করোনায় কাবু বিশ্বের সিকি কোটি, ৪০হাজার মৃত মার্কিন মুলুকেই, ভারতে মৃত্যু ৫০০ ছাড়াল, আক্রান্ত ১৭হাজারেরও বেশি

312
Advertisement

নিজস্ব সংবাদদাতা: ২৪লক্ষ ছাড়িয়ে ২৫লক্ষ বা সিকি কোটির দিকে হাঁটছে বিশ্ব যা পূরন হতে ২৪ঘন্টার কিছু বেশি সময় লাগবে কারন বিশ্বের কয়েকটি দেশে অনিয়ন্ত্রিত অবস্থায় কোভিড -১৯, যার মধ্যে রয়েছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র যার মৃত্যুর সংখ্যা রবিবার রাতের হিসাবে বিশ্বের মোট মৃত্যুর সংখ্যার এক চতুর্থাংশেরও বেশি। সে দেশে মৃত্যু হয়েছে ৪০হাজারেরও বেশি আর বিশ্ব জুড়ে মৃত্যুর সংখ্যা ১লক্ষ ৬৫হাজার ছাড়িয়ে।

Advertisement

করোনায় বিশ্বে আক্রান্ত হয়েছেন এখনও অবধি ২৪লক্ষ মানুষ। আমেরিকার জন হপকিন্স বিশ্ব বিদ্যালয়ের তথ্য অনুসারে সে দেশে আক্রান্তের সংখ্যা ৭ লক্ষ ৫০ হাজার।
অবস্থা খুব ভাল নয় ইওরোপের। স্পেন (১৯৮,৬৭৪ আক্রান্তের মধ্যে মৃত ২০,৪৫৩ ) এই হিসাবে ইতালি (১৭৮,৯৭২এবং ২৩,৬৬০), ফ্রান্স (১৫৪,০৯৮ এবং ১৯,৭৭৮),জার্মানি (১৪৫,৭৪২ এবং ৪,৬৪২ deaths) গ্রেট বৃটেন(১২১,১৭২ এবং ১৬, ০৬০)।

Advertisement
Advertisement

এবার ভারতের অবস্থাটা দেখা যেতে পারে। এখনও অবধি ৪লক্ষ মানু্ষের কোভিড-১৯ পরীক্ষা করা হয়েছে যার মধ্যে আক্রান্ত হয়েছেন ১৭ হাজার ২৬৫জন। মৃত্যু হয়েছে এখনও অবধি ৫৪৩জনের। আর করোনা মুক্ত হয়েছেন ২.৫৪৬ জন। বর্তমানে করোনা পজিটিভ ১৪,১৭৫। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী হর্ষবর্ধন আশার কথা শুনিয়ে বলেছেন আক্রান্তের সংখ্যা কিছুটা রোধ করা সম্ভব হয়েছে। লকডাউন শুরুর সময় আক্রান্তের সংখ্যা যেখানে প্রতি ৩দিনে দ্বিগুন হচ্ছিল বর্তমানে সেই সংখ্যাটি বর্তমানে প্রতি ৯.৭দিনে হচ্ছে। যদিও এটাতে উৎফুল্ল হওয়ার কিছু নেই, সংখ্যাটা ঝড়ের গতিতেই উল্টে যেতে পারে।
দেশের আশংকা জাগাচ্ছে সেই মহারাষ্ট্রই যেখানে সোমবার সকাল আটটায় প্রাপ্ত হিসাব অনুযায়ী ২৩৩ জনের মৃত্যু নিয়ে আক্রান্ত ৪২০৩।

পরেই রয়েছে রাজধানী দিল্লি যেখানে আক্রান্তের সংখ্যা ২০০৩। তৃতীয় স্থানটি উল্লেখ যোগ্য এই কারনেই যে এই স্থানে কখনও তমিলনাডু(১৪৭৭)বা রাজস্থান(১৪৭৮)অথবা মধ্যপ্রদেশ(১৪০৭) থাকলেও এখন তারা পেছনে,ভয়াবহ ভাবে উঠে আসছে গুজরাট যেখানে মৃত্যুর সংখ্যা ১৭৪৩। উত্তরপ্রদেশে আক্রান্ত ১০৮৪ ও তমিলনাডুতে আক্রান্ত ৮৪৪। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যান মন্ত্রকের হিসাব ধরেই বাংলা পশ্চিম বাংলায় আক্রান্ত এই হিসাব ধরেই ৩৩৯। রাজ্যের স্বাস্থ্য বিভাগের হিসাবে অবশ্য সংখ্যাটি ১৯৮ আর এখনও অবধি মৃত্যুর সংখ্যা ১২। সেই কেন্দ্রের হিসাব মতই  বাংলার ওপরে অবশ্য অন্ধ্রপ্রদেশ(৬৪৬), কেরল(৪০২) , কর্ণাটক(৩৯৯),জম্মুকাশ্মীর(৩৫০)রয়েছে। বাংলার নিচে অবস্থান করছেন পাঞ্জাব (২১৯) হরিয়ানা (২৩৩), ওড়িশা (৬৮) এবং বাকি রাজ্যগুলি।