বেলদায় লকডাউন বলবৎ করতে মরিয়া পুলিশ, মাস্ক না পরায় গেঞ্জি খুলিয়ে মুখে পরালো যুবককে

450

নিজস্ব সংবাদদাতা: পশ্চিম মেদিনীপুর জেলা জুড়ে সকাল থেকেই তৎপর হয়ে উঠেছে পুলিশ। তৎপরতা কঠোর ভাবে লকডাউন বলবৎ করার। মঙ্গলবার সারাদিন জুড়েই প্রচার ছিল আগস্টের প্রথম লকডাউন ৫আগস্ট জনপদ মনুষ্যবিহীন করতে সক্রিয় থাকবে পুলিশ।

মেদিনীপুর খড়গপুরের মত বড় শহর তো বটেই সবং পিংলা বেলদার জনপদেও পুলিশের তরফে মাইক প্রচার করে জানিয়ে দেওয়া হয়েছিল, বুধবার বিনা কারনে, জরুরি প্রয়োজন ছাড়া রাস্তায় বের হলে মাশুল দিতে হতে পারে। সেরকমই দৃশ্য ধরা পড়ল পশ্চিম মেদিনীপুরের বেলদায়। মাস্ক পরে না বের হওয়ায় এক যুবককে গেঞ্জি খুলিয়ে নাকে মুখে জড়াতে বাধ্য করা হল।

ঘটনা বুধবার সকাল ১১টা নাগাদ বেলদার কেশিয়াড়ি মোড়ের। একদিকে জাতীয় সড়ক, অন্যদিকে কেশিয়াড়ি মোড় আর অপরদিকে বেলদা বাজার। এই তিন রাস্তার সঙ্গমস্থলে সকাল থেকেই পুলিশের নজরদারি ছিল। রাস্তায় বের হওয়া মানুষের সত্যিকারের প্রয়োজনীয়তা খতিয়ে দেখা হচ্ছিল। পুলিশ কর্মীরা পথচারীদের দাঁড় করিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ চালাচ্ছিল। এই সময় সাইকেল আরোহী এক ব্যক্তিকে দেখা যায় দেউলির দিক থেকে বেলদা বাজারের দিকে ঢুকছে।

আরও পড়ুন -  খড়গপুরে অভিনব প্রতিবাদে সিপিএম, বিদ্যুৎ বিলের দাপটে শ্মশানযাত্রা টেবিল ফ্যানের,

পুলিশ কর্মীরা তাঁকে দাঁড় করায় এবং জিজ্ঞেস করে তাঁর মুখে মাস্ক নেই কেন? ব্যক্তি জানায়, রোজই মাস্ক পরে সে, আজ ভুলে গেছে। পুলিশ ওই ব্যক্তিকে তাঁর গেঞ্জি খুলতে বলে এবং সেটাকেই মাস্ক বানিয়ে পরতে বলে। ওই ব্যক্তি নিজের ভুল স্বীকার করে নেন এবং মুখে গেঞ্জি বেঁধেই বাড়ির দিকে রওনা হন।

আরও পড়ুন -  কলকাতার বাইরে দক্ষিনবঙ্গের প্রথম করোণা পরীক্ষাকেন্দ্র মেডিক্যালে, মেদিনীপুরের মুকুটে নতুন পালক

এদিন রাস্তায় তল্লাশির পাশাপাশি গোটা বেলদা জুড়েই টহল দেয় পুলিশ। বেলদার দেউলি এলাকায় অযোধ্যায় রাম মন্দিরের ভূমি পূজা উপলক্ষ্যে পশ্চিম মেদিনীপুরের বেলদার দেউলী ফ্রেন্ডস ইউনিট ও গ্রামের রাম ভক্তরা বুধবার সকালে রামের ধ্বজা উত্তোলন করে ঘন্টা বাজিয়ে রাস্তায় একটি র‍্যালি বের করেছিলেন। লকডাউন ভেঙ্গে এই কর্মসূচি করার অভিযোগে বেলদা থানার পুলিশ গ্রেপ্তার করে।

বেলদায় লকডাউন বলবৎ করতে মরিয়া পুলিশ, মাস্ক না পরায় গেঞ্জি খুলিয়ে মুখে পরালো যুবককে 1