প্রজাতন্ত্র দিবসের আগে কড়া নিরাপত্তার চাদরে মুড়ে ফেলা হল অসম বাংলা সীমান্ত

242
প্রজাতন্ত্র দিবসের আগে কড়া নিরাপত্তার চাদরে মুড়ে ফেলা হল অসম বাংলা সীমান্ত 1

নিউজ ডেস্ক :ডিগবয়ের বিস্ফোরণের জের,কড়াকড়ি শুরু অসম বাংলা সীমান্তে। ২৬ শে জানুয়ারি প্রজাতন্ত্র দিবস উপলক্ষে অসম বাংলা সীমানায় নিরাপত্তা ব্যাবস্থা জোরদার করেছে পুলিশ।

প্রজাতন্ত্র দিবসের আগে কড়া নিরাপত্তার চাদরে মুড়ে ফেলা হল অসম বাংলা সীমান্ত 2

শনিবার আলিপুরদুয়ারে জেলা পুলিশের ক্রীড়া প্রতিযোগীতার উদ্বোধন করে সাংবাদিকদের একথা বলেন উত্তরবঙ্গের জলপাইগুড়ি পুলিশ রেঞ্জের ডি আই জি আনাপ্পা ই। উল্লেখ্য, শুক্রবার রাতে অসমের ডিগবয়ে সেনাক্যাম্পের সামনে জোরালো বিস্ফোরন ঘটে।চাঞ্চল্য ছড়ায় এলাকায়।যদিও এই বিস্ফোরনের দায় স্বীকার করেছে উলফা। যদিও সেনার তরফে এই ধরনের কোনও বিস্ফোরণের ঘটনা অস্বীকার করে বলা হয়েছে সেনা ক্যাম্পের বলয়ে বা তার আশেপাশে এমন কোনোও বিস্ফোরণ হয়নি। উলফা মিথ্যা প্রচারের জন্য এই গুজব রটিয়েছে মানুষকে বিভ্রান্ত করার জন্য।

প্রজাতন্ত্র দিবসের আগে কড়া নিরাপত্তার চাদরে মুড়ে ফেলা হল অসম বাংলা সীমান্ত 3

অসম পুলিশের পক্ষে বলা হয়েছে, সেনার পক্ষ থেকে তাঁদের ক্যাম্পে বিস্ফোরণের ঘটনা অস্বীকার করা হয়েছে। পুলিশ এও জানিয়েছে যে, এলাকার কিছু মানুষ এমনটা বলছে যে তারা একটি বড়সড় বিস্ফোরনের আওয়াজ শুনেছে। ঘটনা যাই হোকনা কেন বিষয়টি নিয়ে কোনও ঝুঁকি নিতে রাজি নয় পশ্চিমবঙ্গ পুলিশ এমনটাই ইঙ্গিত দিয়েছেন জলপাইগুড়ি পুলিশ ডিআইজি।

কারন ইতিমধ্যেই  ২৬ জানুয়ারি প্রজাতন্ত্র দিবস বয়কটের ডাক দিয়েছে কে এল ও সহ বেশ কয়েকটি জঙ্গি গোষ্ঠী। সামনেই রাজ্যের বিধানসভা নির্বাচন। সরকারকে অপদস্থ করার জন্য সব রকমের উদ্যোগ নিতে পারে কেউ কেউ। বিশেষ করে নাশকতা ছড়াতে পারে জঙ্গিরা বলে অনুমান পুলিশ কর্তাদের। সেই কারণে সীমান্ত জুড়ে আঁটোসাঁটো করা হয়েছে নিরাপত্তা। সম্ভাব্য ঘাঁটি গুলিতে নিরন্তর তল্লাশি চালানো হচ্ছে।

এইমুহুর্তে অসম বাংলা সীমানা নিরাপত্তার চাদরে মুড়ে ফেলা হয়েছে।দফায় দফায় ওই সীমানায় চলছে লাগাতার নাকা চেকিং। বাইক, চারচাকা, বড় গাড়ি ধরে ধরে চলছে তল্লাশি। মেটাল ডিটেক্টর, স্নাইফার ডগ স্কোয়াড ব্যবহার করা হচ্ছে নাকা ও তল্লাশির কাজে। রাত দিন পালা করে চলছে সতর্ক তল্লাশি। চূড়ান্ত সতর্কতা জারি করা হয়েছে দুই রাজ্যের সীমান্তে।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে অসমের সঙ্গে আলিপুর দুয়ারের সীমান্ত রয়েছে এবং ঘন জঙ্গল বেষ্ঠিত এই অঞ্চলকেই জঙ্গি বা উগ্রপন্থী সংগঠন গুলি সফট জোন হিসাবে ব্যবহার করে থাকে । প্রজাতন্ত্র দিবসকে কেন্দ্র করে রাজ্যের প্রান্তিক জেলা আলিপুরদুয়ারে যাতে কোনো রকম নাশকতা না ছড়ায়, তা আটকাতে চূড়ান্ত ভাবেই প্রস্তুত রয়েছে নতুন জেলার পুলিশ।

Previous articleপ্রতিবেশী কাকুর ডাকে বিস্কুট খেতে গিয়ে ধর্ষণ ও খুনের শিকার নাবালিকা! যুবকের ফাঁসি চেয়ে পুলিশকে বিক্ষোভ জনতার
Next articleরাজনৈতিক অ্যাজেন্ডা তৈরী করা মমতা ব্যানার্জীর উদ্দেশ্য,শিলিগুড়িতে কটাক্ষ কৈলাশের