করোনা রিপোর্ট নেগেটিভ! তা সত্ত্বেও মৃত্যু হল কোচবিহারের প্রাক্তন যুব তৃণমূল কংগ্রেস সভাপতি বিষ্ণুব্রত বর্মনের

117

ওয়েব ডেস্ক : করোনা উপসর্গ থাকা সত্ত্বেও রিপোর্ট নেগেটিভ! অথচ গুরুতর অসুস্থ হয়ে মৃত্যু হল কোচবিহারের প্রাক্তন যুব তৃণমূল কংগ্রেস সভাপতি বিষ্ণুব্রত বর্মন। বেশ কিছুদিন যাবৎ অসুস্থ ছিলেন তিনি। ক্রমশ তাঁর শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে তড়িঘড়ি কলকাতার হাসপাতালে ভর্তি করা হলে শারীরিক অবস্থা আরও খারাপ হতে শুরু করে৷ এক পর্যায়ে প্রবল শ্বাসকষ্ট শুরু হয়। এরপর চিকিৎসকরা অনেক চেষ্টা করলেও শেষরক্ষা হল না। অবশেষে বুধবার মৃত্যুর মৃত্যু হয় কোচবিহারের প্রাক্তন যুব তৃণমূল কংগ্রেস সভাপতি বিষ্ণুব্রতবাবু।

জানা গিয়েছে, বেশ কিছুদিন ধরেই জ্বর-শ্বাসকষ্ট সহ একাধিক উপসর্গে ভুগছিলেন কোচবিহারের প্রাক্তন যুব তৃণমূল কংগ্রেস সভাপতি তথা কোচবিহার জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক বিষ্ণুব্রত বর্মন। এরপর একপ্রকার সন্দেহের বসেই কোচবিহার মেডিক্যাল কলেজে ট্রুনাট মেশিনে তাঁর করোনা পরীক্ষা করা হয়েছিল। সেই সময় তার করোনা রিপোর্ট পজিটিভ আসে। এরপর তাকে কোচবিহার মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তিনি সত্যিই করোনায় আক্রান্ত কিনা তা নিশ্চিত হতে হাসপাতালের তরফে সরকারিভাবে ফের তাঁর লালারসের নমুনা পরীক্ষা করা হলে সেসময় নেগেটিভ রিপোর্ট আসে। কিন্তু রিপোর্ট নেগেটিভ এলেও ক্রমশ ওই তৃণমূল নেতার শারীরিক অবস্থার অবনতি হতে থাকে। এরপর সংকটজনক অবস্থায় তাকে শিলিগুড়ির একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। কিন্তু সেখানেও একই অবস্থা। কোনোভাবেই তাঁর অবস্থার উন্নতি হচ্ছিল না বরং আরও অবনতি হতে থাকে। এরপর আর দেরি না করে পরিবারের তরফে বিষ্ণুব্রতবাবুকে কলকাতার হাসপাতালে ভর্তির সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

এরপর মঙ্গলবার রাতেই শাসক দলের ওই নেতাকে গাড়িতে শিলিগুড়ি থেকে কলকাতা নিয়ে আসা হয়েছিল। রাতেই কলকাতার একটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল তাকে। শুরু হয়েছিল চিকিৎসা। কিন্তু সংকটজনক অবস্থার মধ্যে নানান হাসপাতাল ঘোরার ফলে আর ধকল সহ্য করতে পারেননি শাসকদলের ওই নেতা। করোনা যুদ্ধে পরাজিত হয়ে বুধবার সকালে হাসপাতালেই মৃত্যু হয় বিষ্ণুব্রতবাবুর। তবে রিপোর্ট নেগেটিভ আসার পরও ঠিক কি কারণে বিষ্ণুব্রতবাবুর মৃত্যু হল তা এখনও পর্যন্ত জানা যায়নি।

আরও পড়ুন -  তৃণমূলে যোগ না দেওয়ার বিজেপির বুথ সভাপতিকে অপহরনের অভিযোগ তৃণমূলের বিরুদ্ধে

তবে কি বিষ্ণুব্রতবাবু করোনা পজিটিভ হওয়া সত্ত্বেও সরকারিভাবে করোনা পরীক্ষার রিপোর্ট ভুল এসেছিল? এই নিয়ে নানান প্রশ্ন উঠলেও আদতে এবিষয়ে এখনও পর্যন্ত কিছুই জানা যায়নি। প্রাক্তন যুব তৃণমূল সভাপতির মৃত্যুতে শোকাহত দলের নেতা-কর্মীরা। প্রসঙ্গত, কোচবিহার জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক বিষ্ণুব্রত বর্মন দীর্ঘদিন ধরেই খেলাধুলোর সঙ্গে জড়িত ছিলেন। অসুস্থতার খবর পাওয়া মাত্রই তাঁর খোঁজ নিয়েছিলেন সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়। প্রাক্তন যুব তৃণমূল নেতার মৃত্যুতে স্বাভাবিকভাবেই শোকস্তব্ধ রাজনৈতিক মহল

করোনা রিপোর্ট নেগেটিভ! তা সত্ত্বেও মৃত্যু হল কোচবিহারের প্রাক্তন যুব তৃণমূল কংগ্রেস সভাপতি বিষ্ণুব্রত বর্মনের 1