সবংয়ে বিজেপির মিটিংয়ে হামলা, বোমাবাজি! বেধড়ক মারা হল মহিলাদেরও, অভিযোগ তৃনমূলের বিরুদ্ধে

772
সবংয়ে বিজেপির মিটিংয়ে হামলা, বোমাবাজি! বেধড়ক মারা হল মহিলাদেরও, অভিযোগ তৃনমূলের বিরুদ্ধে 1

সবংয়ে বিজেপির মিটিংয়ে হামলা, বোমাবাজি! বেধড়ক মারা হল মহিলাদেরও, অভিযোগ তৃনমূলের বিরুদ্ধে 2শশাঙ্ক প্রধান: পশ্চিম মেদিনীপুরের সবং থানা এলাকায় ফের বিজেপির মিটিংয়ে হামলার অভিযোগ উঠল তৃনমূলের বিরুদ্ধে। অভিযোগ উঠল বোমাবাজি, ভাঙচুরের। বেধড়ক মারধর করা হয়েছে দুই মহিলা সমেত কয়েকজন বিজেপি কর্মী সমর্থককে। মারের হাত থেকে রেহাই পাননি ৭০ বছরের বৃদ্ধও। লাঠি এবং বাঁশ দিয়ে বেধড়ক মারে রক্তাক্ত হয়েছেন ওই বৃদ্ধ এবং ২মহিলা। অভিযোগ আরও যে আহতদের হাসপাতালে যাওয়ার পথ অবরুদ্ধ করে রাখা হয়েছে। ফলে অনেক রাত অবধি আহতদের হাসপাতালে নিয়ে যেতে পারা যায়নি বলেই অভিযোগ করেছেন বিজেপির নেতাকর্মীরা।

সবংয়ে বিজেপির মিটিংয়ে হামলা, বোমাবাজি! বেধড়ক মারা হল মহিলাদেরও, অভিযোগ তৃনমূলের বিরুদ্ধে 3

বিজেপির পক্ষে জানানো হয়েছে শনিবার রাতে সবংয়ের ১০ নম্বর ভেমুয়া গ্রাম পঞ্চায়েতের খড়াই গ্রামের দক্ষিণ বুথে স্থানীয় বিজেপি কর্মী বরুণ পন্ডার বাড়িতে একটি ঘরোয়া বৈঠকের আয়োজন করা হয়েছিল। বিজেপির নেতারা জানিয়েছেন, মিটিং চলার সময় তৃনমূলের একটি বাহিনী হানা দেয় বাড়িতে। ব্যাপক বোমাবাজি করে ওই বাহিনী। সভায় আসা বিজেপি কর্মীদের কয়েকটি বাইক রাখা ছিল। সেরকমই ৬টি বাইক ভাঙচুর চালায় তৃনমূলের হার্মাদরা। তারপরই মারধর শুরু করে বিজেপির কর্মী সমর্থকদের। লাঠি এবং বাঁশ দিয়ে পেটানো হয় সহ দশ থেকে বারোজনকে। যার মধ্যে ২মহিলা এবং ১ বৃদ্ধ সহ ৬জন গুরুতর আহত হন।

সবংয়ে বিজেপির মিটিংয়ে হামলা, বোমাবাজি! বেধড়ক মারা হল মহিলাদেরও, অভিযোগ তৃনমূলের বিরুদ্ধে 4

তাঁদের পায়ে জোরালো আঘাত রয়েছে বলে জানা গেছে। কয়েকজনকে রীতিমত রক্তাক্ত অবস্থায় দেখা গেছে। আহত হয়েছে ব্রজেন মন্ডল, হরিপদ হাজরা, মদন পন্ডা, মমতা পন্ডা, মানসী পন্ডা সহ কয়েকজন। রাত্রি প্রায় ১০টা পর্যন্ত এই আহতদের চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া যায়নি বলে অভিযোগ করেছেন বিজেপি নেতারা। তাঁদের অভিযোগ তৃনমূলের ওই হার্মাদ বাহিনী ভেমুয়া থেকে সবং গ্রামীন হাসপাতালে যাওয়ার রাস্তা ঘিরে রেখেছে। আহত পুরুষ মহিলাদের সভার স্থলেই পড়ে থাকতে দেখা গিয়েছে।

যদিও বিষয়টি নিয়ে মুখ খুলতে রাজি হননি স্থানীয় তৃনমূল নেতা তথা সবং পঞ্চায়েত সমিতির কর্মাধ্যক্ষ তরুণ মিশ্র এবং তৃনমূলের অঞ্চল সভাপতি রাজীব শী। তরুণকে ফোনে বিষয়টি নিয়ে প্রতিক্রিয়া জানতে চাওয়া হলে তিনি কোনোও প্রতিক্রিয়া দিতে চাননি সেই মুহূর্তে। রাজীব শী ফোন ধরেননি।উল্লেখ্য বিধানসভা নির্বাচনের মুখে সবংয়ের বিভিন্ন জায়গা থেকেই বোমাবাজি, ভীতি প্রদর্শনের অভিযোগ আসছে।

এদিকে ভেমুয়ার ঘটনায় আহতদের বেশিরভাগই সদ্য তৃনমূল থেকে বিজেপিতে যোগ দেওয়া পশ্চিম মেদিনীপুর জেলা পরিষদের কর্মাধ্যক্ষ অমূল্য মাইতির অনুগামী বলেই জানা গেছে। মাইতি গত মাসেই বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন যদিও কৌশলগত কারনে মাইতি জেলা পরিষদের কর্মাধ্যক্ষ পদ থেকে পদত্যাগ করেননি। অন্যদিকে গত ৬ই জানুয়ারি সবংয়ে শুভেন্দু অধিকারীর সভায় অমূল্য মাইতির অনুগামীরা বিজেপিতে যোগ দেন। বিধানসভা নির্বাচনের মুখে এরাই একটি সাংগঠনিক সভার আয়োজন করেছিল বলেই জানা গেছে। অনেক রাতে ঘটনাস্থলে পুলিশ পৌঁছেছে বলে জানা গেছে।

Previous articleশালবনীতে হাতির হামলায় মৃত যুবক
Next articleপদ্মের দিকে ঝুঁকছেন অভিনেতা তথা তৃণমুল সহ-সভাপতি হিরণ,শীঘ্রই তৃণমুল ছাড়ার সম্ভাবনা