকারের তরফে যে নির্দেশিকা জারি করা হয়েছে তাতে কোনো রাজনৈতিক কর্মসূচি করা যাবে না। তা জানানোর পর বিধায়কদের ধর্ণা থেকে উঠে যেতে বলা হয়।যদিও বিধায়কেরা ধর্ণা থেকে না উঠলে শেষমেষ পুলিশ তিন বিধায়ককে গ্রেফতার করে।