জেলা জুড়ে ২৪ ঘন্টায় আক্রান্ত ১৬২, করোনা বিস্ফোরন গ্রামীন এলাকায়! সংক্রমন শীর্ষে সোনাখালি, দাঁতন, খন্ডরুই, বেলদা! আক্রান্ত ২ পুলিশ আধিকারিক

1937
জেলা জুড়ে ২৪ ঘন্টায় আক্রান্ত ১৬২, করোনা বিস্ফোরন গ্রামীন এলাকায়! সংক্রমন শীর্ষে সোনাখালি, দাঁতন, খন্ডরুই, বেলদা! আক্রান্ত ২ পুলিশ আধিকারিক 1
জেলা জুড়ে ২৪ ঘন্টায় আক্রান্ত ১৬২, করোনা বিস্ফোরন গ্রামীন এলাকায়! সংক্রমন শীর্ষে সোনাখালি, দাঁতন, খন্ডরুই, বেলদা! আক্রান্ত ২ পুলিশ আধিকারিক 2

নিজস্ব সংবাদদাতা: এবার পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার গ্রামীণ এলাকা গুলিতে করোনা বিস্ফোরনে নাকাল স্বাস্থ্য দপ্তর। তুলনায় কিছুটা হলেও কম খড়গপুর ও মেদিনীপুর শহরে। গত ২৪ ঘন্টায় (১৬সেপ্টেম্বর) আরটি/পিসিআর এবং আ্যন্টিজেন রিপোর্টে মোটামুটি ১৬২ জন নতুন আক্রান্তের সন্ধান মিলেছে। মোটামুটি এই কারনে যে সন্ধ্যা অবধি এই তালিকা বিন্যাস হয়েছে। এর বাইরে এক/দুজন আক্রান্ত থাকতে পারেন। এদিন আ্যন্টিজেন পরীক্ষা হয়েছে জেলার বিভিন্ন গ্রাম পঞ্চায়েত স্তরে ফলে কোথাও কোনো রিপোর্ট ওই সময়ে সংযোজিত নাও হতে পারে। বুধবার আ্যন্টিজেন পরীক্ষায় ৪০ জনের পজিটিভ ধরা পড়েছে বাকি ১২২টি পজিটিভ এসেছে আরটি/পিসিআর মোতাবেক।

আরটি/পিসিআর রিপোর্ট অনুযায়ী গ্রামীন এলাকায় সর্বোচ্চ সংক্রমন ধরা পড়েছে দাসপুর-২ সোনাখালি স্বাস্থ্যকেন্দ্রের আওতায়, ১৮জন। সোনাখালি এলাকার জ্যোতঘনশ্যামে ৬জন আক্রান্ত হয়েছেন যাঁর মধ্যে চারজন একই পরিবারের। গৌরাতে একই পরিবারের ২জন সমেত মোট ৪জন আক্রান্ত। এছাড়াও ভূতা, মাগুরিয়াতে নতুন আক্রান্তের সন্ধান মিলেছে।
এরপর রয়েছে দাঁতন যেখানে ১৭জন সংক্রমিত হয়েছেন। চকইসমাইলে একই পরিবারের ৩জন আক্রান্ত হয়েছেন। ভবানীপুর, তররুই ও মোহনপুরে একই পরিবারের ২জন করে আক্রান্ত হয়েছেন।

জেলা জুড়ে ২৪ ঘন্টায় আক্রান্ত ১৬২, করোনা বিস্ফোরন গ্রামীন এলাকায়! সংক্রমন শীর্ষে সোনাখালি, দাঁতন, খন্ডরুই, বেলদা! আক্রান্ত ২ পুলিশ আধিকারিক 3

দাঁতন ২ ব্লকের খন্ডরুই স্বাস্থ্য কেন্দ্রের আওতায় ১৬জন আক্রান্তের সন্ধান মিলিছে। ভাতিয়া গ্রামেই আক্রান্ত ৫ জন। যার মধ্যে একই পরিবারের ৩জন এবং আরেকটি পরিবারের ২জন আক্রান্ত হয়েছেন । এছাড়া পাঁচকনিয়া, দাঁতনিয়া, দামোদরপুর ৩ পরিবার পিছু ২জন আক্রান্ত হয়েছেন। আক্রান্তের সন্ধান মিলেছে জেনকাপুরের কোরি গ্রামে। খন্ডরুইতে একই পরিবারের ৮ এবং ৩বছরের দুই বালিকা আক্রান্ত হয়েছে।

বেলদা স্বাস্থ্য কেন্দ্রের আওতায় বেলদাতেই একই পরিবারের আক্রান্ত ৪ জন সহ ১০ জন নতুন আক্রান্তের সন্ধান মিলেছে। মান্না গ্রামে আক্রান্ত ১জন। এদিন মেদিনীপুর মেডিক্যাল কলেজের নমুনা থেকেও বেলদায় ২আক্রান্তের সন্ধান মিলেছে।
খড়গপুর, হিজলী আর চন্ডিপুর স্বাস্থ্য কেন্দ্রের নমুনা থেকে খড়গপুর শহরে ২৪জন আক্রান্তের সন্ধান মিলেছে। মেদিনীপুর মেডিক্যাল কলেজের নমুনা অনুযায়ী কোতোয়ালি থানার আওতায় মেদিনীপুর শহর ও শহরতলিতে আক্রান্ত ৫ জন। বিদ্যাসাগর স্বাস্থ্য কেন্দ্রের আওতায় ৪ এবং ঘাটাল স্বাস্থ্য কেন্দ্রের আওতায় ৮জন আক্রান্ত হয়েছেন। ঘাটালের সয়লাতে একই পরিবারের আক্রান্ত ২ জন। ঘাটাল পৌরসভায় ৪জন এবং জয়কৃষ্ণপুর ও খাঞ্জাপুরে আক্রান্ত মিলেছে। মেদিনীপুর মেডিক্যাল সূত্রে ঘাটালে আক্রান্ত আরও ১জন।

শালবনী করোনা হাসপাতালে এদিন ২জন পুলিশ আধিকারিকের পজিটিভ পাওয়া গেছে। এঁরা পিড়াকাটা পুলিশ ফাঁড়ির ভারপ্রাপ্ত আধিকারিক ও মেজবাবু বলেই জানা গেছে। এছাড়া ডেবরা থানার জলচক, বিজু ও গোলগ্রামে ৩আক্রান্তের সন্ধান মিলেছে। সবং,অনন্দপুরেও ১জন করে আক্রান্ত হয়েছেন।