কুম্ভমেলার পর চারধাম! কোভিডবিধি না মেনে পুজো আয়োজনে তীব্র ভর্ৎসনার মুখে উত্তরাখণ্ড সরকার

110
Advertisement

নিউজ ডেস্ক: করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ের সংক্রমণ আটকাতে ভারতের বিভিন্ন জায়গায় লকডাউন শুরু হয়েছে।বেশ কিছুদিন আগে উত্তরাখণ্ড সরকারকে অতিমারীর মধ্যেই কুম্ভমেলার আয়োজন করে বিতর্কে পড়তে হয়েছিল। কিন্তু করোনার এই ভয়ঙ্কর পরিস্থিতির মধ্যেও এবছর উত্তরাখণ্ড সরকার চারধাম যাত্রায় অনুমোদন দিয়েছে। আর এই নিয়েই সেরাজ্যের সরকারকে রীতিমতো ভর্ৎসনা করল উত্তরাখণ্ড হাইকোর্ট।

Advertisement

হাইকোর্ট জানিয়েছে, যেভাবে করোনা অতিমারীর এই ভয়াবহ পরিস্থিতিতেও কুম্ভের পরে চারধাম যাত্রায় কোভিড বিধি মানা হচ্ছে না তা লজ্জাজনক। এদিন উত্তরাখণ্ড সরকারকে কুম্ভের পরে চারধাম যাত্রারও অনুমতি দেওয়া প্রসঙ্গে হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি আরএস চৌহান ও বিচারপতি অলোক ভার্মার বেঞ্চ রীতিমতো তিরস্কার করে। আদালত জানায়, ‘‘যান, গিয়ে দেখে আসুন সেখানে কী হচ্ছে।’’

Advertisement
Advertisement

সম্প্রতি চারধাম মন্দিরগুলি খুলে দেওয়া হয়েছে নিয়মিত প্রার্থনার জন্য। কিন্তু অভিযোগ, সেখানে সামাজিক দূরত্ব কিংবা মাস্ক পরার মতো কোভিড বিধিগুলি মানা হচ্ছে না। যদিও পর্যটন সচিব দি‌লীপ জাওয়ালকারের দাবী, প্রতিটি মন্দিরেই নির্দিষ্ট সংখ্যক পর্যবেক্ষক রয়েছেন যাতে কোভিড বিধি মানা হয়। কিন্তু আদালত এদিন জানিয়ে দেয়, সোশ্যাল মিডিয়ায় যে ছবি, ভিডিও উঠে আসছে তা এই দাবীর সপক্ষে যাচ্ছে না।

এদিন আদালত ওই প্রসঙ্গ তুলে জানায়, ‘‘কেন আমরা এভাবে আমাদের নিজেদেরই লজ্জিত করছি? আপনারা আদালতকে বোকা বানাতেই পারেন। কিন্তু মানুষকে বোকা বানাতে পারবেন না। দেশের লক্ষ লক্ষ মানুষের জীবন নিয়ে খেলছেন আপনারা।”