মা দূর্গার প্রতিমা নিরঞ্জনে গিয়ে ভয়াবহ দূর্ঘটনা, নৌকা উলটে মৃত ৫, চাঞ্চল্য বেলডাঙায়

318
Advertisement

ওয়েব ডেস্ক: মা দূর্গার প্রতিমা নিরঞ্জনে গিয়ে ভয়াবহ দূর্ঘটনা। আচমকা নৌকা উলটে মৃত্যু হয় পাঁচজনের। সোমবার সন্ধ্যায় ঘটনাটি ঘটেছে মুর্শিদাবাদের বেলডাঙার। জানা গিয়েছে, প্রথা অনুযায়ী প্রতিবছর সর্বপ্রথম হাজরা বাড়ির মা দূর্গার নিরঞ্জন হয়। এরপর একে একে এলাকার অন্যান্য প্রতিমাগুলি নিরঞ্জন করা হয়। সে অনুযায়ী দশমীর দিন বিকালে দুটি নৌকায় স্থানীয় একটি বিলে প্রতিমা নিরঞ্জন চলছিল। সে সময় আচমকা দুটি নৌকা উলটে গিয়ে মৃত্যু হল পাঁচজনের।

Advertisement

ঘটনায় স্থানীয় বাসিন্দাদের তরফে জানানো হয়েছে, মৃতদের নাম রোহন পাল (২৩), অরিন্দম বন্দ্যোপাধ্যায় (২৩), রুবাই হাজরা বন্দ্যোপাধ্যায় (২০), সুখেন্দু দে (২১) এবং মোহর হাজরা বন্দ্যোপাধ্যায় (৩৪)। জানা গিয়েছে, সোমবার বিকেলে বেলডাঙার ডুমনিদহ বিলে দুটি নৌকায় হাজরা বাড়ির দুর্গা প্রতিমার নিরঞ্জন চলছিল। নৌকাতে লোক বেশী হওয়ায় সেই সময় আচমকা একটি নৌকা একদিকে হেলে যায়। আর তাতেই বিপত্তি! প্রথমে একটি নৌকা উলটে যায়। এর জেরে নৌকায় যাঁরা ছিলেন তাঁদের প্রত্যেকে জলে পড়ে যান। অন্যদিকে এর পর পরই অপর নৌকাটিও উলটে যায়। এর জেরে সকলেই জলে পড়ে যান।

Advertisement
Advertisement

ঘটনায় প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, এদিন প্রতিমা নিরঞ্জনের সময় সামাজিক দূরত্ববিধি না মেনেই দুটি নৌকায় প্রায় ৩৫ -৪০ জন ছিলেন। এদিকে নৌকোর ভারবহন ক্ষমতার অনেকটাই কম। ফলে আচমকা নৌকো দুটি উলটে যায়। নৌকায় থাকা প্রত্যেকেই জলে পড়ে যান। তবে তাঁদের মধ্যে অধিকাংশই সাঁতার কেটে বিলের পাড়ে চলে আসেন। কিন্তু এরপরই পাঁচজনের খোঁজ না মেলায় তাঁদের খোঁজে শুরু হয় তল্লাশি। এরপর সোমবার রাতের দিকে ওই পাঁচজনের দেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য রাতেই মুর্শিদাবাদ মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে দেহ পাঠানো হয়েছে। ঘটনায় পুলিশের প্রাথমিক তদন্তে অনুমান, ওই পাঁচ যুবক সম্ভবত প্রতিমার কাঠামোর নীচে চাপা পড়ে যায়। এর জেরেই তাদের মৃত্যু হয়েছে।