উদ্বেগ বাড়াচ্ছে করোনা; দেশ জুড়ে করোনার তাণ্ডব, দৈনিক সংক্রমণের সংখ্যা ছাড়ালো ১ লক্ষের গণ্ডি

294
উদ্বেগ বাড়াচ্ছে করোনা; দেশ জুড়ে করোনার তাণ্ডব, দৈনিক সংক্রমণের সংখ্যা ছাড়ালো ১ লক্ষের গণ্ডি 1

নিউজ ডেস্ক: করোনার প্রকোপ বাড়ছে দিন প্রতিদিন, একদিনে আবারও নতুন রেকর্ড গড়ল করোনা। দেশে দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যা পেরিয়ে গেল ১ লক্ষ সীমানা। রবিবারের তুলনায় এক লাফে দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে গেল ১০ হাজার। এদিন কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রক জানিয়েছে, গত ২৪ ঘণ্টায় দেশজুড়ে আক্রান্ত হয়েছেন ১ লক্ষ ৩ হাজার ৫৫৮ জন। দেশে এই প্রথম এক লক্ষ পেরোল করোনা সংক্রমিতের সংখ্যা। এর আগে ১৬ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ভারতে আক্রান্তের সংখ্যা ছিল ৯৭ হাজার ৮৯৪।

দেশে এখনও পর্যন্ত  করোনায় মৃত্যু হয়েছে ১ লক্ষ ৬৫ হাজারের বেশি।  আক্রান্তের সংখ্যা ১ কোটি ২৫ লক্ষ ৮৯ হাজারের বেশি। এরই মধ্যে করোনাকে পরাস্ত করে সুস্থ হয়েছেন ১ কোটি ১৬ লক্ষ ৮২ হাজার ১৩৬।

উদ্বেগ বাড়াচ্ছে করোনা; দেশ জুড়ে করোনার তাণ্ডব, দৈনিক সংক্রমণের সংখ্যা ছাড়ালো ১ লক্ষের গণ্ডি 2

গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনার কোপে মৃত্যু হয়েছে ৪৭৮ জনের। রবিবার দৈনিক মৃত্যুর সংখ্যা ছিল ৫১৩। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে আক্রান্তের সংখ্যা ১ লক্ষ ৩ হাজার ৫৫৮ জন। এদিন দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যা ছিল ৯৩ হাজার ২৪৯। গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ৫২ হাজার ৮৪৭ জন। দৈনিক সুস্থতার সংখ্যা ছিল ৬০ হাজার ৪৮ জন। দেশে মৃত্যুর হার ১ দশমিক ৩১ শতাংশ।  দেশে সুস্থতার হার ৯২ দশমিক ৮০ শতাংশ।

বিশ্বের বর্তমান করোনা পরিসংখ্যান বলছে দৈনিক আক্রান্তের নিরিখে ফের বিশ্বের অন্যান্য দেশকে পিছনে ফেলে দিচ্ছে ভারত। এমনকী করোনা তালিকায় ভারতের উপরে থাকা আমেরিকা, ব্রাজিলের রেকর্ডও ফের পাঁচ মাস পর ভাঙতে শুরু করেছে ভারত। আর তাতেই বাড়ছে উদ্বেগ। যদিও মোট সংক্রমণের নিরিখে এখনও বিশ্ব করোনা তালিকায় শীর্ষ স্থানে রয়েছে আমেরিকা। তারপরেই রয়েছে ব্রাজিল।

আমাদের দেশে করোনার সবচেয়ে বেশি তাণ্ডব চালাচ্ছে মহারাষ্ট্রে। রবিবার দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যা ৫৭ হাজার পার করেছে । বাণিজ্য নগরি মুম্বাইতে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৪ লক্ষ ৫২ হাজার ৪৪৫ জন। ২৪ ঘন্টায় মৃত্যু হয়েছে ২৫ জনের ।মহারাষ্ট্রে দ্রুত হারে করোনার সংখ্যা বাড়তে থাকায় রাতের কার্ফু-সহ বেশ কিছু কড়া সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছেন রাজ্য সরকার। রাত্রিকালীন কার্ফু শুরু হবে রাত ৮ টা থেকে সকাল সাতটা পর্যন্ত। মহারাষ্ট্র ছাড়াও দিল্লি, পাঞ্জাব, হরিয়ানা, কর্ণাটক, কেরল, ছত্তিশগড়, চণ্ডীগড়, গুজরাট, মধ্যপ্রদেশর মতো রাজ্যগুলিতেও চিন্তা বাড়াছে করোনা, বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা।

পিছিয়ে নেই আমাদের বাংলাও, ভোটের উত্তাপের সঙ্গে সঙ্গে পাল্লা দিয়ে উদ্বেগ বাড়াচ্ছে করোনাও। রবিবার, ৪ এপ্রিল রাজ্যে মোট ১৯৫৭ জন নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। এদিন রাজ্যে মোট ২৬ হাজার ৭৬৮ জনের করোনা পরীক্ষা করা হয়েছে। নতুন করে সংক্রমণ বাড়ায় উদ্বেগে চিকিৎসক ও বিশেষজ্ঞরা। সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউয়ে ভারতে কি আরও ভয়াবহ হয়ে উঠছে করোনা? সেকেন্ড ওয়েভে দৈনিক সংক্রমণ কি এক লক্ষের গণ্ডি পার করে দেবে? এই আশঙ্কাই করছিলেন চিকিৎসক ও বিশেষজ্ঞরা, সেই আশঙ্কাই সত্যি করে সোমবার করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দৈনিক ছাড়িয়ে গেল ১ লক্ষের সীমানা।