ভারতী আসতেই বাকচায় উপচে পড়ল ভিড়, বর্তমান পুলিশ সুপারকে হুঁশিয়ারি প্রাক্তন পুলিশ সুপারের

1390
ভারতী আসতেই বাকচায় উপচে পড়ল ভিড়, বর্তমান পুলিশ সুপারকে  হুঁশিয়ারি প্রাক্তন পুলিশ সুপারের 1

শশাঙ্ক প্রধান : সোমবার তাঁর বুকে আছড়ে পড়েছিলেন সদ্য পুত্রহারা জননী, দীপক মন্ডলের মা। রাতেও থিক থিক করছে পূর্ব মেদিনীপুরের ময়না থানার বাকচা গ্রাম। সেই থিক থিকে ভিড়ের অধিকাংশই মহিলা। ভারতী আসতেই বাকচায় উপচে পড়ল ভিড়, বর্তমান পুলিশ সুপারকে  হুঁশিয়ারি প্রাক্তন পুলিশ সুপারের 2তাঁরা এসেছেন ভারতী ঘোষকে দেখতে, ভারতী ঘোষের কথা শুনতে। তাঁরা শুনেছেন ভারতী ঘোষ পুলিশ সুপার ছিলেন তাই তাঁদের বিশ্বাস ভারতী ঘোষই পারবেন এই ঘটনার ব্যখ্যা দিতে আর তিনিই পারবেন এর উপযুক্ত প্রতিবিধান করতে।

তাই উপচে পড়েছে ভিড় দীপক মন্ডলের বাড়ির সামনে। এঁরা জানতে চান, একটা ছেলে একা একা বোমা নিয়ে সবংয়ে ঢুকে গিয়েছিল কিনা অন্য দলের মানুষকে মারতে? যেমনটা তৃনমূল দাবি করছে! এরা জানতে চান একটা লোকের কাছে থাকা বোমা যদি ফেটে যায় তাহলে শুধু নিচের অংশটাই উড়ে যায়, পুড়ে যায় কেন?ভারতী আসতেই বাকচায় উপচে পড়ল ভিড়, বর্তমান পুলিশ সুপারকে  হুঁশিয়ারি প্রাক্তন পুলিশ সুপারের 3

ভারতী আসতেই বাকচায় উপচে পড়ল ভিড়, বর্তমান পুলিশ সুপারকে  হুঁশিয়ারি প্রাক্তন পুলিশ সুপারের 4

ভারতী ঘোষ এই প্রশ্ন গুলির উত্তর নিয়েই হাজির হয়েছিলেন হয়ত কিন্তু তাঁর সময় লাগছিল। তাঁর বুকের মধ্যে ঝাঁপিয়ে পড়া সন্তান হারা মা, তাঁর দিকে তাকিয়ে নির্বাক স্বামী হারা স্ত্রী আর সদ্য দাদাকে হারানো বোন। তিনজনকে স্বান্তনা দেওয়ার সময় প্রাক্তন পুলিশ সুপারের চোখেও জল চিকচিক করেছে। এরপর আবেগ সামলে তাঁর জন্য অপেক্ষায় থাকা ভিড়ের উদ্দেশ্যে বললেন, ”  এই খুন একটা গভীর চক্রান্ত করে করা হয়েছে। আমাদের ওই কর্মীকে প্রথমে ঘিরে ধরে মারা হয়েছে তারপরও বেঁচে আছে দেখে তাঁকে ফেলে তাঁর ওপর বোমা মারা হয়েছে।”

আরও পড়ুন -  করোনা আবহে নির্দেশিকা ভেঙে জাঁকজমক করে বিয়ের 'শাস্তি' জরিমানা, করোনায় আক্রান্ত খোদ বর

ভারতী ঘোষ এদিন মনে করিয়ে দেন যেখানে দীপক মন্ডল খুন হয়েছেন ২০১৬ সালে খুন হয়েছিলেন জয়দেব মন্ডল এবং খুনে অভিযুক্তরাই আজকের খুনের পেছনে রয়েছেন। সম্প্রতি কেশপুরের তৃণমুলের অন্তর্দ্বন্দ্বে তৃণমূলেরই কর্মী খুন এবং তৃনমূল কর্মীদের বাড়ি থেকে উদ্ধার হওয়া বোমার প্রসঙ্গ তুলে তিনি বলেছেন, “যেভাবে আজ বাংলা জুড়ে বোমা পাওয়া যাচ্ছে তাতে পরিষ্কার বোমা শিল্পটাই এ রাজ্যের একমাত্র শিল্প।”

আরও পড়ুন -  একুশের আগের একুশ, ময়দানে নয় টিভিতেই, শাহকে টেক্কা দিতে প্রস্তুতি তৃণমূলের আইটি সেলের

এরপরেই তাঁর হুঁশিয়ারি, ” যদি আগামী তিনদিনের মধ্যে অভিযুক্তদের গ্রেপ্তার না করা হয় তবে সুপ্রিম কোর্টে যাব আমরা।” ময়না এবং সবং পুলিশের পাশাপাশি পশ্চিম মেদিনীপুরের পুলিশ সুপার দীনেশ কুমারের নাম করেই তিনি বলেছেন, হয় আইনানুগ ব্যবস্থা নেবেন নতুবা ভুগতে হবে। ভারতী বলেন, ” আমি পুলিশকে হুঁশিয়ারি দিচ্ছি যদি হাজত বাস না করতে চান তবে অবিলম্বে গ্রেপ্তার করুন অভিযুক্তদের।”