করোনা নেগেটিভ বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যের! উন্নতি স্বাস্থ্যের, স্বস্তিতে গুনগ্রাহীরা

274
করোনা নেগেটিভ বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যের! উন্নতি স্বাস্থ্যের, স্বস্তিতে গুনগ্রাহীরা 1

নিউজ ডেস্ক: কলকাতা: আশঙ্কার মুক্তি ঘটিয়ে করোনা নেগেটিভ রেজাল্ট আসল রাজ্যের প্রাক্তন মূখ্যমন্ত্রী বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যের। শ্বাসকস্টের সমস্যা নিয়ে দক্ষিণ কলকাতার এক বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি রাজ্যের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য। এরপরই তাঁর করোনা পরীক্ষার জন্য নমুনা সংগ্ৰহ করা হয়। এই পরীক্ষার ফলাফল আসার জন্য অন্ততঃ ৩ঘন্টা সময় লাগে। ফলে গভীর আশঙ্কা নিয়ে সেই তিনঘন্টা কেটেছে তাঁর সহকর্মী ও গুনগ্রাহীদের। বিকেল নাগাদ আসল স্বস্তির খবর। করোনা টেষ্টের রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছে তাঁর। ইতিমধ্যে তার শরীরে অক্সিজেনের মাত্রা কিছুটা স্বাভাবিক হয়েছে।

মঙ্গলবার অবদি পাম অ্যাভিনিউয়ের বাড়িতে চিকিৎসক ফুয়াদ হালিমের পর্যবেক্ষণে ছিলেন বাম নেতা বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য। দীর্ঘদিন তিনি জটিল শ্বাসকষ্ট বা COPD সমস্যায় ভুগছেন।সম্ভবত আবহাওয়া পরিবর্তনের জেরে তিনি অসুস্থ হয়ে পড়েন বুধবার। শরীরে অক্সিজেনের মাত্রা মারাত্মক ভাবে কমে যায়। এরপরই তাকে ভর্তি করা হয় উডল্যান্ডস হাসপাতালে।যদিও এবিষয়ে সিপিআইএম-এর তরফে এদিন দুপুর পর্যন্ত কিছু জানানো হয়নি।

করোনা নেগেটিভ বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যের! উন্নতি স্বাস্থ্যের, স্বস্তিতে গুনগ্রাহীরা 2

উডল্যান্ডস হাসপাতালে আনার পর বুদ্ধবাবুকে প্রথমে ফ্লু ক্লিনিকে রাখা হয়।সেখানেই করোনা টেষ্ট সহ বাকি কিছু প্রাথমিক পরীক্ষা করে ভর্তি নেওয়া হয়। ইতিমধ্যে চার সদস্যের মেডিকেল বোর্ড গঠন করা হয়েছে তার চিকিৎসার জন্য।সিটি স্ক্যান সহ অনান্য কিছু পরীক্ষা করা হবে তার।  উল্ল্যেখ ২০০০-১১ সাল পর্যন্ত রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী থাকাকালীন তিনি বেশ কয়েকবার শ্বাসকষ্টজনিত সমস্যায় ভুগেছেন।তার বর্তমান বয়স ৭৬ বছর।
অক্টোবর মাসে দুর্গাপুজোর অষ্টমীর রাতে তার পাম অ্যাভিনিউয়ের বাড়িতে গিয়েছিলেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়।সাক্ষাতের ছবি টুইট করেছিলেন তিনি।তখনো বিছানায় শয্যাশায়ী ছিলেন বুদ্ধবাবু।

এদিকে প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীর শারীরিক পরিস্থিতি অবনতির কথা জেনে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন বর্তমান মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।এদিন টুইটে তিনি বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যের দ্রুত আরোগ্য কামনা করেছেন। এদিন সন্ধ্যায় তিনি হাসপাতালে যান।সেখানে চিকিৎসকদের সঙ্গে বুদ্ধবাবুর শারীরিক পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা করেন।কথা বলেন বুদ্ধ তনয়া সুচেতনার সঙ্গে।

তার চিকিৎসায় সরকারি কোনো সাহায্যের দরকার হলে তা রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে করা হবে বলে তিনি আশ্বাস দেন। বুদ্ধবাবুকে দেখতে এদিন বিকেলে হাসপাতালে যান সিপিএমের রাজ্য সম্পাদক সূর্যকান্ত মিশ্র,বাম সভাপতি বিমান বসু। তাঁর সুস্থতার খবের স্বস্তির হওয়া সিপিএমের রাজ্য দপ্তর আলিমুদ্দিন স্ট্রিটে। পার্টির কেন্দ্রীয় কমিটির দিল্লি কার্যালয়ের পক্ষ থেকেও খোঁজ খবর নেওয়া হয়েছে প্রাক্তন মূখ্যমন্ত্রীর।