তিন তিনটে ক্যাচ মিস করে কটকে ৩১৬ রানের পাহাড়ের মুখে ভারত

180
তিন তিনটে ক্যাচ মিস করে কটকে ৩১৬ রানের পাহাড়ের মুখে ভারত 1
তিন তিনটে ক্যাচ মিস করে কটকে ৩১৬ রানের পাহাড়ের মুখে ভারত 2
গৌরনাথ চক্রবর্ত্তী: ক্যাচ মিস তো ম্যাচ মিস! ক্রিকেটের সেই প্রবাদই কি সত্যি হতে চলেছে কটক স্টেডিয়ামেরা তৃতীয় এক দিবসীয় ভারত ওয়েস্টইন্ডিজ ম্যাচে? কটকে  সিরিজের নির্ণয়াক তথা তৃতীয় একদিনের  ম্যাচে টসে জিতে ফিল্ডিং করার সিদ্ধান্ত নেন ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলি। আর সেই ফিল্ডিংয়ের হালই এরকম।

তিন তিনটে ক্যাচ মিস করে কটকে ৩১৬ রানের পাহাড়ের মুখে ভারত 3

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
একই ম্যাচে তিনটি নিশ্চিত ক্যাচ মিস! ফের ফসকে যাওয়া সুযোগগুলিই ভোগালো ভারতকে। নাহলে, একটা সময় যে ক্যারিবিয়ানদের দেখে মনে হচ্ছিল আড়াইশোর গণ্ডি পেরতে পারবে না। তাঁরাই কিনা শেষপর্যন্ত পৌঁছে গেল ৩১৫ রানে। আর এর অন্যতম কারণ ক্যাচ মিস। গোটা ম্যাচে অন্তত ৩টি নিশ্চিত সুযোগ মিস করলেন ভারতীয় ফিল্ডাররা।

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
ক্যাচ মিসের তালিকায় সবার আগে নাম উঠবে ঋষভ পন্থের। ম্যাচের ২৫ তম ওভারে উইকেটের পিছনে নিশ্চিত ক্যাচ মিস করলেন পন্থ। তাও আবার বিপজ্জনক সিমরন হেটমেয়ারের। তখন তিনি মাত্র ৯ রানে ব্যাট করছিলেন। পন্থের এই মিসের আগেই অবশ্য, একটি কঠিন সুযোগ মিস করেন জাদেজা। এভিন লুইসের একটি শট পয়েন্ট দাঁড়িয়ে তালুবন্দি করতে ব্যর্থ হন তিনি।

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
জাদেজার মতো ফিল্ডারের কাছে যা একেবারেই প্রত্যাশিত নয়। এরপর আবারও আসরে নামেন পন্থ। রস্টন চেজের একটি ক্যাচ ফসকে যায় তাঁর হাত থেকে। এই তিনটি ক্যাচ মিস না করলে, হয়তো প্রথম ইনিংসে আরও আগেই আটকে যেত ওয়েস্ট ইন্ডিজ।ভারতের ক্যাচ মিসের জেরেই হোক, আর স্লগ ওভারের ব্যর্থতার জেরেই হোক। শেষপর্যন্ত ৩১৫ রান তুলে ফেলল ওয়েস্ট ইন্ডিজ।

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
৮৯ রানের দুর্দান্ত ইনিংস খেলেন পুরান। এদিন অনবদ্য রেকর্ডের মালিক হয়েছেন সাই হোপ। দ্রুততম ক্যারিবিয়ান ব্যাটসম্যান হিসেবে ৩ হাজার রানের গণ্ডি পেরিয়ে যান তিনি। পাশাপাশি এদিন পোলারও করেছেন  বিধ্বংসী ব্যাটিং। লুইস ৫০ বলে ২১ রান করেন। রস্টন চেজ ৪৮ বলে ৩৮ রান করেন। হোপ ৫০ বলে ৪২ রান করেন।

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
এদিন হেটমায়ার ৩৩ বলে ৩৭ রান করেন। পুরান ৬৪ বলে ৮৯ রান করেন। পোলার্ড ৫১  বলে ৭৪  রান করে অপরাজিত থাকেন।ওয়েস্ট ইণ্ডিজ নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৫ উইকেটে ৩১৫ রান তোলে।ভারতের পক্ষে শার্দুল ঠাকুর, জাদেজা ও শামি প্রত্যেকেই একটি করে উইকেট পান। সাইনি ২ টি উইকেট  পান। এখন দেখার যে ৩১৬ রান তুলে নির্ধারক ম্যাচের শেষ হাসি হাসতে পারে কিনা কোহলির দল।

Previous articleমুখ্যমন্ত্রী এখানে ক্যা ক্যা করছেন আর দিল্লি গিয়ে ব্যা ব্যা; পিংলায় মমতাকে বিঁধলেন সুজন
Next articleকবিতার সংজ্ঞা অনুসন্ধানে চাঁদের হাট, প্রকাশ পেল জ্বলদর্চির নববর্ষ সংখ্যা