মমতার ‘অগ্নিকন্যা’ শিরোপা ছিনিয়ে নিলেন ভারতী, মমতা নিভে গেছে বললেন দলত্যাগী তৃনমূল কর্মীরা

588
মমতার 'অগ্নিকন্যা' শিরোপা ছিনিয়ে নিলেন ভারতী, মমতা নিভে গেছে বললেন দলত্যাগী তৃনমূল কর্মীরা 1

মমতার 'অগ্নিকন্যা' শিরোপা ছিনিয়ে নিলেন ভারতী, মমতা নিভে গেছে বললেন দলত্যাগী তৃনমূল কর্মীরা 2নিজস্ব সংবাদদাতা: সন্ধ্যা থেকেই অঝোরে বৃষ্টি পড়ছে পূর্ব মেদিনীপুরের কোলাঘাট, দেউলিয়ায়। আর সেই বৃষ্টির মধ্যেই ভিজে ভারতী ঘোষকে দেখার জন্য ভিড় করে আছেন কয়েক হাজার নারী পুরুষ। এখানেই বিজেপির উদ্যোগে প্রতিবাদ সভা। পাশাপাশি রয়েছে বিজেপিতে যোগদানের কর্মসূচি। সেখানে ভারতী ঘোষ যখন আসলেন এবং মঞ্চের দিকে রওনা দিলেন তখন আওয়াজ উঠল, ‘বাংলার অগ্নিকন্যা ভারতী দি স্বাগতম।’

মমতার 'অগ্নিকন্যা' শিরোপা ছিনিয়ে নিলেন ভারতী, মমতা নিভে গেছে বললেন দলত্যাগী তৃনমূল কর্মীরা 3একবার নয়, বারংবার যতক্ষন না তিনি মঞ্চে গিয়ে পৌঁছালেন। বিজেপির নেতা কর্মীরা রীতিমত থমকে গেলেন এমন শ্লোগান শুনে কারন এধরনের শ্লোগানে তাঁরা অভ্যস্থ নন। এ শ্লোগান যে একসময় মমতা ব্যানার্জীর উদ্দেশ্যে ব্যবহার হত। বিজেপির এক স্থানীয় নেতা ধমক দিলেন। একটু থমকে গেলেন শ্লোগানকারি কিন্তু কেউ একজন বলে উঠলেন, আরে চালিয়ে যা, মমতা এখন নিভে গেছে! ফের জোরালো আওয়াজ উঠল, ‘বাংলার অগ্নিকন্যা ভারতী দি জিন্দাবাদ।’

মমতার 'অগ্নিকন্যা' শিরোপা ছিনিয়ে নিলেন ভারতী, মমতা নিভে গেছে বললেন দলত্যাগী তৃনমূল কর্মীরা 4

ভারতী ঘোষ এদিন জানিয়ে দেন, ২০২১শে ক্ষমতায় আসার পর প্রতিটি বোমা আর বিস্ফোরণের মামলা সিবিআইকে দিয়ে পুনর্বার চালু করা হবে। তিনি বলেন, “এখন যেমন সারদা নারদা সহ চিটফান্ডের গুচ্ছগুচ্ছ মামলা চলছে তখন ঠিক বোমা আর বিস্ফোরণের গুচ্ছ গুচ্ছ মামলা চলবে।” তিনি আরও বলেন, ” পাগলা কুকুরকে যেমন লোক তাড়া করে বেড়ায় ঠিক তেমনই তৃনমূল নেতাদের তাড়া করে বেড়াবে মানুষ। মানুষ ক্ষেপে রয়েছে।” পুলিশকে তাঁর হুঁশিয়ারি, “আপনাদেরও যাতে তাড়া খেয়ে না বেড়াতে হয় তাই আইন মেনে কাজ করুন, মিথ্যা মামলা দেওয়া বন্ধ করুন। যারা মিথ্যা মামলা সাজাচ্ছেন তাঁদের জেল হাজত খাটতে হবে।”

আরও পড়ুন -  এবার রেশন দোকান থেকে চাল লুটের আভিযোগ তৃনমূল কাউন্সিলারের বিরুদ্ধেই, লুট হওয়া চাল উদ্ধার করল পুলিশ

সীমান্তে গরু চোরাচালানকারীদের প্রসঙ্গে ঘোষ বলেন, ” গরু পাচার চক্রে অনেক তৃণমূল নেতার নাম আসছে। শুধু তৃনমূল নেতা নয় প্রশাসনের অনেকের নাম আসছে। সবারই মুখোশ খুলবে শুধু সময়ের অপেক্ষা। মুর্শিদাবাদ, বসিরহাট, স্বরূপনগর সীমান্ত এলাকায় যে তৃনমূল নেতাদের চাল চুলো ছিলনা তাঁরা হঠাৎ ফুলে ফেঁপে ঢোল হয়ে গেল কী করে। এটা গরু পাচার চক্র।পাশাপাশি পুলিশের সাহায্য ছাড়া এপারের গরু ওপারে যেতে পারেনা। সিবিআইকে ধন্যবাদ যে তারা একটা একটা করে বের করছে।’

আরও পড়ুন -  খড়গপুর মেদিনীপুর জুড়ে বৃষ্টি শুরু, কাল থেকে ভাসবে দক্ষিনবঙ্গ, পূর্ব ও পশ্চিম মেদিনীপুর, হাওড়ায় বন্যার ভ্রুকুটি, জারি কমলা সতর্কবার্তা

এদিন আরও একটা জিনিস লক্ষ্য করা গেল যে, এই সংকল্প প্রতিবাদ সভা থেকে যাঁরা তৃণমূল থেকে বিজেপিতে যোগদান করলেন তাঁদের দেখা গেল ভারতী ঘোষের হাত থেকেই পতাকা নিতে হুড়োহুড়ি করতে।২০২১য়ের প্রাক্কালে তবে কী ভারতীর মধ্যে এখন মমতাকে দেখতে পাচ্ছেন তৃনমূলের প্রাক্তনীরা?