ভোর থেকেই ঝমঝম, খড়গপুর মেদিনীপুরে এক লাফে তাপমাত্রা নামল ৫ ডিগ্রি! দক্ষিণবঙ্গে বজ্রবিদ্যুৎ, উত্তরে হলুদ সতর্কতা

562
ভোর থেকেই ঝমঝম, খড়গপুর মেদিনীপুরে এক লাফে তাপমাত্রা নামল ৫ ডিগ্রি! দক্ষিণবঙ্গে বজ্রবিদ্যুৎ, উত্তরে হলুদ সতর্কতা 1

ওয়েব ডেস্ক : এক ঘন্টায় পারদ নেমে গেল অনেক খানি। খড়গপুর আর মেদিনীপুরে সোমবার সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস। আইআইটি খড়গপুরের ওয়েদার ক্যাম্পাস রিপোর্ট জানাচ্ছে, রাত ১২টার পর যা ক্রমশ কমতে কমতে মঙ্গলবার ভোর চারটায় নেমে আসে ৩১ ডিগ্রিতে। ভোর ৫টায় নেমে আসে ২৯ ডিগ্রি। এরপরই ঝমঝমিয়ে বৃষ্টি। বেলা ৯ টা থেকে দুই শহরে ২৭ ডিগ্রি তাপমান। এভাবে চললে মঙ্গলবার রাত ১২টা পর্যন্ত ২৫ ডিগ্রিতেই নেমে যেতে পারে দুই শহরের তাপমান। সব মিলিয়ে স্বস্তি মঙ্গলবার।

পচা ভাদ্রের গরম নাভিশ্বাস উঠিয়ে দিয়েছিল দুই শহরের। সারা দক্ষিণবঙ্গের মতই ঘামে ফুটছিল খড়গপুর মেদিনীপুর। গত ২দিন ধরে বাতাসে আপেক্ষিক আর্দ্রতা ছিল ১০০% আর গড় তাপমান ৩১ ছুঁয়ে। এই অসম্ভব অস্বস্তি থেকে মুক্তি পেতে বৃষ্টি চাইছিল ২ শহর। মঙ্গলবার সকালে সেই বৃষ্টি শুরু হয়েছে অবশেষে। ব্যাপক বজ্র বিদ্যুৎ সহ প্রথম ঘন্টা খানেকের বৃষ্টি প্রান জুড়িয়েছে দুই শহরের। তারপর থেকে বৃষ্টি চলছে নরমে গরমে।

ভোর থেকেই ঝমঝম, খড়গপুর মেদিনীপুরে এক লাফে তাপমাত্রা নামল ৫ ডিগ্রি! দক্ষিণবঙ্গে বজ্রবিদ্যুৎ, উত্তরে হলুদ সতর্কতা 2

আবহাওয়া দফতরের পূর্বাভাস ছিলই আর সেই মতই মঙ্গলবার ভোর থেকেই দক্ষিণবঙ্গের বিভিন্ন জেলায় বৃষ্টি হয়েছে। এর জেরে আবহাওয়ার বেশ খানিকটা পরিবর্তন হয়েছে৷ তবে শুধুমাত্র দক্ষিণবঙ্গ নয় একই সাথে মঙ্গলবার ভোর থেকেই কলকাতার বেশ কিছু জায়গায় বজ্রবিদ্যুৎ-সহ বিক্ষিপ্ত বৃষ্টি হয়েছে। পাশাপাশি এদিন দক্ষিণবঙ্গের বেশকিছু জেলা, বিশেষত পূর্ব ও পশ্চিম মেদিনীপুর, ঝাড়গ্রাম এবং মুর্শিদাবাদ জেলায় বিক্ষিপ্তভাবে দু-এক পশলা বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। পাশাপাশি এদিন সকাল থেকেই কলকাতা সংলগ্ন এলাকাগুলিতে মেঘলা আকাশ রয়েছে। তবে বেলা বাড়লে আর্দ্রতাজনিত অস্বস্তিও থাকবে।

তবে শুধুমাত্র দক্ষিণবঙ্গ নয়, ইতিমধ্যেই উত্তরবঙ্গের জেলাগুলিতে ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টি হতে পারে। এর জেরে ইতিমধ্যেই প্রশাসনের তরফে হলুদ সর্তকতা জারি করা হয়েছে। তবে বৃষ্টি হলেও বাতাসে জলীয়বাষ্পের পরিমাণ বেশী থাকায় সারাদিন আর্দ্রতাজনিত অস্বস্তি থাকবে। এদিন উত্তরবঙ্গের জেলাগুলির মধ্যে কালিম্পং ও আলিপুরদুয়ারে অতি ভারী বৃষ্টির হলুদ সর্তকতা জারি করা হয়েছে। পাশাপাশি ভারী বৃষ্টির প্রবল সম্ভাবনা রয়েছে দার্জিলিং, জলপাইগুড়ি এবং কোচবিহার জেলায়।
এছাড়া মালদহ, উত্তর ও দক্ষিণ দিনাজপুরে বজ্রবিদ্যুৎ-সহ বৃষ্টি হতে পারে৷ প্রবল বৃষ্টির জেরে প্রশাসনের তরফে মঙ্গলবার সকাল থেকেই পার্বত্য অঞ্চলগুলিতে বাড়তি সতর্কতা জারি করা হয়েছে।
খড়গপুরের মতই সকালের দিকে কলকাতা সহ শহরতলীর বেশ কয়েকটি জায়গায় বজ্রবিদ্যুৎ সহ ঝড় হতে পারে। শুধু তাই নয়, এর পাশাপাশি আগামী ২৪ ঘণ্টায় উত্তর রাজস্থান, পঞ্জাব হরিয়ানা, চণ্ডিগড়, দিল্লি এবং পশ্চিম উত্তরপ্রদেশে ঝোড়ো হাওয়া বইতে পারে, এমনটাই জানিয়েছে আলিপুর আবহাওয়া দফতর ৷