দৈনিক সংক্রমনে বাড়ছে মেদিনীপুর শহর, কমছে খড়গপুর! ঘাটাল মহকুমায় ফের মাথা চাড়া দিচ্ছে করোনা

On dated 14/5/2021 total positive case 482( RTPCR : 224, Antigen 228, Trunat 30) In Kharagpur city, the number of affected people has come down around to 75. As usual, the hotbed area of ​​the city is Inda. 6 people were affected in Inder Bamunpara. Along with him, 15 victims were found in the area including Kamalakebin, Khargeshwar temple area. Also 2 people in South India including the new neighborhood. 6 people were attacked in Malch area including Chandipur. 4 victims have been found from Nimpura. 3 attacked in Koushlya, Kharida including Bidhanpalli, Jhapetapur, New Development area. Two victims were found from Barbetia, Bhagwanpur, Purigate, Arambati, Subhash Palli, Talbagicha and IIT campuses. At least 1 person is infected Bara Ayma, Sonamukhi, New Settlement, Old Settlement, Traffic, Chhota Tangra, Prembazar, Bhabanipur and Chandimandir areas. The exact address of the 10 victims in the city was not known. 32 people affected by railway workers or their families.

178
Advertisement

নিজস্ব সংবাদদাতা: গত প্রায় ১সপ্তাহ যাবৎ মেদিনীপুর শহরে করোনার দৈনিক সংক্রমনের যে বাড়বাড়ন্ত শুরু হয়েছিল ১৪তারিখও সেই ধারা বজায় থাকল। অন্যদিকে তুলনামূলক ভাবে খড়গপুর শহরে সংক্রমনের হার কিছুটা কম। জেলা স্বাস্থ্য দপ্তরের হিসাব অনুযায়ী ১৪ই মে জেলায় আক্রান্তের সংখ্যা ৫০০ কিছু কমে ৪৮২জন হয়েছে। এদিন আরটি/পিসিআর পরীক্ষায় ২২৪, আ্যন্টিজেন পরীক্ষায় ২২৮ এবং ট্রুনাট পরীক্ষায় ৩০জনের শরীরে করোনার অস্তিত্ব পাওয়া গেছে।

Advertisement

শুক্রবার জেলা স্বাস্থ্য দপ্তর নতুন করে করোনা পজিটিভের যে নথি তৈরি করেছে তাতে মোটামুটি ভাবে মেদিনীপুর শহরে ১৫৫ থেকে ১৬০ জন নতুন আক্রান্ত। অর্থাৎ জেলার মোট আক্রান্তের ৩৩শতাংশ দখল করে নিয়েছে মেদিনীপুর শহর। এদিন নির্দিষ্ট ঠিকানা বিহীন মেদিনীপুর শহরের ১০ জন আক্রান্তের খোঁজ পাওয়া গেছে।
সর্বাধিক আক্রান্ত পাওয়া গেছে কুইকোটা ও রাঙামাটি এলাকা থেকে। দুই জায়গায় ১৩ জন করে আক্রান্ত। দ্বিতীয় সর্বাধিক আক্রান্ত মির্জাবাজার, যেখানে আক্রান্ত ৮জন। তৃতীয় আক্রান্তের এলাকায় রয়েছে হবিবপুর, আবাস, নজরগঞ্জ। এখানে ৭জন করে আক্রান্ত পাওয়া গেছে। যেটা নজর করার মত যে গত কয়েকদিন ধরে এই এলাকা থেকেই অত্যধিক আক্রান্তের খবর আসছে এবং এই জায়গা গুলিই শহরের হটবেড।

