‘কয়লা চোর’ জিতেন্দ্রর বিরুদ্ধে ক্ষোভে ফেটে পড়লেন বিজেপি কর্মীরা! নির্দল প্রার্থীকে জয়ী করার আবেদন জানিয়ে দেওয়াল লিখন লাউদোহা জুড়ে

346
'কয়লা চোর' জিতেন্দ্রর বিরুদ্ধে ক্ষোভে ফেটে পড়লেন বিজেপি কর্মীরা! নির্দল প্রার্থীকে জয়ী করার আবেদন জানিয়ে দেওয়াল লিখন লাউদোহা জুড়ে 1

 

অশ্লেষা চৌধুরী: এবারে জিতেন্দ্র তিওয়ারির বিরুদ্ধে এক রাশ ক্ষোভ উগরে দিলেন বিজেপি কর্মীদের একাংশ, যার বহিঃপ্রকাশ ঘটল দেওয়াল লিখনে। জিতেন্দ্র প্রার্থী হলে নির্দল প্রার্থীকেই ভোটে জয়ী করতে মরিয়া বিজেপি কর্মী সমর্থকেরা। সেই লক্ষ্যেই বুধবার রাত থেকে পাণ্ডবেশ্বর বিধানসভার লাউদোহা ব্লকের ঝাঝরাগ্রাম, তিলাবনি, নাকরাকোন্দা এলাকাগুলিতে দেওয়াল লিখন করতে দেখা যায় বিজেপি কর্মী সমর্থকদের। দেওয়ালে লেখা রয়েছে ”বিজেপি সমর্থিত নির্দল প্রার্থীদের বিপুল ভোটে জয়ী করুন”।

'কয়লা চোর' জিতেন্দ্রর বিরুদ্ধে ক্ষোভে ফেটে পড়লেন বিজেপি কর্মীরা! নির্দল প্রার্থীকে জয়ী করার আবেদন জানিয়ে দেওয়াল লিখন লাউদোহা জুড়ে 2

 

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক বিজেপি কর্মী জানান, এলাকার বিজেপি কর্মীদের আশঙ্কা, দলে যোগ দেওয়ায় হয়তো জিতেন্দ্র তিওয়ারিকে পাণ্ডবেশ্বরে প্রার্থী করা হতে পারে । তাকে প্রার্থী করা হলে নির্দল প্রার্থী দাঁড় করিয়ে তাকে ভোট দেওয়ার আবেদন জানানো হবে। ক্ষোভ উগরে ওই কর্মী আরও বলেন, তৃণমূলের বিধায়ক থাকাকালীন জিতেন্দ্র তিওয়ারি বিজেপির অনেক কর্মী সমর্থকদের উপর শারীরিক ও মানসিক অত্যাচার করেছেন। মিথ্যা কেস দিয়ে থানায় পাঠিয়েছে, জেলেও ভরেছে । এখন দল যদি তাকেই প্রার্থী করে তাহলে সেটা মেনে নেওয়া সম্ভব নয়।

 

যদিও এ ব্যাপারে জিতেন্দ্র তিওয়ারির কোনও প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি, তবে পাণ্ডবেশ্বর ব্লকের তৃণমূল ব্লক সভাপতি নরেন্দ্রনাথ চক্রবর্তী বলেন, ‘শুধু বিজেপি কর্মী সমর্থকদের নয়, তৃণমূলের ও যারা বিধায়কের কাজের ব্যাপারে প্রশ্ন তুলেছেন তাদেরও তিনি ছাড়েননি। সেই কারণে বহু পুরনো তৃণমূল কর্মী ক্ষোভ নিয়ে বসেছিলেন এতদিন। উনি পদ্ম শিবিরে যোগ দেওয়ায় আমাদের আপদ বিদায় হয়েছে।‘ এবার বিজেপির কর্মীরা সেই আপদ সামলাক বলেও এদিন মন্তব্য করেন নরেন্দ্রনাথ বাবু।

 

 

অন্যদিকে বিজেপির জেলার নেতা জানান, ‘জিতেন্দ্র তিওয়ারি কে দলে নেওয়া হয়েছে কেন্দ্রীয় ও রাজ্য কমিটির নির্দেশে । আমাদের শৃঙ্খলা পরায়ন দল, তাই দলের নির্দেশ সবার মেনে চলা উচিৎ। জিতেন্দ্র তিওয়ারি কে দলে নেওয়া হয়েছে বলে যে তাকেই প্রার্থী করা হবে এরকম কোন কথা নে, তাই এখনই ভেঙে পড়ার কোনও কারণও নেই।‘ তবে তৃণমূলে থাকাকালীন দলের কর্মীদের উপর যে জিতেন্দ্র তিওয়ারির নির্দেশে অত্যাচার হয়েছে, সে কথা স্বীকার করেন ছোটন বাবু।

 

 

উল্লেখ্য, বেশ কিছু সময় ধরেই ওঠা জল্পনার অবসান ঘটিয়ে মঙ্গলবার দিলীপ ঘোষের উপস্থিতিতে তৃণমূল ছেড়ে পদ্ম শিবিরে যোগ দেন পান্ডবেশ্বরের বিধায়ক তথা আসানসোলের প্রাক্তন মেয়র জিতেন্দ্র তিওয়ারি। শুধু তাই নয়, তাঁর পাশাপাশি বুধবার জিতেন্দ্র ঘনিষ্ট আসানসোল পৌর কর্পোরেশনের প্রাক্তন তৃণমূল কাউন্সিলর বাপি হুইলার, সাধন পাল, অমিত তুলসিয়ান সহ বেশ কয়েকজন তৃণমূল কর্মী সমর্থক দিলীপ ঘোষের হাত থেকে বিজেপির পতাকা হাতে তুলে নেন বিজেপির হেস্টিংস অফিসে গিয়ে। আর সূত্রের খবর, জিতেন্দ্র তিওয়ারি এবার পাণ্ডবেশ্বর থেকে বিজেপির প্রার্থী হতে পারেন। সেই আশঙ্কাই ঘর করে সেখানকার আদি বিজেপি কর্মী সমর্থকদের একাংশের মনে। আর তাতেই ক্ষোভ উগরে নির্দল প্রার্থী দাঁড় করিয়ে তাকেই ভোটে জেতানোর জন্য মরিয়া হয়ে উঠেছেন বিজেপি কর্মী সমর্থকরা বলেই রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরাও মনে করছেন।