খড়গপুর মেদিনীপুর ঝাড়গ্রামের আকাশে আজ থেকে দেখা মিলবে মায়াবী ঝাঁটা ‘নিওওয়াইজ’

164
খড়গপুর মেদিনীপুর ঝাড়গ্রামের আকাশে আজ থেকে দেখা মিলবে মায়াবী ঝাঁটা 'নিওওয়াইজ' 1

নিজস্ব সংবাদদাতা: উত্তর গোলার্ধের সন্ধ্যার আকাশে মঙ্গলবার দেখা মিলবে সেই মায়াবী ঝাঁটার যার অগ্নিগোলকের পেছন দিক থেকে কয়েক কিলোমিটার ছড়িয়ে থাকবে সোনালী আলোর বিচ্ছুরন, সব কিছু মিলিয়ে সে এক মায়াবী ঝাঁটা। সারাদেশের মতই ভাগ্যবান খড়গপুর মেদিনীপুর ঝাড়গ্রামবাসী, খালি চোখেই তার দর্শন করা যাবে। কারন আজ এখনও অবধি মেঘমুক্ত আকাশ। তাই এই দুর্লভ দৃশ্য যাঁরা দেখতে চান, চোখ রাখুন সপ্তর্ষিমণ্ডলের গা ঘেঁষে।

ঝাড়গ্রাম জেলার বিজ্ঞান মঞ্চের সম্পাদক কুনাল দে জানিয়েছেন, ” দিগন্ত রেখার ২০ ডিগ্রি ওপরে উত্তর পশ্চিম আকাশে এই মহাজাগতিক দৃশ্যের সম্মুখীন হতে চলেছি আমরা। এই দৃশ্য আমাদের সবারই দেখা উচিৎ কারন এই উজ্জ্বল বর্ণময় ধূমকেতু টি ফিরে আসবে ৬৮০০ বছর পরে।”

কুনাল জানিয়েছেন, “এই ধূমকেতুটির নাম সংক্ষেপে নিওওয়াইজ। এই নামকরনের কারন মার্চ মাসে নিওওয়াইজ নামের একটি দূরবীন থেকেই এর অস্তিত্ব প্রথম ধরা পড়ে। তাই দূরবীনের নামেই এর নামকরন।” বিজ্ঞানীরা জানিয়েছেন, ধূমকেতুর পুরো নাম সি২০২০/এফ৩ নিওওয়াইজ। ২৭ মার্চ এই নামে একটি ধূমকেতুর সন্ধান পেয়েছিলেন নাসার বিজ্ঞানীরা। আজ, মঙ্গলবার থেকে উত্তর গোলার্ধের মানুষ খালি চোখে দেখতে পাবেন সেই ধূমকেতুকে। সন্ধের পর অন্তত ২০ মিনিট। উত্তর-পশ্চিম দিকে, সপ্তর্ষিমণ্ডলের খুব কাছে।

আরও পড়ুন -  অনাহারে, বিনাচিকিৎসা, অবসাদে মৃত্যু ৫৩,দুর্ঘটনায় ৩৫, সংঘর্ষে ৭ নিয়ে লকডাউনের ফলে মৃত্যু ছাড়ালো ২০০

নাসার বিজ্ঞানীরা জানিয়েছেন, সওয়া শতকে এটাই উত্তর গোলার্ধ থেকে দেখতে পাওয়া সবচেয়ে উজ্জ্বল ধূমকেতু হতে চলেছে। এমনিতে ধূমকেতু হল জমাট বাঁধা গ্যাস, পাথর আর ধুলোয় ভরা তুষারগোলক। সূর্যের কাছে এলে গরম হয়ে গলতে শুরু করে, তখন বেরিয়ে আসে গ্যাস আর ধুলো। তাতেই জ্বলজ্বল করতে দেখা যায় ধূমকেতুকে। নিওওয়াইজ ধূমকেতুটিও তার কক্ষপথে ঘুরতে ঘুরতে সূর্যের কাছে চলে আসে। তখন তা ধরা পড়ে নাসার বিজ্ঞানীদের চোখে। এক সপ্তাহ আগে মঙ্গল গ্রহের কক্ষপথে ছিল, এ বার আগামী দু’সপ্তাহে পৃথিবীর দিকে এগিয়ে আসবে পাঁচ কিলোমিটার ছড়ানো ধূমকেতুটি।

আরও পড়ুন -  সমস্যা সেই চাল চোরই , মাস ফুরালেই ফের রেশন, চিন্তায় প্রশাসন

মহাকাশ বিজ্ঞানীদের মতে , ১৪ জুলাই থেকে উত্তর-পশ্চিম আকাশে পরিষ্কার দেখা যাবে ধূমকেতুটিকে। সূর্য ডুবে যাওয়ার পর অন্তত ২০ মিনিট। আগামী ২০ দিন খালি চোখেই দেখা যাবে ধূমকেতুটিকে। দিন যত জুলাইয়ের শেষের দিকে এগোবে, তত আকাশে সুস্পষ্ট হবে, দেখতে পাওয়ার সময়সীমাও বাড়বে। জানা গেছে ৩০ জুলাই নাগাদ সপ্তর্ষিমণ্ডলের কাছে প্রায় এক ঘণ্টা ধরে দেখা যাবে ধূমকেতুটিকে। জুলাইয়ের পর খালি চোখে আর ভালো করে দেখা যাবে না। তবে মধ্য অগস্ট পর্যন্ত বাইনোকুলারের সাহায্যে ধূমকেতুতে চোখে রাখা যেতে পারে।

আরও পড়ুন -  সামলানো যাচ্ছে না ভিড়, মেট্রো চালুর ১০ দিনের মধ্যেই বাড়ছে নর্থ-সাউথ মেট্রোর সংখ্যা

কুনাল আরও জানিয়েছেন, ২২শে জুলাই পৃথিবীর সবচেয়ে কাছে আসবে ওই ধূমকেতুটি। সেই সময় পৃথিবী থেকে নিওওয়াইজের দূরত্ব দাঁড়াবে ১০ কোটি ৩০লক্ষ কিলোমিটার। তবে আজ না দেখতে পেলেও মন খারাপ করবেননা। আপাতত আছে এই মায়াবী ঝাঁটা

খড়গপুর মেদিনীপুর ঝাড়গ্রামের আকাশে আজ থেকে দেখা মিলবে মায়াবী ঝাঁটা 'নিওওয়াইজ' 2