২১শের বিধানসভায় দাঙ্গা হবেনা তো ? আশংকায় দেব , নাম না করেই কপিল মিশ্রকে দাগলেন

238
২১শের বিধানসভায় দাঙ্গা হবেনা তো ? আশংকায় দেব , নাম না করেই কপিল মিশ্রকে দাগলেন 1
২১শের বিধানসভায় দাঙ্গা হবেনা তো ? আশংকায় দেব , নাম না করেই কপিল মিশ্রকে দাগলেন 2
মেলার উদ্বোধন করছেন দেব ও সৌমেন মহাপাত্র 

নিজস্ব সংবাদদাতা:২০২১ বিধানসভা নির্বাচনে পশ্চিম বাংলায় দাঙ্গার পরিস্থিতি তৈরি করা হতে পারে বলে আশংকা প্রকাশ করলেন অভিনেতা তথা ঘাটাল থেকে নির্বাচিত সাংসদ দেব তথা দীপক অধিকারী।  আর এরজন্য এক শ্রেণীর রাজনীতিকের দায়িত্বজ্ঞানহীন আচরণ দায়ী বলে মনে করেন তিনি।
বৃহস্পতিবার রাতে ডেবরায় গ্রামীন মেলার উদ্বোধন করতে এসে দিল্লির সাম্প্রতিক দাঙ্গা প্রসঙ্গে সাংবাদিক দের প্রশ্নের উত্তরে এমনটাই জানান  তৃণমূল সাংসদ।

২১শের বিধানসভায় দাঙ্গা হবেনা তো ? আশংকায় দেব , নাম না করেই কপিল মিশ্রকে দাগলেন 3

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
দিল্লির দাঙ্গার পেছনে যে বিজেপি নেতা কপিল মিশ্রর মত লোকেরাই রয়েছে তা ইঙ্গিত করেই সাংসদ বলেন , যে কোনো দলের যে কোনো নেতা উস্কানী মূলক , বিভেদ মূলক মন্তব্য করলে সেই নেতাকে সাসপেন্ড করা উচিত । খেদের সুরে তাঁকে বলতে শোনা যায় , ‘ দুর্ভাগ্য এমন নেতাও আছেন তিনি হাতে মাইক নিয়ে দশ বা একশ জন লোকের সামনে যা খুশি তাই বলে গেলেন আর এর থেকে পুরো পরিস্থিতি বদলে গেল , এর দায় সেই দলকে এবং সেই নেতাকে নিতে হবে। সমাজ থেকে তাঁকে বিচ্ছিন্ন করতে হবে। ‘

২১শের বিধানসভায় দাঙ্গা হবেনা তো ? আশংকায় দেব , নাম না করেই কপিল মিশ্রকে দাগলেন 4
মেলার কর্মকতাদের সংগে সেলফি 

২০২১ এ বাংলা র ভোটেও এই দাঙ্গা আর হিংসার লাগতে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করে বলেন , ‘ রাজনীতি কে ধর্ম দিয়ে ভাগ করা একেবারেই উচিত নয়। ‘২১ এর ভোটে এখানে ধৰ্মযুদ্ধ না বেধে যায়। ‘ বিজেপির নাম না করে বলেন , ‘ ভোট মানেই ধর্ম নিয়ে খেলবেন না। মানুষকে ধর্মের ভিত্তিতে ভাগ করা বন্ধ করুন । মানুষকে ধর্মযুদ্ধের দিকে ঠেলে দেবেন না।’

(adsbygoogle = window.adsbygoogle || []).push({});
আগামী ২১ সালের বিধানসভা র নির্বাচন হিংসাত্বক হ‌ওয়ার আশংকা প্রকাশ করেছেন ঘাটালের সাংসদ দীপক অধিকারী।  ‘ বাংলার ভোটে ধর্মের নামে বিভাজন হবে না তো । ভয় লাগছে ‘।দেব ছাড়াও এদিনের অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন মন্ত্রী সৌমেন মহাপাত্র, জেলা পরিষদের  কর্মাধ্যক্ষ শ্যাম পাত্র, সি এম ও এইচ গিরিশ চন্দ্র বেরা, পঞ্চায়েত সমিতির কর্মাধ্যক্ষ অলোক আচার্য্য, বিবেক মুখার্জি, উৎসব কমিটির সভাপতি সীতেশ ধাড়া প্রমূখরা।