অনুব্রতর গড়ে অমিতের মেগা রোড শো! তার আগেই পুড়ল বিজেপি কর্মীদের দোকান, কাঠগড়ায় তৃণমূল

404
অনুব্রতর গড়ে অমিতের মেগা রোড শো! তার আগেই পুড়ল বিজেপি কর্মীদের দোকান, কাঠগড়ায় তৃণমূল 1

অশ্লেষা চৌধুরী: আজ অনুব্রতর গড়ে অমিত শাহের মেগা রোড শো, কিন্তু তার সফরের আগেই হিংসার আগুন জ্বলে উঠল লালমাটির দেশে। জ্বলল দুই বিজেপি কর্মীর দোকান, কাঠগড়ায় তৃণমূল। গেরুয়া শিবিরের অভিযোগ, শনিবার রাতে নানুর বিধানসভার অন্তর্গত শিমুলিয়া মোড়ে দুই বিজেপি কর্মীর দোকানে আগুন লাগে। দিপু মেটে এবং গৌতম গড়াইয়ের দোকানে আগুন লাগিয়ে দেয় তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীরা। কীভাবে লাগল এই আগুন তা খতিয়ে দেখছে বোলপুর থানার পুলিশ। আগুন লাগানোর অভিযোগ অস্বীকার তৃণমূলের।

প্রসঙ্গত, আজ লাল মাটিতে পা রাখবেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। শনিবার থেকেই শুরু হয়ে গিয়েছে তার প্রস্তুতি। বিজেপি সূত্রে খবর, রবিবার বিশ্বভারতীর উপাচার্যের সঙ্গে বৈঠক করবেন শাহ। ঘুরে দেখবেন আশ্রম চত্বর। দুপুরে রতনপল্লিতে বাসুদেব দাস বাউলের বাড়ীতে যাবেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। শুনবেন গান, শিল্পীর বাড়ীর শিব মন্দিরে নীলকণ্ঠ ফুল, দুধ দিয়ে পুজো দেবেন তিনি।

অনুব্রতর গড়ে অমিতের মেগা রোড শো! তার আগেই পুড়ল বিজেপি কর্মীদের দোকান, কাঠগড়ায় তৃণমূল 2

বাউল বাড়ীতে তাঁর মধ্যাহ্নভোজনের মেন্যুতে থাকবে ভাত, মুগের ডাল, বেগুন ভাজা, পটল ভাজা, আলুপোস্ত, পালং শাকের তরকারি এবং শেষ পাতে টমেটোর চাটনি ও নলেন গুড়ের রসগোল্লা। রান্না হবে কাঠের উনুনে, মাটির থালায় কলাপাতা সাজিয়ে খেতে দেওয়া হবে, জানিয়েছেন বাসুদেব দাসের স্ত্রী উমা দাস। দুপুরের খাওয়া সেরে অমিত শাহ পৌঁছাবেন বোলপুর ডাকবাংলোতে। পুজো দেবেন হনুমান মন্দিরে। পরে ডাকবাংলো মাঠ থেকে বোলপুর চৌরাস্তা পর্যন্ত বিজেপির মিছিলে অংশ নেবেন তিনি।

তবে তাঁর এই সফরে আসার আগেই বিতর্কে জড়িয়েছেন তিনি। মিছিল উপলক্ষ্যে দেওয়া অমিতের কাটআউট নিয়ে তৈরি হয়েছে এই বিতর্ক। বিজেপির প্রাক্তন সর্বভারতীয় সভাপতির ছবির নীচে রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ছবি দেখে ক্ষোভ প্রকাশ করে বিভিন্ন মহল। শুরু হয় রাজনৈতিক তরজা। বিতর্কিত কাটআউট নিয়ে শোরগোল পড়তেই তড়িঘড়ি তা আবার সরিয়ে ফেলা হয়।

উল্লেখ্য, শনিবার মেদিনীপুরে অমিত শাহের সভায় বয়ে গিয়েছিল যোগদানের ঝড়। শুভেন্দু অধিকারী ছাড়াও সহ ৯ জন বিধায়ক এদিন পদ্ম শিবিরে নাম লিখিয়েছেন। তারপর থেকে উত্তপ্ত রাজ্য রাজনীতি। বিভিন্ন জায়গা থেকে বিক্ষিপ্ত ঝামেলার সংবাদ আসতে থাকে। সদ্য প্রাক্তন তৃণমূল বিধায়কদের দিকে উড়ে আসতে থাকে একের পর এক কটাক্ষ ও চ্যালেঞ্জের বাণ। শুভেন্দু অধিকারী কে ভাইরাস ও গদ্দার বলে তৃনমূল কর্মীদের সোশ্যাল মিডিয়ায় ঝড় উঠেছে। তারপরই এই ঘটনায় উত্তাপের পারদ চড়ল অনেকটাই। ছবি:প্রতীকি