বিজেপি বিধায়কের ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার, খুন করে ঝুলিয়ে দেওয়া হয়েছে দাবি পরিবার ও স্থানীয়দের

83

বিশেষ সংবাদদাতা: বাড়ির থেকে ১ কিলোমিটার দুরে একটি বন্ধ দোকানের বারান্দা থেকে সোমবার সকালে উদ্ধার করা হয়েছে উত্তর দিনাজপুর জেলার হেমতাবাদের বিধায়ক দেবেন্দ্র নাথ রায়ের ঝুলন্ত মৃতদেহ । এই মৃত্যু ঘিরে দানা বাঁধছে রহস্য । তার বাড়ির লোকজন ও বিজেপি নেতৃত্ব দাবি করল যে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে গিয়ে খুন করে ঝুলিয়ে দেওয়া হয়েছে তাকে। এই একই মত এলাকার অধিকাংশ মানুষেরই। পুলিশ দেহটি উদ্ধার করে রায়গঞ্জে পাঠিয়েছে ময়নাতদন্তের জন্য।

আরও পড়ুন -  রেলপথের পর এবার সড়ক পথ, লরি পিষে দিয়ে গেল ঘরে ফেরার পথে ৫ শ্রমিককে, আহত ১৫

উল্লেখ্য ২০১৬ সালে বাম জামানার দারুন ক্ষয়ের মধ্যেও সিপিএম প্রার্থী হিসেবে বিধানসভা নির্বাচনে জিতেছিলেন জনপ্রিয় এই ৬৫ বছরের মানুষটি। এর আগে তিন তিনবার তিনি প্রধান নির্বাচিত হয়েছিলেন। ২০১৯ সালে বিজেপির সর্বভারতীয় দপ্তরের কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের হাত থেকে বিজেপির পতাকা তুলে নিয়েছিলেন তিনি।
বিজেপি দলে যোগ দেন তিনি।

বিধায়কের পরিবারের সদস্যরা দাবি করেছে যে রবিবার গভীর রাতে ১ টা নাগাদ বিন্দোলের বাড়ি থেকে কয়েকজন তাকে ডেকে নিয়ে যায়। তারা মোটর সাইকেল করে এসেছিল। পরে সকাল হলে বিন্দোল মোড়ে একটি বন্ধ দোকানের বারান্দা থেকে ঝুলন্ত অবস্থায় তার দেহ উদ্ধার করা হয় । খুন করে ঝুলিয়ে দেওয়ার অভিযোগ করা হয়েছে পরিবারের তরফে। পাশাপাশি এই ঘটনায় সিবিআই তদন্তেরও দাবি করা হয়েছে।

আরও পড়ুন -  সাদ্দামের ফাঁসি চেয়ে মহিলা তৃনমূল কংগ্রেসের মিছিল, মুখ টিপে হাসছে হলদিয়া

এই মৃত্যু আসলে খুন এবং এর পিছনে আছে তৃণমূল কংগ্রেস বলে দাবি করেছেন এলাকার বিজেপি নেতৃত্ব । বিধানসভা নির্বাচনের মুখেই জনপ্রিয় এই বিধায়ককে পরিকল্পনা মাফিক খুন করা হয়েছে জনপ্রিয় মানুষটিকে সরিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বীকে সরিয়ে দেওয়ার লক্ষ্যে এমনটাই দাবি দলের। গোটা ঘটনার খবর ছড়িয়ে পড়তেই কাতারে কাতারে মানুষ ভিড় জমাচ্ছেন বিন্দোলের রাস্তায়। উত্তর দিনাজপুর জেলার রায়গঞ্জ থানার পুলিশ এই ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে ।

বিজেপি বিধায়কের ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার, খুন করে ঝুলিয়ে দেওয়া হয়েছে দাবি পরিবার ও স্থানীয়দের 1