Advertisement
Advertisement

এদিন ৬জন করে আক্রান্ত হয়েছেন পালবাড়ি, পুলিশ লাইন ও ধর্মাতে। ৪ জন করে আক্রান্ত পাটনা বাজার, কোতবাজারে। ৩জন করে আক্রান্ত পাওয়া গেছে সুকান্তপল্লী, তোড়াপাড়া, তাঁতিগেড়িয়া, তলকুই, বক্সীবাজার, চিড়িমারসাই, কেরানিতলা, রবীন্দ্রনগর, অশোকনগর, বল্লভপুর এলাকায়। ২ কিংবা তার কম আক্রান্ত পাওয়া গেছে কর্নেলগোলা, গোলকুয়াচক,ছোটবাজার , রাজাবাজার, কেরানিচটি, সিপাইবাজার ২ বাড়মানিকপুর, হাতারমাঠ,বার্জটাউন, অরবিন্দনগর, বড়বাজার, জজকোর্ট, ক্ষুদিরামনগর , নারায়নচক, মহকুমা শাসক অফিস, মাহাতাবপুর , স্কুলবাজার, সুজাগঞ্জ, গণপতিনগর, জেলাপরিষদ, শরৎপল্লী , দেশবন্ধুনগর, খাপরেল বাজার, বিধাননগর থেকে। আরও একটি যে বিষয়টি নজর করার মত তা’হল শহরের চিড়িমারসাই এবং সংলগ্ন বক্সীবাজারে সংক্রমন মাথা চাড়া দিচ্ছে। গত তিনদিন ধরেই এই এলাকা থেকে আক্রান্তের খবর আসছে। কয়েকদিন আগেই ২৬বছরের এক প্রতিভাবান তরুণের মৃত্যু হয়েছে বক্সীবাজারে।    গ্রামীন মেদিনীপুরের আমড়াকুচি (৩), খয়েরুল্লাচক (২) ও গোটগেড়া থেকে আক্রান্তের খোঁজ পাওয়া গেছে।

খড়গপুর শহরে এদিন আক্রান্ত অনেকটাই কমে ৭৫ জনের মত। যথারীতি শহরের হটবেড এলাকা ইন্দা। ইন্দার বামুনপাড়াতেই আক্রান্ত ৬জন। তার সাথে কমলাকেবিন, খড়্গেশ্বর মন্দির এলাকা সহ এই এলাকায় ১৫জন আক্রান্তের খোঁজ পাওয়া গেছে। এছাড়াও নতুন পাড়া সহ সাউথ ইন্দায় আক্রান্ত ২জন। চণ্ডীপুর সহ মালঞ্চ এলাকায় আক্রান্ত ৮জন। নিমপুরা থেকে ৪আক্রান্তের খোঁজ পাওয়া গেছে। ৩ জন করে আক্রান্ত কৌশল্যা,  বিধানপল্লী সহ খরিদা, ঝাপেটাপুর, নিউ ডেভলপমেন্ট এলাকায়। ২জন করে আক্রান্তের সন্ধান পাওয়া গেছে বারবেটিয়া, ভগবানপুর, পুরিগেট, আরামবাটি, সুভাষপল্লী, তালবাগিচা ও আইআইটি ক্যাম্পাস থেকে। নূন্যতম ১জন আক্রান্ত
বড় আয়মা, সোনামুখী, নিউ সেটেলমেন্ট, ওল্ড সেটেলমেন্ট, ট্রাফিক, ছোট ট্যাংরা, প্রেমবাজার, ভবানীপুর ও চন্ডীমন্দির এলাকায়। শহরের ১০ আক্রান্তের নির্দিষ্ট ঠিকানা জানা যায়নি। রেল কর্মী অথবা তাঁদের পরিবার থেকে আক্রান্ত ৩২ জন।

খড়গপুর গ্রামীনের বেগুনি শ্যামচক, তেলিখানা, বড়কলা, বসন্তপুর, মাতকাতপুর, শ্যামচক, মাদপুর থেকে নতুন আক্রান্তের খোঁজ পাওয়া গেছে। খড়গপুর মহকুমার ডেবরার তালবাঁধি, কুনারাম, চকলালপুর নারায়নগড়ের কোতাইসুল, কোতাইগড় ও বেলদা সদর থেকে ৩ আক্রান্ত পাওয়া গেছে। দাঁতনের একমাত্র আক্রান্তের খোঁজ মিলেছে শরশঙ্কা গাজীপুর থেকে।

