বিয়েবাড়ির শব্দবাজি থেকে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা জলপাইগুড়িতে,বাজি নিষিদ্ধ শহরে,তবু কেন সজাগ নয় প্রশাসন?প্রশ্ন সকলের

53
বিয়েবাড়ির শব্দবাজি থেকে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা জলপাইগুড়িতে,বাজি নিষিদ্ধ শহরে,তবু কেন সজাগ নয় প্রশাসন?প্রশ্ন সকলের 1
বিয়েবাড়ির শব্দবাজি থেকে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা জলপাইগুড়িতে,বাজি নিষিদ্ধ শহরে,তবু কেন সজাগ নয় প্রশাসন?প্রশ্ন সকলের 2

নিউজ ডেস্ক: অগ্নিকান্ডের ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়াল জলপাইগুড়ি‌র শহরে। রবিবার রাতে শহরের শিরিষতলার বিলপাড়া এলাকায় বিধ্বংসী অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটে। এলাকার একটি বিয়েবাড়ির শব্দবাজি থেকেই আগুন লেগেছে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

স্থানীয় বাসিন্দা‌রা জানান, বিয়েবাড়িতে শব্দবাজি ফাটানো হচ্ছিল। সেই বাজির আগুন ছড়িয়ে পড়ে স্থানীয় সমাজকর্মী নব্যেন্দু মৌলিকের বাড়িতে। খড়ের গাদায় আগুন ছড়িয়ে পড়ায় আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে আস দমকলের একটি ইঞ্জিন। স্থানীয় বাসিন্দা‌দের অভিযোগ, ঘটনাস্থলে দমকলের ইঞ্জিন এলেও তাতে পর্যাপ্ত পরিমান জল ছিল না। পরে আরও একটি ইঞ্জিন পৌঁছালেও ততক্ষণে আগুন ভয়াবহ আকার ধারণ করে। দমকল বিভাগের গাফিলতির পাশাপাশি পুলিসের বিরুদ্ধেও অভিযোগ উঠেছে। পুলিস পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রন করার কাজ না করে ফেসবুক লাইভেই ব্যস্ত বলে অভিযোগ উঠেছে।
অভিযোগ, জলপাইগুড়ি‌তে শব্দবাজি নিষিদ্ধ করা হয়েছে। তা সত্ত্বেও শহরের যেখানে সেখানে দেদার শব্দবাজি ফাটানো হচ্ছে। এই বিষয়ে পুলিসের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। অভিযোগ, জল ছাড়া‌ই আগুন নেভাতে এসে দায়িত্বহীনতার পরিচয় দিয়েছে দমকল বিভাগ। দমকলে খবর দেওয়ার পর অনেক দেরিতে দমকল ঘটনাস্থলে পৌঁছায় বলে অভিযোগ। তবে দমকলের দ্বিতীয় ইঞ্জিনটি আসার পর আগুন নিয়ন্ত্রনে আসে।

বিয়েবাড়ির শব্দবাজি থেকে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা জলপাইগুড়িতে,বাজি নিষিদ্ধ শহরে,তবু কেন সজাগ নয় প্রশাসন?প্রশ্ন সকলের 3