কলকাতা হাইকোর্টের নয়া সিদ্ধান্ত, এবার থেকে করোনায় মৃতদেহ তুলে দেওয়া হবে পরিবারের হাতে, মানতে হবে নির্দেশিকা

543

ওয়েব ডেস্ক : করোনা দেহ সৎকার নিয়ে হাসপাতালগুলির বিরুদ্ধে একাধিক অভিযোগ উঠে এসেছে মৃত পরিবারের তরফে৷ সেকারণে বুধবার কলকাতা হাইকোর্টের তরফে জানানো হয়, এবার থেকে হাসপাতালগুলিকে করোনায় মৃত ব্যক্তির দেহ পরিবারের হাতে তুলে দিতে হবে। তবে সেক্ষেত্রে অবশ্যই মানতে হবে বেশকিছু পদ্ধতি। দেহগুলি পরিবারের হাতে তুলে দিলে সেক্ষেত্রে চিকিৎসাবিজ্ঞানে নির্ধারিত পদ্ধতি মেনে মৃতদেহ জীবাণুমুক্ত করতে হবে। এরপর তা তুলে দেওয়া যাবে পরিবারের হাতে। তবে সেক্ষেত্রেও বেশ কিছু নির্দেশিকা মানতে হবে।

করোনায় মৃতদের দেহদের কোথাও কেরোসিন দিয়ে অর্ধেক পোড়ানো, কোথাও আবার দেহ ফেলে রেখে যাওয়া, অতীতে এধরণের একাধিক ঘটনা সামনে এসেছে। মৃতদেহগুলি সম্মানের সঙ্গে সৎকার করা হচ্ছে না, এই দাবি নিয়ে গত মাসের মাঝামাঝিতে কলকাতা হাইকোর্টে একটি মামলা করা হয়। বুধবার সেই মামলার রায়ে কলকাতা হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতির ডিভিশন বেঞ জানিয়েছেন, মৃতের পরিবার চাইলে নির্দিষ্ট নিয়ম মেনে এবার থেকে করোনায় মৃতের দেহ পরিবারের হাতে তুলে দেওয়া যাবে। তবে সেক্ষেত্রে অবশ্যই কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রক ও রাজ্য সরকারের বেশ নির্দেশিকা মেনে চলতে হবে। কি সেই নির্দেশিকা?

যদি কোনো করোনায় মৃত ব্যক্তির দেহ ময়নাতদন্তের প্রয়োজন না হয় তবেই তা পরিবারের হাতে দেওয়া যাবে। মৃতের দেহ ছেলে, মেয়ে, স্ত্রী, স্বামী, বাবা বা মা ছাড়া অন্যকারো হাতে দেওয়া হবে না। করোনায় মৃত ব্যক্তির দেহ অ্যাম্বুলেন্সে কিংবা অন্য গাড়িতে নিয়ে যাওয়া যাবে না। দেহ রাখতে হবে শবদেহবাহী ব্যাগে। তার মুখের দিকটা স্বচ্ছ প্লাস্টিকে মুড়ে দিতে হবে৷ মৃতদেহটি ব্যাগে রাখার পর ব্যাগের বাইরের দিকটা জীবাণুমুক্ত করতে হবে। করোনায় মৃত ব্যক্তির দেহ কোনোভাবেই বাড়িতে নিয়ে যাওয়া যাবে না। হাসপাতাল থেকে দেহটিকে সোজা যাবে শ্মশানে নিয়ে যেতে হবে।

আরও পড়ুন -  মদের ঠেকের জন্যই মৃত্যু ব্যক্তির, কোলাঘাটে মহিলারাই ভাঙচুর চালালো মহিলারা

শুধুতাই নয়, একইসাথে শবদেহ যাঁরা বহন করবেন তাঁদের অবশ্যই পিপিই পরতে হবে। করোনা দেহ নিয়ে শবদেহবাহী গাড়ি শ্মশানে পৌঁছনোর পর সেটিকে স্যানিটাইজেশন করতে হবে। মৃতের পরিবার চাইলে সামাজিক ও ধর্মীয় আচার পালন করতে পারেন। কিন্তু কোনোভাবেই দেহ ছোঁয়া যাবে না। শুধুমাত্র সৎকারের আগে মুখ দেখার সুযোগ দেওয়া হবে। সৎকার শেষে সৎকার কর্মী সহ প্রত্যেকের স্যানিটাইজ করতে হবে।

কলকাতা হাইকোর্টের নয়া সিদ্ধান্ত, এবার থেকে করোনায় মৃতদেহ তুলে দেওয়া হবে পরিবারের হাতে, মানতে হবে নির্দেশিকা 1