হেঁটে বেড়াচ্ছে অঙ্গার হয়ে যাওয়া জীবন্ত মানুষ, গুজরাতের রাসায়নিক কারখানায় ভয়াবহ বিস্ফোরনে নিহত অন্তত ৫ আহত বহু

1292
হেঁটে বেড়াচ্ছে অঙ্গার হয়ে যাওয়া জীবন্ত মানুষ, গুজরাতের রাসায়নিক কারখানায় ভয়াবহ বিস্ফোরনে নিহত অন্তত ৫ আহত বহু 1

নিজস্ব সংবাদদাতা: বুধবার, ভারতের পশ্চিম উপকূলে ভয়ঙ্কর ঝড় নিসর্গ আছড়ে পড়ার দিন আরেক ভয়াবহ দুর্ঘটনার স্বাক্ষী রইল পশ্চিম উপকূলেরই রাজ্য গুজরাট। গুজরাটের ভারুচ জেলার দাহেজ শিল্পাঞ্চলে একটি অ্যাগ্রো-কেমিক্যাল ফ্যাক্টরিতে বয়লার ফেটে ঘটে যাওয়া এক বিস্ফোরনে অন্তত ৫জনের মৃত্যু হয়েছে, আহত হয়েছেন কয়েক ডজন কর্মচারী। বয়লার ফাটার সঙ্গে সঙ্গেই দ্রুত আগুন ছড়িয়ে পড়ে সারা কারখানায়। বিস্ফোরণের বিকট শব্দে কেঁপে ওঠে চারপাশের এলাকা।

হেঁটে বেড়াচ্ছে অঙ্গার হয়ে যাওয়া জীবন্ত মানুষ, গুজরাতের রাসায়নিক কারখানায় ভয়াবহ বিস্ফোরনে নিহত অন্তত ৫ আহত বহু 2

স্থানীয়দের কথায় মুহূর্তের মধ্যে কালো ধোঁয়ায় ঢেকে যায় গোটা অঞ্চল। আর ওই সময়ে কারখানার ভেতর থেকে ছুটে বেরিয়ে আসতে দেখা যায় অগ্নি দগ্ধ অঙ্গার হয়ে যাওয়া মানুষকেও। তেমনই এক ভয়াবহ ছবি এসে পৌঁছেছে দ্য খড়গপুর পোস্টের হাতে,তখনও আ্যম্বুলেন্স এসে পৌঁছায়নি, জীবন্ত দগ্ধ হয়ে যাওয়া মানুষ তখন হাসপাতালে যাওয়ার জন্য মানুষের সাহায্য চাইছে আর প্রত্যেকেই অন্য অন্যজনকে পরামর্শ দিচ্ছেন ব্যক্তিকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার জন্য!

হেঁটে বেড়াচ্ছে অঙ্গার হয়ে যাওয়া জীবন্ত মানুষ, গুজরাতের রাসায়নিক কারখানায় ভয়াবহ বিস্ফোরনে নিহত অন্তত ৫ আহত বহু 3

সর্বভারতীয় ইংরেজী দৈনিক দ্য টাইমস অব ইন্ডিয়া জানিয়েছে, বেলা ১২টা নাগাদ ঘটে যাওয়া এই ভয়াবহ বিস্ফোরনের প্ৰকৃত কারন এখনও পরিষ্কার নয় তবে এ অবধি এই বিস্ফোরনের জেরে ৫ জনের মৃত্যু হয়েছে এবং ৫৭ জন অগ্নিদগ্ধ হয়েছেন ফলে মৃতের সংখ্যা আরও বাড়ার আশঙ্কা করা হচ্ছে।

ভারুচের জেলাশাসক এম.ডি.মোদিয়া জানিয়েছেন, যেহেতু রাসায়নিক কারখানা থেকে নির্গত ধোঁয়া ক্ষতিকর তাই আশেপাশের দুটি গ্রামের বাসিন্দাদের নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। দমকলের ১০টি ইঞ্জিন আগুন নিয়ন্ত্রণে এনেছে। আহত কর্মীদের ভারুচের স্থানীয় বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। সেখানেই চিকিৎসাধীন রয়েছেন তাঁরা। কারখানা লাগোয়া স্থানীয় ২টি গ্রাম লুয়ারা ও লখিগাম থেকে অন্তত ৪হাজার ৮০০ মানুষকে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন বিস্ফোরনের তীব্রতা এতটাই ছিল যে ২০কিলোমিটার ব্যাসের আশেপাশের জেলা ভাবনগরের গ্রাম থেকে এই বিস্ফোরনের আওয়াজ শোনা গেছে।

ভারুচের পাশের জেলা এই ভাবনগর এবং যে এলাকায় এই কারখানাটি রয়েছে সেই দাহেজ স্পেশাল ইকোনমিক জোন গুজরাটের কাম্বে উপত্যকায় পড়ে। গোটা এলাকাটি ঢেকে গেছে কালো ধোঁয়ায়। আধিকারিকরা জানিয়েছেন, এই প্ল্যান্টে হাইড্রোজেন, সালফার ডাই অক্সাইড, জিলেন বা এথানলের মত গ্যাস উৎপাদন হত যা অত্যন্ত ক্ষতিকারক।

ইতিমধ্যেই সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়েছে এই বিস্ফোরণের ছবি-ভিডিও। জানা গিয়েছে এই কেমিক্যাল প্ল্যাট দেশের অন্যতম বিখ্যাত সংগঠন যশস্বী রসায়ন প্রাইভেট লিমিটেডের। এই সংস্থা দেশের শিল্পে ব্যবহৃত হয় এমন ১৫ ধরনের রাসায়নিক বানায়। সরকারি একটি সূত্রে অবশ্য দাবি করা হয়েছে, পশ্চিম উপকূলে নিসর্গের উপস্থিতি থাকায় বাতাসে আর্দ্রতার পরিমান অত্যন্ত বেশি থাকায় বাতাসে সালফার ডাই অক্সাইড সেই ভাবে ছড়িয়ে পড়তে পারবেনা বলেই মনে করা হচ্ছে। আর যেহেতু মানুষজনকে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে তাই তাঁদের ক্ষতির আশঙ্কা নেই।

Previous articleকেন খুন ১২বছরের ছেলেকে, বাবাকে গ্রেপ্তার করে তদন্ত আসানসোল পুলিশের। উদ্ধার খুনে ব্যবহৃত পিস্তল
Next articleহাওড়ার শ্যামপুর থেকে উদ্ধার ঘাটালের শিশুকন্যা, বিক্রি করা হয়েছিল কী না খতিয়ে দেখছে পুলিশ