বনধ ঘিরে উত্তাল মালদার সুজাপুর, একের পর গাড়ি ভাঙল পুলিশই

226
বনধ ঘিরে উত্তাল মালদার সুজাপুর, একের পর গাড়ি ভাঙল পুলিশই 1
বনধ ঘিরে উত্তাল মালদার সুজাপুর, একের পর গাড়ি ভাঙল পুলিশই 2
ভাইরাল হওয়া ভিডিও থেকে নেওয়া ছবি

নিজস্ব সংবাদদাতা: একের পর এক গাড়ির কাঁচ ভাঙছে পুলিশ এমনই ভিডিও সামনে আসায় বিপাকে রাজ্য প্রশাসন। মালদার কালিয়াচকে বুধবার বনধ ঘিরে অশান্তির মধ্যেই ভাইরাল হওয়া একটা ভিডিওতে দেখা গেল দাঁড়িয়ে থাকা কয়েকটি গাড়ির কাঁচ রাইফেলের পেছন কিংবা লাঠি দিয়ে ভেঙে ফেলছে কয়েকজন পুলিশ কর্মী। আর এই ভিডিও সামনে আসতেই কংগ্রেস ও সিপিএম দাবি করেছে যে তৃণমূল ও পুলিশ যৌথ ভাবে বনধকে ঘিরে অশান্তির বাতাবরণ তৈরি করেছে।

বনধ ঘিরে উত্তাল মালদার সুজাপুর, একের পর গাড়ি ভাঙল পুলিশই 3

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
এদিন রাজ্য জুড়ে বনধে সব চেয়ে বড় অশান্তির খবর কে লক্ষ্য করে গুলি ও বোমা ছোড়ার অভিযোগ উঠল বনধ সমর্থনকারীদের বিরুদ্ধে। আগুন ধরিয়ে দেওয়া হয় পাঁচটি গাড়িতে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে  বিশাল পুলিশ বাহিনী ঘটনাস্থলে পৌঁছয়।  বুধবার সকাল থেকে সুজাপুরে ৩৪ নম্বর জাতীয় সড়ক অবরোধ করেন বনধ সমর্থনকারীরা। দীর্ঘ অবরোধে যান চলাচল পুরোপুরি বন্ধ হয়ে যায়। পুলিশ গিয়ে বারবার অবরোধ তুলে নেওয়ার কথা বললেও তাতে কান দেননি আন্দোলনকারীরা।

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
বেলা গড়ালে জাতীয় সড়ক অবরোধ মুক্ত করার জন্য চাপ সৃষ্টি করে পুলিশ। তখনই পুলিশের সঙ্গে আন্দোলনকারীদের বচসা শুরু হয়। বেধে যায় ধস্তাধস্তি।পুলিশের দাবি, এ সময় পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ও বোমা ছোড়া হয়। এরপরেই পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে টিয়ার গ্যাসের শেল ছুড়তে শুরু করে পুলিশ। শূন্যে গুলি ছোড়া হয় বলেও অভিযোগ। তারপরেই আরও উত্তপ্ত হয়ে ওঠে গোটা এলাকা।

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
পুলিশের তিনটি গাড়িতে আগুন ধরিয়ে দেয় উত্তেজিত জনতা। আগুন লাগানো হয় দুটি প্রাইভেট গাড়িতেও। অবস্থা সামাল দিতে পদস্থ পুলিশকর্তারা বিশাল বাহিনী নিয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে যান। পৌঁছয় দমকলও।জেলার পুলিশ সুপার অলোক রাজোরিয়ার নেতৃত্বে এলাকায় টহল দিচ্ছে পুলিশ। তৃণমূলের তরফে আভিযোগ তোলা হয় বনধের নামে গুন্ডামি করেছে বনধ সমর্থকরা। যদিও এই ভিডিও সামনে আসার পর অস্বস্তিতে শাসকদল। 

Previous articleসাত সকালেই ইরানে দুর্ঘটনার কবলে ইউক্রেনের বিমান, ১৭০ জনের মৃত্যুর আশংকা
Next articleকর্তৃপক্ষের বাধা সরিয়েই জেএনইউর পাশে দাঁড়াল আইআইটি খড়গপুর, ধিক্কার গর্জে উঠল মুখ ঢাকা গুন্ডাদের বিরুদ্ধে