উচ্চ রক্তচাপ থেকে মুক্তি পেতে সহায়তা করে যেসব খাবার

89
উচ্চ রক্তচাপ থেকে মুক্তি পেতে সহায়তা করে যেসব খাবার 1

 

উচ্চ রক্তচাপ থেকে মুক্তি পেতে সহায়তা করে যেসব খাবার 2

নিউজ ডেস্ক: উচ্চ রক্তচাপ- অতি চেনা পরিচিত একটি রোগের নাম। এর নির্দিষ্ট কোন লক্ষণ এবং উপসর্গ যদিও নেই, তবে এই রোগে ভোগা কোন কোন ব্যক্তির ক্ষেত্রে মাথা ব্যথা, অতিরিক্ত ঘুমের প্রবণতা, দ্বিধাগ্রস্থতা, দৃষ্টিশক্তির সমস্যা, বমি বমি ভাব এবং বমি পর্যন্ত হতে পারে। আট থেকে ৮০, যেকোনও বয়সেই, যে কোনও মাপের চেহারার ব্যক্তিদের হাই ব্লাড প্রেসার হতে পারে। স্বাভাবিক রক্তচাপ ১২০/৮০ (বয়স ভেদে সামান্য পার্থক্য থাকে), তার চেয়ে বেড়ে গেলে বলা হয় হাই ব্লাড প্রেসার ও কমে গেলে লো ব্লাড প্রেসার।

উচ্চ রক্তচাপ থেকে মুক্তি পেতে সহায়তা করে যেসব খাবার 3

 

চিকিৎসকদের মতে, হাই ব্লাড প্রেসার থাকা শরীরের পক্ষে বেশি ক্ষতিকারক। এতে হার্ট অ্যাটাক, সেরিব্রাল অ্যাটাক বা স্ট্রোক হওয়ার সম্ভাবনা বেশি। যাঁদের হাই ব্লাড প্রেসার আছে নিয়ম করে ওষুধ খেলে ও স্বাভাবিক জীবনযাপন করলে তা নিয়ন্ত্রণে থাকতে পারে। তবে সেইসাথে কিছু খাবারও আছে, যেগুলো নিয়মিত খেলে কমে যেতে পারে উচ্চ রক্তচাপ। চলুন দেখে নেওয়া যাক কী কী সেইসকল খাবার।

 

কলা: হাই ব্লাড প্রেসার কমিয়ে দিতে পারে কলা। একটি কলায় ৪৫০ মিলিগ্লাম পটাশিয়াম থাকে। তাই প্রতিদিন কলা খেলে হাই ব্লাড প্রেসারের সমস্যা ধীরে ধীরে কমে যেতে পারে।

 

আঙুর: পটাশিয়াম প্রাকৃতিক মূত্রবর্ধক উপাদান, যা কিডনি থেকে সোডিয়াম নিঃসরণ করে ও রক্তনালী শিথিল করে দেয়। পটাশিয়াম ও ফসফরাসে পরিপূর্ণ আঙুর হাই ব্লাড প্রেসার কমিয়ে দিতেও পারদর্শী।

 

তরমুজ: তরমুজে রয়েছে আরজিনাইন। এটি একটি অ্যামিনো অ্যাসিড, যা উচ্চ রক্তচাপ কমিয়ে ফেলতে সহায়তা করে।

 

ডাবের জল: ডাবের জলে রয়েছে পটাশিয়াম, সোডিয়াম, ক্যালশিয়াম, ভিটামিন সি ও অন্যান্য নিউট্রিয়েন্টস্। এই উপাদানগুলি উচ্চ রক্তচাপ কমিয়ে ফেলতে সাহায্য করে।

 

এ তো গেল কিছু ফলের নাম। এছাড়াও আপনার রান্নাঘরেই রয়েছে কিছু এমন জিনিস, যা উচ্চ রক্তচাপের যম। জেনে নেওয়া যাক সেগুলো সম্পর্কে-

 

পেঁয়াজ: পেঁয়াজ, সকলের রান্না ঘরেই হাজির। এই পেঁয়াজে রয়েছে অ্যাডেনোসিন। এটি পেশি শিথিল করে, যা হাইপারটেনশনের রোগীদের চিকিৎসায় সদর্থক ভূমিকা পালন করে। কাঁচা পেঁয়াজের রস বানিয়েও পান করতে পারেন। রসের স্বাদ ভালো না লাগলে তাতে সামান্য মধু মিশিয়ে নিন।

 

রসুন: আরও একটি বস্তু, যে সর্বদা রান্নাঘরে উপস্থিত। এটি ধমনী ও শিরায় জমে থাকা কোলেস্টেরল গলিয়ে দিতে সাহায্য করে। এটি রক্তের প্রবাহ বাড়ানো ও ব্লাড প্রেসার কমানোর ক্ষেত্রে নিদারুণ ভূমিকা পালন করে।

 

ধনেপাতা: এটি দিয়ে তৈরি চাটনি খেতে পছন্দ করেন অনেকেই। তবে এটি উচ্চ রক্ত চাপ কমাতে খুবই কার্যকর ভূমিকা পালন করে। প্রচুর পরিমাণে বায়োঅ্যাকটিভ রয়েছে ধনে পাতাতে। যেমন – অ্যান্টিমাইক্রোবিয়াল, অ্যান্টিডিপ্রেস্যান্ট, অ্যান্টিইনফ্লেমেটারি, যা হতাশা কমানোর উপাদান। তাই ধনেপাতা খেলে কেবল উচ্চ রক্তচাপই নয়, কমে যেতে পারে ডায়াবিটিজ়, কোলেস্টেরলের সমস্যাও।

Previous articleফের সেই বিধান মার্কেটেই আগুন! বারবার কেন একই ঘটনা প্রশ্ন শিলিগুড়ি জুড়েই
Next articleমুঠোফোনে আসক্তি কমাতে কিছু প্রয়োজনীয় কথা