দাসপুরে বিজেপি নেত্রীর কীর্তি! পতাকা তুলতে না পেরে জাতীয় পতাকা ব্যাগে ভরে বাড়ি নিয়ে গেলেন, ক্ষুব্ধ এলাকাবাসী, শো কজ করল দল

533
দাসপুরে বিজেপি নেত্রীর কীর্তি! পতাকা তুলতে না পেরে জাতীয় পতাকা ব্যাগে ভরে বাড়ি নিয়ে গেলেন, ক্ষুব্ধ এলাকাবাসী, শো কজ করল দল 1

 

ওয়েব ডেস্ক : জাতীয় পতাকা যেন বাজারের সবজি! ব্যাগে ভরে বাড়ি নিয়ে চলে গেলেন বিজেপি নেত্রী! এ হেন ঘটনায় হইচই পড়ে গেছে এলাকায়। ঘটনার খোঁজ খবর নিচ্ছে পুলিশ। জানা গেছে ওই নেত্রী আসার আগেই উত্তোলিত হয়ে গিয়েছিল জাতীয় পতাকা৷ এর জেরে ক্ষুব্ধ হয়ে ভয়ানক কান্ড ঘটিয়ে ফেললেন বিজেপি নেত্রী। জাতীয় পতাকা নামিয়ে সটান ব্যাগে ভরে বাড়ি চলে গেলেন পশ্চিম মেদিনীপুরের দাসপুরের বিজেপি নেত্রী অঞ্জুশ্রী শাসমল। এই ঘটনায় ওই বিজেপি নেত্রীর বিরুদ্ধে জাতীয় পতাকার প্রতি অসম্মানের অভিযোগ তুললেন দাসপুর এলাকার বাসিন্দারা। জাতীয়তাবাদী পার্টি হিসেবে পরিচিত বিজেপি। তাদের শ্লোগানের মধ্যেই রয়েছে ‘বন্দেমাতরম’, ‘ভারত মাতা কি জয়’ প্রভৃতি। কিন্তু আদতে যে দেশের প্রতি কোনও শ্রদ্ধাই নেই তা চোখে আঙুল দিয়ে বুঝিয়ে দিল এদিনের ঘটনা। এই ঘটনায় স্বাভাবিকভাবেই প্রশ্ন উঠছে, কিভাবে একজন রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব হয়ে কিভাবে জাতীয় পতাকার অবমাননা করে সংবিধান বিরোধী কাজ করতে পারেন?

তবে এই ঘটনায় শুধুমাত্র এলাকার বাসিন্দারাই নন, এদিন বিজেপি কর্মী-সমর্থকরাও ওই বিজেপি নেত্রী বিরুদ্ধে জাতীয় পতাকার প্রতি অসম্মানের অভিযোগ তুলে ক্ষোভে ফেটে পড়েন। তবে তা যে শুধুমাত্রই দলের মুখরক্ষার জন্য, তা বলার অবকাশ রাখে না। এবিষয়ে স্থানীয়দের তরফে জানানো হয়েছে, শনিবার সকালে পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার দাসপুর ১ নম্বর ব্লকের নন্দনপুর অঞ্চলের সৈয়দকরিম গ্রামে জাতীয় পতাকা উত্তোলন কর্মসূচি ছিল। সেই মতো অনুষ্ঠানও সম্পন্ন হয়। কিন্তু নির্দিষ্ট সময়ের কয়েকঘন্টা পরে পৌঁছান ওই বিজেপি নেত্রী। কিন্তু দীর্ঘক্ষণ অপেক্ষা করার পর নেত্রী না আসায় ততক্ষণে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করা হয়ে গিয়েছিল। তা দেখেই ক্ষুব্ধ হন অভিযুক্ত নেত্রী অঞ্জুশ্রী ঘোষ শাসমল। এরপর রীতিমতো উত্তোলন করা পতাকা নামিয়ে ব্যাগে ভরে চলে যান ওই মহিলা। এরপরই ওই বিজেপি নেত্রীর সংবিধান বিরোধী কার্যকলাপে ক্ষোভে ফেটে পড়ে গোটা গ্রাম। ঘটনাকে কেন্দ্র করে এলাকায় ব্যাপক উত্তেজনার সৃষ্টি হয়।

আরও পড়ুন -  মানু্ষের ভুলেই ভেঙে পড়েছিল বিমান, দায়ি আমেরিকাই, দায় স্বীকার করে জানাল ইরান

ঘটনায় জাতীয় পতাকার অপমান করে সংবিধান বিরোধী কাজের জন্য স্থানীয় বাসিন্দাদের তরফে অঞ্জুশ্রী দেবীর বিরুদ্ধে উপযুক্ত শাস্তি দাবি করেছেন। ঘটনায় এলাকাবাসীদের অভিযোগ, কেন অঞ্জুশ্রী দেবী এমন ঘটনা ঘটালেন তা জানতে গ্রামবাসীরা বিজেপি নেত্রীর বাড়ি গেলে তিনি রীতিমতো ঝাঁটা-কাটারি নিয়ে তাদের দিকে তেড়ে আসেন বলেও অভিযোগ করেছেন। ঘটনায় স্থানীয়দের অভিযোগ, একজন বিজেপি নেত্রী যিনি জনপ্রতিনিধি, তিনি যদি জাতীয় পতাকাকেই সম্মান না করে রীতিমতো সংবিধান বিরোধী কার্যকলাপ করেন, তবে কোনোভাবেই তিনি সাধারণ মানুষের পাশে দাঁড়ানোর উপযুক্ত নন। ঘটনায় তাকে দল থেকে বহিষ্কারের দাবি তুলেছেন দাসপুরের বাসিন্দারা।
কীর্তিময়ী এই নেত্রী আবার দাসপুর ১ ব্লকের মহিলা মোর্চার সভানেত্রী! এক সময় তৃণমূলের দাপুটে নেত্রী ও নন্দনপুর ১ গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান ছিলেন। পরে দল বদলে বিজেপিতে যোগ দেন। বিজেপির দাসপুর দক্ষিন মন্ডলের বিজেপি সভাপতি সুজিত পাল জানিয়েছেন, “এই ঘটনা মেনে নেওয়া যায়না, জাতীয় পতাকার এই অসম্মান করার অভিযোগে শো কজ করা হয়েছে।”

দাসপুরে বিজেপি নেত্রীর কীর্তি! পতাকা তুলতে না পেরে জাতীয় পতাকা ব্যাগে ভরে বাড়ি নিয়ে গেলেন, ক্ষুব্ধ এলাকাবাসী, শো কজ করল দল 2