পুজোর আগে ফের নিম্নমুখী সোনা, রেকর্ড পতন রুপোর দামেও

113
পুজোর আগে ফের নিম্নমুখী সোনা, রেকর্ড পতন রুপোর দামেও 1

ওয়েব ডেস্ক : আন্তর্জাতিক বাজারে সোমবারের দামের সাথে খুব একটা হেরফের না হলেও ভারতীয় বাজারে সোমবারের পর মঙ্গলবার ফের পড়ল সোনার দাম। এমসিএক্স সূচকে ডিসেম্বর গোল্ড ফিউচার্সের দাম অনেকটাই কমেছে।
এদিন ১০ গ্রম ডিসেম্বর গোল্ড ফিউচার্সের দাম ০.১৫ % কমে হয়েছে দাঁড়িয়েছে ৫০,৫৫০ টাকা। সোনার সাথে পাল্লা দিয়ে মঙ্গলবার ভারতের বাজারে রুপোর দরও নিম্নমুখী। এদিন কেজি প্রতি সিলভার ফিউচার্সের দাম ০.১২ % কমে দাঁড়িয়েছে ৬১,৮৬৮ টাকা। তবে এই সেশনে এখনও পর্যন্ত সোনার দাম কমলেও গত সেশনে কিন্তু ০.১ % বেড়েছিল হলুদ ধাতুর দর।

আরও পড়ুন -  আগামী কয়েক বছরে বাংলাদেশের জনসংখ্যা কমে অর্ধেক হয়ে যাবে! বলছেন গবেষকরা

এদিন বাজার খুলতেই কিছুক্ষণের জন্য ১০ গ্রাম সোনার দর ৫০,০৩০ টাকায় নেমে গিয়েছিল। তবে তা বেশিক্ষণ স্থায়ী হয়নি। ফের সামান্য বাড়ে হলুদ ধাতুর দর। এদিকে মাস তিনেক আগে অর্থাৎ গত ৭ অগস্ট ভারতীয় বাজারে সোনার দর শিখরে পৌঁছে গিয়েছিল। সেদিন ১০ গ্রাম সোনার দর ৫৬,২০০ টাকায় পৌঁছেছিল। এরপর থেকে ধীরে ধীরে সস্তা হতে শুরু করে সোনা। তবে এর মাঝে যে সোনার দাম একেবারেই কমেনি তা কিন্তু নয়। কখনও কখনও দাম বাড়লেও তা রেকর্ড দরের কাছে পৌঁছায়নি। একই অবস্থা রুপোর ক্ষেত্রেও। গত অগাস্টে আন্তর্জাতিক বাজারের সাথে সামঞ্জস্য রেখে সে সময় ১ কেজি রুপোর দাম ৮০,০০০ টাকায় পৌঁছে রেকর্ড করেছিল। এরপর রুপোর দর মাঝে মধ্যে বাড়লেও এখনও পর্যন্ত অগাস্টের মত দাম বাড়েনি।

এদিকে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প করোনা আক্রান্ত হওয়ার পর থেকে সোনার দর নিয়ে চিন্তায় ছিলেন বিশেষজ্ঞরা। তবে করোনা না কমলেও আপাতত হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেয়েচগেন ট্রাম্প। এরপর থেকেই আন্তর্জাতিক বাজারে ঝুঁকির মনোভাব কিছুটা স্বাভাবিক হয়েছে। তবে ভারতীয় বাজারে সোনার দর কমলেও আন্তর্জাতিক বাজারে অবশ্য সোনার দাম খুব একটা কমবেশি হয়নি। এদিকে সোমবার বিশ্ব বাজারে এক আউন্স স্পট গোল্ডের দাম ১,৯১৮.৩৬ ডলার হওয়ার পর পরে তা সামান্য কমে দাম দাঁড়িয়েছে ১,৯১২.৪৯ ডলার।

পুজোর আগে ফের নিম্নমুখী সোনা, রেকর্ড পতন রুপোর দামেও 2