লকডাউনের কামাল! বিরল সোনালি বাঘের দেখা মিলল কাজিরাঙা জাতীয় উদ্যানে

262
লকডাউনের কামাল! বিরল সোনালি বাঘের দেখা মিলল কাজিরাঙা জাতীয় উদ্যানে 1
লকডাউনের কামাল! বিরল সোনালি বাঘের দেখা মিলল কাজিরাঙা জাতীয় উদ্যানে 2

বিশেষ সংবাদদাতা: এই পৃথিবীতে সে একা। অদ্বিতীয়। ‘ একমেবাদ্বিতীয়ম ‘। চাইলেও নিজের মতো দেখতে আর একটা সঙ্গী জোটে না তার। কারণ আর কেউ নেই। এই বিরাট পৃথিবীতে সেই একা এবং অদ্বিতীয়। এ হেন একমাত্র সোনালি বাঘের বাস রয়েছে ভারতে। আসামের কাজিরাঙা জাতীয় উদ্যানে । সম্প্রতি এক চিত্র গ্রাহকের ক্যামেরাতে ধরা পড়েছে এই সোনালি বাঘের ছবি। নেট দুনিয়ায় সেই ছবি এখন ভাইরাল।

সম্প্রতি দেশে বাঘের সংখ্যা কিছুটা বৃদ্ধি পেয়েছে । দেশে গত চার বছরে বাঘের সংখ্যা সাড়ে সাতশো মতো বৃদ্ধি পেয়েছে । কিন্তু বাঘ এমনিতেই বিপন্ন প্রজাতির প্রাণী। তাই ভারত ব্যাঘ্র সংরক্ষণকে গুরুত্ব দিয়ে দেখছে বহু বছর ধরে। সম্প্রতি দেশের বিভিন্ন এলাকায় দেখা পাওয়া গিয়েছে আরেক বিরল প্রজাতির বাঘের । তা হল ব্ল্যাক প্যান্থার । কর্নাটক, গোয়া, ছত্তিশগড়ের জঙ্গলে দেখা মিলেছে ওই ব্ল্যাক প্যান্থারের।  কিন্তু সোনালি বাঘে? এ হেন প্রাণীর বিশেষ প্রজাতির একমাত্র সদস্যও যে ভারতেই রয়েছে, অনেকেই জানতেন না।

লকডাউনের কামাল! বিরল সোনালি বাঘের দেখা মিলল কাজিরাঙা জাতীয় উদ্যানে 3

সম্প্রতি অসমের কাজিরাঙা জাতীয় উদ্যানে এই সোনালি বাঘটিকে ক্যামেরা বন্দি করেন ময়ূরেশ হেন্দ্রে নামের এক চিত্র গ্রাহক। বন দফতরের এক আধিকারিক, আইএফএস পরভিন কাসওয়ান, ওয়াইল্ড লাইফ ফটোগ্রাফার ময়ূরেশ হেন্দ্রের তোলা সোনালি বাঘের একটি ছবি পোস্ট করেন। এখন সেই ছবিই ভাইরাল। পোস্ট করে তিনি জানান, এই সোনালি বাঘ রয়েছে কাজিরাঙা ন্যাশনাল পার্কে। এই সঙ্গে তিনি জানিয়েছেন যে, ভারত তো বটেই সম্ভবত বিশ্বের কোনও জঙ্গলে নেই এই সোনালি বাঘ।

বন বিভাগের সূত্রে জানা গিয়েছে যে হলদে কালো রয়াল বেঙ্গল টাইগার যেমন আছে তেমনই আছে সাদা কালো রয়াল বেঙ্গল টাইগার । কিন্তু সোনালি বাঘ দেখা যায় না। এই ‘ গোল্ডেন টাইগার ‘ কে স্ট্রবেরি টাইগার বলেও ডাকা হয় । আদর করে বলা হয় ট্যাবি টাইগার । এটি রয়াল বেঙ্গল টাইগারের এক বিরল বর্ণসংকর যা জিনের পশ্চাদমুখী গঠন ও বিক্ষিপ্ত হয়ে পড়া বাঘের আন্তঃপ্রজননের কারণে হয়ে থাকে ।কাজিরাঙা জাতীয় উদ্যানের ফিল্ড ডিরেক্টর পি শিবকুমার জানিয়েছেন যে এই জঙ্গলের মধ্যে এই বিরল প্রজাতির বাঘটি থাকলেও তা এতদিন ধরে দেখা যায় নি। এটি একটি বাঘিনী ও বয়স প্রায় সাত বছর ।

কাজিরাঙা জাতীয় উদ্যানেএই সোনালি বাঘের মতো বিরল প্রজাতির বাঘের সন্ধান যেমন পাওয়া গিয়েছে, তেমনই দেশের বিভিন্ন এলাকায় দেখা পাওয়া গিয়েছে আরেক বিরল প্রজাতির বাঘের । তা হল ব্ল্যাক প্যান্থার । যে বাঘের উল্লেখ রয়েছে রুডইয়ার্ড কিপলিং এর লেখা ‘ দি জঙ্গল বুক’ গল্পের বইয়ে। যার অন্যতম প্রধান চরিত্র মুগলী। দিন কয়েক আগে রটে যায় যে উত্তরবঙ্গের জঙ্গলে দেখা মিলেছে ওই ব্ল্যাক প্যান্থার । কিন্তু তার কোনও হদিশ পাওয়া যায় বলে বন বিভাগ জানিয়েছে।

তবে দিন কয়েক আগে এই ব্ল্যাক প্যান্থারের দেখা পাওয়া গিয়েছে কর্নাটকের কাবিনী জঙ্গলে। দেখা পাওয়া গিয়েছে ছত্তিশগড়ের বিলাসপুর এলাকার জঙ্গলের মধ্যে । এমনকি গোয়া রাজ্যেও। গোয়ার মুখ্যমন্ত্রী প্রমোদ সাওয়ান্ত সেই রাজ্যে পাওয়া ওই ব্ল্যাক প্যান্থারের ছবি নিজেই দিয়েছিলেন সোশাল মিডিয়াতে। সেই ছবিও ভাইরাল হয় ।