মেদিনীপুর সদর মহকুমায় সংক্রমনের শীর্ষে রয়েছে গড়বেতা থানা। আক্রান্ত প্রায় ৬০জন।দেখে নিন কোথায় কত আক্রান্ত। ডাবচা ১০, গড়াবেতা ৮, রাধানগর আমলাগোড়া ৭, নয়াবসাত ৩, দ্বারিগেড়িয়া ২, বীরসিংপুর ২, লেদাগামার আমলাগোড়া ২, কেশিয়া কিয়াবনী ২, সন্ধিপুর ২, অপর্নাপল্লী ২, রাধানগর ৩, ডুমুরগেড়িয়া ২, গড়বেড়িয়া, তেলটোকা, ঝাড়বনী ফতেসিংপুর, নলপা, বগড়িডিহি, সাপদহ, গনকবাঁধি, বড় ডাবচা, দুর্লভগঞ্জ, ভেদুয়া, সরগা, কদমডিহা, বারাকুড়া।                                       গোয়ালতোড়ের নিশ্চিন্তপুর ২, মানসিংহ, আসনাশুলি, গোয়ালতোড় পেরুয়াবাঁধ, মাকলি, চাঁদড়া, বুলানপুর, শালবনি, টেসকোনাতে আক্রান্ত হয়েছেন নতুন করে
, হাসপাতাল সহ শালবনী সদরে আক্রান্ত ২০ জন। এছাড়াও সাপলি, ভাদুতলা ২, পিড়াকাটা , গোদাপিয়াশাল, ট‍্যাঁকশাল থেকে আক্রান্তের খোঁজ পাওয়া গেছে।

বেশ কয়েকদিন পরে ফের ঘাটাল মহকুমার তিন থানা এলাকায় সংক্রমন উর্দ্ধমুখী। সংক্রমন ১১০ ছাড়িয়েছে। ঘাটাল থানায় আক্রান্ত প্রায় ৭০ জন। সর্বাধিক আক্রান্ত কোন্নগর এলাকা, ১০জন। বাকি আক্রান্ত এলাকা ও আক্রান্তের সংখ্যা এরকম।,নিশ্চিন্দিপুর ৩, গোবিন্দপুর ২, শীতলপুর ৪, কুশপাতা ৪, বীরমোহনপুর ৩, গম্ভীরনগর, রামচন্দ্রপুর, , বেতগ্রাম, সাদিচক ২, সিংহপুর, মনোহরপুর, খড়ার ২, মহকুমা হাসপাতাল ৩, কিসমৎ রামচন্দ্রপুর, শ্রীরামপুর, বেলপুকুর, কৃষ্ণনগর, আলুই, কুরান, হরিদাসপুর, হরিশপুর বেরুগ্রাম, দীর্ঘগ্রাম

চন্দ্রকোনা থানার আক্রান্ত এলাকা হল নব কুঞ্জবাজার, ঠাকুরবাড়ি বাজার.,ভেলাইবনি, কুয়াপুর, ধামকুড়িয়া, কাশখুলি, কেলামি, বামারিয়া. ক্ষীরপাই, পান্ডুয়া ২, শ্রীনগর, গোপালপুর, বৌর, বালা, জয়াসিন, রামজীবনপুর ২. লাহিড়ীগঞ্জসানুর, বাঁকা।
অন্যদিকে দাসপুরের চাইপাট ৪, গোছাতি ৩, ভূঁইয়াড় ২, রামপুর ২, কিসমত, গৌরা. ছোট কামারগাছি, জালালপুর ২, কাশিনাথপুর রাধাকান্তপুর, চক চাইপাট, রাধানগর, বড় শিমুলিয়া, গোপালপুর, বেলিতোড়া, বৈকুণ্ঠপুর ২, সোনামুই, দাদপুর, বসন্তপুর, কমলপুর, রানিচক, রানা, জুনাখালি, শ্রীবড়া,জয়রামচক আদমপুর, মহিহাঘাটা, তাজপুর, দরি, বাঁশখাল, জোতশ্যাম মিলিয়ে প্রায় ৪০ আক্রান্ত পাওয়া গেছে।