এবার কর্মস্থলেই মিলবে করোনা ভ্যাকসিন! সরকারি এবং বেসরকারি দপ্তরগুলিতে ভ্যাকসিন দেওয়ার অনুমতি কেন্দ্রের

388
এবার কর্মস্থলেই মিলবে করোনা ভ্যাকসিন! সরকারি এবং বেসরকারি দপ্তরগুলিতে ভ্যাকসিন দেওয়ার অনুমতি কেন্দ্রের 1

নিউজ ডেস্ক: করোনা সংক্রমণ রুখতে এবার কর্মস্থলেও ভ্যাকসিন দেওয়ার অনুমতি দিতে চলেছে কেন্দ্র। দেশ জুড়ে গত কয়েকদিন ধরেই ঊর্ধ্বমুখী করোনার গ্রাফ, বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা। সংক্রমণ রুখতে বিভিন্ন রাজ্যের জারি হয়েছে করা লকডাউন। গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্তের সংখ্যা ১ লক্ষ ১৫ হাজারের বেশি। দেশে দৈনিক মৃত্যুর সংখ্যাও বেড়েছে। বেড়েছে দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যা। এ রাজ্যেও গত কয়েকদিনে হু হু করে বেড়েছে আক্রান্তের সংখ্যা। দৈনিক সংক্রমণের সংখ্যা দু’হাজার ছাড়িয়ে গিয়েছে। করোনা রুখতে তাই সমস্ত ব্যবস্থা নিতে তৎপর কেন্দ্র। আর এই কারণেই নিজেদের কর্মস্থলে অর্থাৎ সমস্ত সরকারি-বেসরকারি অফিসেও শুরু হচ্ছে করোনার টিকাকরণ; সিদ্ধান্ত নিতে চলছে কেন্দ্রের মোদি সরকার।

সূত্র মারফত জানা গিয়েছে, সরকারি-বেসরকারি সব অফিসেই এই সুযোগ পাওয়া যাবে। অফিসের মধ্যেই খোলা হবে টিকাকরণ কেন্দ্র৷ কোনও অফিসে যদি ভ্যাকসিন নেওয়ার বিষয়ে মোটামুটি ১০০ জন আগ্রহী থাকেন, তাহলেই সেই অফিসগুলিতে এই অনুমতি দেওয়া হবে৷

এবার কর্মস্থলেই মিলবে করোনা ভ্যাকসিন! সরকারি এবং বেসরকারি দপ্তরগুলিতে ভ্যাকসিন দেওয়ার অনুমতি কেন্দ্রের 2

আগামী ১১ এপ্রিল থেকেই এই ব্যবস্থা শুরু হতে চলেছে। এই পরিষেবা শুরু করার জন্য প্রস্তুত থাকতে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রকের তরফে সব রাজ্য এবং কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলগুলিকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে৷ তবে যাঁদের বয়স ৪৫-এর উপরে তাঁরাই এই সুবিধে পাবেন৷

প্রসঙ্গত, গোটা দেশেই সমস্ত প্রাপ্তবয়স্ক মানুষকে টিকা নেওয়ার সুযোগ করে দেওয়ার দাবী জোরাল হচ্ছে,  কারণ করোনার কারণ করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে কম বয়সি এমন কি শিশুরাও বেশি করে আক্রান্ত হচ্ছে। বৃহস্পতিবারই কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যসচিব এই বিষয়ে সব রাজ্যের মুখ্যসচিবকে চিঠি দিয়েছেন। স্থানীয় টিকাকরণ কেন্দ্রের সঙ্গে সমন্বয় রেখেই অফিসের মধ্যে টিকাকরণের ব্যবস্থা করতে হবে বলে বলা হয়েছে ৷