বিজেপির উল্টো গিয়ার শুরু! গেরুয়া শিবিরের পরাজয়ে মিষ্টি বিতরণ দিল্লী সীমান্তে অবস্থানরত কৃষকরা! এবার লক্ষ্য উত্তরপ্রদেশ

78
বিজেপির উল্টো গিয়ার শুরু! গেরুয়া শিবিরের পরাজয়ে মিষ্টি বিতরণ দিল্লী সীমান্তে অবস্থানরত কৃষকরা! এবার লক্ষ্য উত্তরপ্রদেশ 1

নিজস্ব সংবাদদাতা: শুধু দেশ নয় ২রা মে বাংলার ভোট গননার দিকে নজর রেখেছিলেন দিল্লি সীমান্তে কৃষি আইন বাতিলের দাবিতে আন্দোলনরত কৃষকরা। আর বিজেপির পরাজয়ের খবর নিশ্চিত হওয়ার পরই উল্লাসে ফেটে পড়লেন অবস্থানরত কৃষকরা, চলল গুলাবজামুন বিতরণ। তারই সাথে ফাটল বাজি আর গানের তালে বিজয় নৃত্য। কৃষকদের একটি অংশ জানিয়েছেন কে জিতল তা বড় কথা নয় বড় কথা বিজেপি হারছে। রবিবার এমনই দৃশ্য নজরে পড়ল হরিয়ানার হিসারের একটি টোলপ্লাজার সামনে।

বিজেপির উল্টো গিয়ার শুরু! গেরুয়া শিবিরের পরাজয়ে মিষ্টি বিতরণ দিল্লী সীমান্তে অবস্থানরত কৃষকরা! এবার লক্ষ্য উত্তরপ্রদেশ 2

উলেখ্য গত কয়েকমাস ধরে কেন্দ্রের তিন কৃষি বিল এর বিরোধীতায় হরিয়ানা পাঞ্জাব সহ দেশের বিভিন্ন প্রান্তের কৃষকদের আন্দোলন অব্যাহত। এরই মধ্যে প্রাণ হারিয়েছেন প্রায় সাড়ে তিনশ কৃষক। অভিযোগ প্রধানমন্ত্রী ফিরেও তাকাননি তাঁদের দিকে। কয়েকজন মন্ত্রী ও আধিকারিক পাঠিয়ে আলোচনার জন্য কয়েক দফা আলোচনার পরেও মেলেনি কোন সমাধানসূত্র। কেন্দ্র অনড় এই কৃষি আইন কিছুতেই প্রত্যাহার করবেনা অন্য দিকে কৃষকরাও নিজেদের অবস্থানে অনড়। এরই মধ্যে ২৬শে জানুয়ারি দিল্লিতে ট্রাক্টর প্যারেড নিয়ে আন্দোলনরত কৃষক নেতৃত্বের ওপর নামিয়ে আনা হয়েছে দমন পীড়ন বলে অভিযোগ।

বিজেপির উল্টো গিয়ার শুরু! গেরুয়া শিবিরের পরাজয়ে মিষ্টি বিতরণ দিল্লী সীমান্তে অবস্থানরত কৃষকরা! এবার লক্ষ্য উত্তরপ্রদেশ 3

আন্দোলনরত কৃষকরা ঠিক করেন যে সমস্ত রাজ্যে বিধানসভা নির্বাচন সেখানে গিয়ে বিজেপিকে ভোট না দেওয়ার প্রচার করবেন তাঁরা। সেই মত এ রাজ্যে এসে বিজেপি বিরোধী প্রচার করে গিয়েছিলেন রাকেশ টিকায়েত সহ আরও কয়েকজন সংযুক্ত কিসান মোর্চার নেতা। তাদের সেই আশা বিফলে যায়নি। বিপুল ভোটে পরাজিত হয়েছে বিজেপি। বিজেপির সেই পরাজয়ে যেন নিজেদের জয় অনুভব করছেন আন্দোলনরত কৃষকরাও। বিজেপিকে হারাতে তারা দীর্ঘ পথ পেরিয়ে বঙ্গে প্রচারে এসেছিলেন তা সফল হল।

রবিবার তাই যখন একের পর এক সিটে পরাজয়ের পর আস্তে আস্তে বাংলায় বিজেপির নৌকাডুবি ঘটছে  তখন হরিয়ানা দিল্লী সীমান্তে আন্দোলনরত কৃষকরা তারিয়ে তারিয়ে উপভোগ করছেন সেই হার। সেই আনন্দে বাজি ফাটিয়ে, মিষ্টি বিলিয়ে আনন্দ করলেন হরিয়ানার আন্দোলনরত কৃষকরা। তাঁরা জানিয়েছেন, বিজেপি-র এই হার তাঁদের প্রথম গুরুত্বপূর্ণ জয়, যা কৃষি আইনের বিরুদ্ধে তাঁদের প্রতিবাদ তীব্রতর করবে। যে মুহূর্তে মমতার জয় নিশ্চিত হয়, তখন থেকেই হিসার জেলার এক টোল প্লাজার পাশের বিক্ষোভ স্থলে ‘গুলাবজামুন’ বিতরণ শুরু হয়।

অন্যদিকে জিন্দার জেলার টল প্লাজার কাছে চলে বাজি ফাটানো এবং লাড্ডু বিলি। কৃষক নেতারা জানাচ্ছেন বাংলার এই জয় এবার উত্তরপ্রদেশ হরিয়ানা হয়ে গোটা দেশে ছড়িয়ে পরবে। কৃষক সংগঠন বিকেইউ এর নেতা গুরনাম সিং চাদুনি বলেন, “পরের বছর দেশের সমস্ত চাষি উত্তরপ্রদেশে হাজির হবে এবং সেখানে বিজেপিকে হারাবে। বিজেপির ‘উলটো গিয়ার’ শুরু হয়েছে, এবার হয়তো দেশ থেকে অদৃশ্য হয়ে যাবে।” কৃষকরা বাংলাকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন, থ্যাংক ইউ বেঙ্গল।

Previous articleকেন্দ্র ও রাজ্যগুলিকে লকডাউন জারির পরামর্শ সুপ্রিম কোর্টের
Next articleপিংলায় দিনে দুপুরে কলেজ ছাত্রীকে ধর্ষণ করে পরনের নাইটিতেই ঝুলিয়ে দিয়ে খুনের অভিযোগ